মেসিরা খেলবে না ইসরায়েলের সঙ্গে, ফেইসবুকে স্তুতি

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ফেইসবুক, টুইটার আর অন্যান্য সামাজিক মাধ্যমজুড়ে একটি বার্তা চাউর হয়েছে। বার্তাটির আর্জেন্টাইন ফুটবলার লিওনেল মেসির।

বার্তাটি আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ প্রস্তুতির শেষ ম্যাচ ইসরায়েলকে ঘিরে। বেশ কিছু দিন আগেই আর্জেন্টাইন কোচ ইসরাইলের সঙ্গে প্রস্তুতি ম্যাচ না খেলার বিষয়ে অনাগ্রহের কথা জানান। মূলত দলটির খেলোয়াড়রাই ম্যাচটি খেলতে চাননি।

জাতিসংঘের শিশুদের নিয়ে কাজ করা সংস্থা ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে কাজও করেন মেসি। তাই যে দেশ শিশুদের সুরক্ষার বদলে ফিলিস্তিন নাগরিক এবং শিশুদের বর্বরোচিতভাবে হত্যা করে চলেছে তাদের বিপক্ষে না খেলার সিদ্ধান্তের কথা জানান।

Techshohor Youtube

ফেইসবুক, টুইটারে ছড়িয়ে পড়া সেই বার্তাটিতে মেসি বলেছেন, ইউনিসেফের একজন শুভেচ্ছাদূত হিসেবে আমি তাদের সঙ্গে খেলতে যেতে পারি না যারা ফিলিস্তিনের নিরীহ শিশুদের হত্যা করছে। আমাদের এই ম্যাচ বাতিল করা উচিত কারণ আমরা ফুটবলারের আগে একজন মানুষ।

বার্তাটি সামাজিক মাধ্যমগুলোয় হাজার হাজার শেয়ার হয়েছে। দলমত নির্বিশেষ শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন সবাই মেসিদের।

মাইদুল ইসলাম বাবু নামের এক ফেইসবুক ব্যবহারকারী লিখিছেন, ব্যক্তিগতভাবে আমি মনে করি আর্জেন্টিনা ইসরাইলের সঙ্গে ম্যাচটি বাতিল করে শান্তির পক্ষে অংশ নিয়েছে। দেশটি যেভাবে ফিলিস্তিনিদের প্রতি অন্যান করছে, খুন করছে তাতে তাদের সন্ত্রাসী দল হিসেবেই চিহ্নিত করা উচিত। মেসিদের শ্রদ্ধা।

মাধ্যম জুড়েই এখন মেসিদের স্তুতি গাইছেন সবাই।

অবশ্য এই না খেলার পেছনে আর্জেন্টিনার উপর রাজনৈতিক চাপও ছিল। ইসরায়েলের সঙ্গে যেন প্রস্তুতি ম্যাচটি না খেলে আর্জেন্টিনা তার জন্য অনেক দেশ সেই চাপ দিচ্ছিল।

বিশ্বকাপ শুরুর আগে ৯ জুন সেটিই ছিল আর্জেন্টিনার শেষ প্রস্তুতি ম্যাচ। এর আগে ফিলিস্তিনি ফুটবল কর্তৃপক্ষ ইসরায়েলে সঙ্গে ম্যাচটি না খেলার আহ্বান জানায় আর্জেন্টাইন ফুটবল ফেডারেশনকে।

ফিলিস্তিনি ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি ম্যাচটি না খেলার ব্যাপারে লিওনেল মেসিকে আহ্বান জানিয়ে বলেছিলেন, শত অনুরোধের পরেও মেসি যদি ইসরায়েল যান, তাহলে তার জার্সি ও ছবি পোড়ানো হবে। ফিলিস্তিনি ফুটবল ফেডারেশনের পক্ষ থেকে আর্জেন্টাইন সরকারের কাছেও ম্যাচটি খেলতে জেরুজালেমে না আসার অনুরোধ জানানো হয়।

সবকিছু বিবেচনা করে আর্জেন্টিনা ম্যাচটি না খেলার সিদ্ধান্ত নেয়।

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

আরও পড়ুন