Techno Header Top and Before feature image

৫ শতাংশ ভ্যাট দিতে হতে পারে উবার-পাঠাওয়ে চড়লেও

Ride-sharing-techshohor
মোটরসাইকেলে রাইড শেয়ারিং। ছবি : ইন্টারনেট
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : উবার-পাঠাও বা অ্যাপ ভিত্তিক রাইড শেয়ারিং সেবা নিতে দিতে হতে পারে ৫ শতাংশ মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট)।

আসছে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটে এই ভ্যাটের ঘোষণা আসতে পারে বলে জানা গেছে।

‘এবার বাজেটে বলা হচ্ছে, বর্তমানে ইন্টারনেট বা সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে পণ্য বা সেবার ক্রয়-বিক্রয় যথেষ্ট বৃদ্ধি পেয়েছে। এ পণ্য বা সেবার পরিসরকে আরও বাড়াতে ভাচুর্য়াল বিজনেস নামে একটি সেবার সংজ্ঞা সৃষ্টি করা হয়েছে। এর ফলে অনলাইনভিত্তিক যেকেনো পণ্য বা সেবার ক্রয়-বিক্রয় বা হস্তান্তরকে এ সেবার আওতাভুক্ত করা সম্ভব হবে। তাই ভাচুর্য়াল বিজনেস সেবার ওপর ৫ শতাংশ হারে মূসক আরোপের প্রস্তাব।’

এ হিসেবে রাইড শেয়ারিং সেবা এর আওতায় পড়ছে বলে মনে করছেন খাত সংশ্লিষ্টরা। যেহেতু সেবাটি ইন্টারনেট ব্যবহার করেই দেয়া হয়ে থাকে।

সিএনজি নিয়ে অ্যাপে রাইড শেয়ারিং সেবা দেয়া ও ভাই এর ব্র্যান্ড এবং কমিউনিকেশন লিড সৈয়দ মাহমুদ শাফায়েত রেজা টেকশহরডটকমকে বলেন, যদি এই ভ্যাট দিতে  হয় তাহলে  তা গ্রাহকের ওপর  চাপ তৈরি করবে। বাড়তি ভাড়া তো গ্রাহকেই গুণতে হবে।

প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ে এর কেমন প্রভাব পড়বে এমন প্রশ্নে এখনই কোনো মন্তব্য করতে চাননি তিনি।

দেশীয় রাইড শেয়ারিং কোম্পানি ইজিয়ারের উদ্যোক্তা এবং পরিচালক কামরুল হাসান ইমন টেকশহরডটকমকে বলেন, দেশে মাত্র জনপ্রিয় হচ্ছে অ্যাপে এই রাইড শেয়ারিং সেবা। আমাদের, বিশেষ করে দেশীয় উদ্যোক্তাদের জন্য আরও সময় দেয়া উচিত ছিল।

‘আমরা উদ্যোক্তারা দিন শেষে এই চাপ গ্রাহকের ওপর দিতে পারবো না। কারণ বেশি ভাড়া দেখলে সে বিদেশি কোম্পানির সেবা নেবে। আমাদের তো তাদের মতো বিনিয়োগ নেই যে সাবসিডি দেবো। তাহলে টিকে থাকা কঠিন হবে।’- বলছিলেন ইমন।

দেশে জনপ্রিয় দুটি রাইড শেয়ারিংয়ের প্রতিনিধিরা জানিয়েছে যদি ভ্যাট আরোপ হয়  তাহলে বাজার নিয়ে কী পরিকল্পনা হবে সেটি এখনও ঠিক করা হয়নি। আর এ বিষয়ে এখনই আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু বলতে চান না তারা।

যদিও এ দুটি কোম্পানি তাদের সেবায় গ্রাহকদের ব্যাপক হারে প্রমোশন ও ছাড় দিয়ে থাকে।

এদিকে বিআরটিএর ‘এনলিস্টমেন্ট সার্টিফিকেট’ নিতে শুরুতে সাতটি অ্যাপভিত্তিক রাইড শেয়ারিং কোম্পানি আবেদন করেছে।

কোম্পানিগুলো হলো, উবার লিমিডেট, পাঠাও লিমিডেট, সহজ লিমিটেড , চালডাল লিমিটেড, আকাশ টেকনোলজি লিমিটেড, গোল্ডেন রিং লিমিডেট এবং ও ভাই লিমিটেড।

চলতি বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারি রাইড শেয়ারিং সার্ভিস নীতিমালার গেজেট জারি করা হয় এবং ১৫ জানুয়ারি রাইড শেয়ারিং সার্ভিস নীতিমালা অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা।

বর্তমানে রাইড শেয়ারিংয়ে উবার, পাঠাও ছাড়াও দেশে স্যাম, আমার রাইড, মুভ, বাহন, চলো অ্যাপে, ট্যাক্সিওয়ালা, ওই খালি, লেটস গো ইত্যাদি নামে বিভিন্ন কোম্পানি অ্যাপভিত্তিক এই পরিবহন সেবা দিচ্ছে।

আল-আমীন দেওয়ান

*

*

আরও পড়ুন