Samsung IM Campaign_Oct’20

ই-কমার্সে বিদেশিদের শতভাগ বিনিয়োগ, তবে...

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ই-কমার্স খাতে শর্তসাপেক্ষে বিদেশিদের শতভাগ বিনিয়োগের সুযোগ দিতে আপত্তি নেই দেশিয় উদ্যোক্তাদের।

বিনিয়োগে স্থানীয় কোম্পানির সঙ্গে অংশীদারিত্বের বাধ্যবাধকতার শর্ত তুলে বিদেশি বিনিয়োগের শতভাগ সুযোগ রেখে ‘জাতীয় ডিজিটাল কমার্স নীতিমালা-২০১৮’ সংশোধনের উদ্যোগে শুরুতে আপত্তি জানান তারা। সম্প্রতি এ নীতিমালা মন্ত্রিসভায় পাস হয়েছে।

এখন দেশিয় ই-কমার্স উদ্যোক্তারা বলছেন, শর্তহীনভাবে এ সুযোগ দেয়ার পক্ষে তারা নন।শর্তহীন শতভাগ বিদেশি মালিকানা অনুমোদন দেয়া হলে তাদের অস্থিত্ব বিপন্নের আশংকা রয়েছে ।

শনিবার ঢাকায় ডেইলি স্টার মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত ‘দেশিয় ই-কমার্স খাতের ভবিষ্যত রোডম্যাপ-সম্ভাবনা, চ্যালেঞ্জ ও করণীয়’ শীর্ষক এক গোলটেবিল বৈঠকে দেশীয় উদ্যোক্তারা এই আশংকার কথা জানান।

প্রিয়শপ ডটকমের প্রতিষ্ঠাতা সিইও এবং ই-ক্যাবের রুরাল ই-কমার্স স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান আশিকুল আলম খানের সঞ্চালনায় বৈঠকে বিডিজবস ও আজকের ডিলের প্রতিষ্ঠাতা এবং বেসিস পরিচালক ফাহিম মাসরুর মূল প্রস্তাবনা উপস্থাপনা করেন।

বৈঠকে উদ্যোক্তারা জানান , বিদেশি মালিকানাধীন ই–কমার্স প্রতিষ্ঠান বাজারে পণ্যের দাম কৃত্রিমভাবে কমিয়ে  বাজার দখল করার উদ্যোগ নিয়েছে।

যে শর্তে বিদেশি কোম্পানি শতভাগ বিনিয়োগ করতে পারবে তা হলো, বিদেশি বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান কোনো একক বিনিয়োগ হিসেবে আসতে পারবে না। ‘বিদেশে নিবন্ধিত হোল্ডিং ইনভেস্টমেন্ট কোম্পানি’ হিসেবে আসতে হবে এবং বিদেশে নিবন্ধিত হোল্ডিং কোম্পানিতে কমপক্ষে ৫ ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের শেয়ার থাকতে হবে।

এছড়া এ খাতে বিনিয়োগের সাধারণ শর্তের মধ্যে রয়েছে :

*ই-কমার্স কোম্পানির  প্রযুক্তি প্লাটফর্ম সম্পূর্ণ দেশিয় প্রযুক্তিবিদের মাধ্যমে তৈরি হতে হবে।

* সকল ধরণের ডেটা বাংলাদেশের অভ্যন্তরে হোস্টেড করতে হবে।

* শুধুমাত্র ‘মার্কেটপ্লেস’ মডেলে কোনো বিদেশি বিনিয়োগ হতে পারবে।

* আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ডের নামে এবং বিদেশি ব্যবস্থপনায় বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ৪৯ শতাংশ সীমা কার্যকর থাকবে।

প্রিয়শপ ও আজকের ডিলের সঙ্গে বাগডুম ডটকম, কিকসা, রকমারি, পিকাবু, অথবা, এনআরবি বাজার এবং হাংরিনাকি ডটকম বৈঠকটির আয়োজক। আয়োজকরা ছাড়াও ই-কমার্স খাতের ইকোসিস্টেমে থাকা বিভিন্ন উদ্যোগের প্রতিনিধি ও সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এতে উপস্থিত ছিলেন।

এর মধ্যে রয়েছেন ই-ক্যাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াহেদ তমাল, ফাইন্যান্স সেক্রেটারি আব্দুল হক অনু  এটুআইয়ের প্রতিনিধি রিজওয়ানুল হক জামি, তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের স্টার্টআপ বাংলাদেশের পরামর্শক নাইম আশরাফি ও বেসিসের ডিজিটাল কমার্স কমিটির চেয়ারম্যান এস এম কামাল।

আল-আমীন দেওয়ান

*

*

আরও পড়ুন