Techno Header Top and Before feature image

ই-বর্জ্যে তৈরি ধাতু থেকে নতুন ব্যবসার প্রসার ঘটবে

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : প্রযুক্তি পণ্য হতে পারে ভবিষ্যতের দুষ্প্রাপ্য ধাতুর উৎস। খনি থেকে সরাসরি আকর উঠিয়ে তা শোধনের চেয়ে অনেক দ্রুত ও কম খরচে পুরাতন কম্পিউটার, মোবাইল ও অন্যান্য ইলেক্ট্রনিকস থেকে সীসা, ইরিডিয়াম, প্লাটিনাম এমনকি স্বর্ণও পাওয়া সম্ভব।

তবে এসকল ধাতুর চেয়ে আরও বেশি প্রয়োজন বাতিল পণ্য থেকে অ্যালুমিনিয়াম আর তামা পুনরুদ্ধার করা। এমনিতেই খনিতে প্রতিদিন আকরের পরিমাণ কমেই যাচ্ছে। যদি এসব ধাতুর সঙ্গেই সেগুলো মাটিচাপা দেয়া হয়, তাহলে খুব দ্রুতই বিশ্বে ধাতুর ঘাটতি দেখা দেবে।

এ ব্যাপারে অস্ট্রেলিয়ার ম্যাক্যারে বিশ্ববিদ্যালয় আর চীনের সিংঘুয়া বিশ্ববিদ্যালয় একত্রে গবেষণা করছে। তাদের দাবি, ই-বর্জ্য বা বাতিল ইলেক্ট্রনিক্স থেকে ধাতু পুনরুদ্ধারে সরাসরি আকর শোধনের চেয়ে ১৩ গুন কম টাকা ব্যয় হবে।

ই-বর্জ্যের পরিমাণ দিন দিনই বাড়ছে। শুধুমাত্র ২০১৬ সালেই উৎপাদন হয়েছে ৪ কোটি ৫০ লাখ টন ই-বর্জ্য। আগামী ২০২১ সাল নাগাদ তা ৫ কোটি টন ছাড়াবে।

যেসকল দেশ এখন থেকেই ই-বর্জ্য শোধনের কাজ শুরু করবে তারা যে আগামীতে প্রচুর লাভবান হবে তাতে সন্দেহ নেই। বাংলাদেশ এ ক্ষেত্রটিতে সহজেই কাজ করতে পারবে।

বিবিসি অবলম্বনে এস এম তাহমিদ

*

*