মক্কায় পানি সমস্যার সমাধান দেবে ডেটাসফটের আইওটি ডিভাইস

টেক শহর কনটেন্ট : সৌদি আরবের মক্কায় পানি সমস্যার সমাধান দিতে প্রথমবারের মতো আইওটি ডিভাইস রপ্তানি করছে বাংলাদেশি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ডেটাসফট।

মঙ্গলবার দেশের সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ডেটাসফট সিস্টেমস বাংলাদেশ লিমিটেড তাদের তৈরি আইওটি ডিভাইসের প্রথম শিপমেন্ট যাচ্ছে বলে জানিেয়ছে।

সৌদি আরবের মক্কা কেন্দ্রিক প্রতিষ্ঠান ‘স্যাক আলভাতানিয়া’ ডেটাসফটের কাছ থেকে এই ডিভাইসগুলো কিনছে।

পাইলট প্রজেক্টের অংশ হিসেবে স্যাক আলবাতানিয়া প্রথম লটে ১০০ আইওটি ডিভাইস নিয়ে যাচ্ছে। তবে খুব তাড়াতাড়িই মক্কায় আরো পাঁচ হাজার ডিভাইস রপ্তানি করবে ডেটাসফট।

মঙ্গলবার গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটিতে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আইওটি ডিভাইস রপ্তানির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয় ডেটাসফট।

ডেটাসফটের তৈরি করা ডিভাইসগুলো বসানো হবে দেশটির পবিত্র মক্কা নগরীতে বিভিন্ন বাসা-বাড়ি এবং বিভিন্ন দফতরের পানির ট্যাঙ্কে। যার মধ্যেমে সংশ্লিষ্টরা ট্যাঙ্কের পানির পরিমাণ জানতে পারবে।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, মক্কায় কেন্দ্রীয়ভাবে পানি সরবরাহের কোনো ব্যবস্থা নেই। বাসা বাড়িতে ট্যাঙ্কের মাধ্যমে পানি সরবরাহ করে কর্তৃপক্ষ। এ ক্ষেত্রে কখন ট্যাঙ্কের পানি শেষ হয়ে গেলো সেটি কর্তৃপক্ষ বা বাসা-বাড়ির মালিকেরা বুঝতে পারেন না।

এক্ষেত্রে আইওটি ডিভাইসটি ট্যাঙ্কে বসানো থাকলে পানির স্তর ২০ শতাংশের নীচে নেমে আসলেই সঙ্গে সঙ্গে কর্তৃপক্ষকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে অ্যালার্ট দেবে ডিভাইসটি।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। তিনি বলেন, আলবাতানিয়ার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সালেম বিন মাহফুজের কাছে আইওটি ডিভাইস রপ্তানির চুক্তিপত্র হস্তান্তর করেন। 

মোস্তাফা জব্বার বলেন, এর মধ্য দিয়ে দেশের এক নবদিগন্ত উন্মোচন হলো। দেশের অন্যতম হাইটেক সিটিতে তৈরি আইওটি ডিভাইস এখন বিদেশে যাচ্ছে। আমরা অচিরেই আরো উন্নত বিভিন্ন ধরনের ডিভাইস রপ্তানি করতে পারবো বলে আশা করছি। 

ডেটাসফট জানিয়েছে, প্রতিটি ডিভাইসের মূল্য পড়বে পাঁচশ ডলারের কাছাকাছি। তাতে করে পাঁচ হাজার ডিভাইসের জন্যে তাদের ২০ কোটি টাকার কিছু বেশি আয় হবে।

ইতোমধ্যে ডেটাসফট সৌর বিদ্যুৎ দিয়ে ব্যবহার করা যায় এমন দুটি ল্যাপটপ তৈরি করেছে। এছাড়াও প্রতিষ্ঠানটি বিভিন্ন ধরনের আইওটি ডিভাইস তৈরির জন্য কাজ করে যাচ্ছে।

এর আগেও ডেটাসফট ইন্টারনেট অব থিংস এবং আর্টিফিসিয়াল ইন্টিলিজেন্স নিয়ে কাজ করছে অনেক দিন থেকে। জাপনাসহ কয়েকটি দেশে তারা তাদের এসব সেবা এবং উদ্ভাবন বিক্রি করছে।

মঙ্গলবারের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় অধ্যাপক ও এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অ্যাধপক জামিলুর রেজা চৌধুরী, তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সচিব জুয়েনা আজিজ, বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম এনডিসি, বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবির, ডেটাসফটের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহবুব জামানসহ আরো অনেকেই।

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

আরও পড়ুন