বিডিনগ সম্মেলনে প্রকৌশলীদের দক্ষতা বাড়াতে পলকের আহ্বান

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ইন্টারনেট এখন অর্থনীতির অন্যতম চালিকা শক্তি। ব্যবসা-বাণিজ্য, ব্যাংকিং, সরকারি-বেসরকারি ই-সেবা, স্মার্ট সিটি, স্মার্ট হোমের মতো আরো অনেক নতুন সেবা দেবার পরিধি এর মাধ্যমে বাড়ছে। তাই এর অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষনের চ্যালেঞ্জ রয়েছে। ফলে ইন্টারনেটের প্রযুক্তিগত কাঠামো যথাযথভাবে বাস্তবায়ন করতে হলে সংশ্লিষ্ট প্রযুক্তিবিদ বা প্রকৌশলীদের পেশাগত উৎকর্ষতা বাড়াতে হবে বলে বলেছেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

বাংলাদেশ নেটওয়ার্ক অপারেটরস গ্রুপের (বিডিনগ) আয়োজনে যশোর শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে শুরু হওয়া অষ্টম সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

Evaly in News page (Banner-2)

শুক্রবার সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

পরে বক্তব্যে তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের পথে ইন্টারনেট প্রযুক্তি প্রধান অনুসঙ্গ। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগকে এখন মানুষের মৌলিক অধিকার হিসাবে দেখা হচ্ছে। বাংলাদেশেও শতভাগ মানুষকে ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগের মধ্যে আনতে কাজ করা হচ্ছে। ২০১৮ সালের মধ্যেই কাজটি সম্পন্ন করার আশা করা হচ্ছে।

ইন্টারনেট ব্যবহারকারী যে হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে তাতে আগামী কয়েক বছরের মধ্যে আমাদের ন্যাশনাল ইন্টারনেট ব্যাকবোন টেরাবাইট ক্যাপাসিটিতে চলে যাবে। আমাদের ইঞ্জিনিয়ারদেরও এই বিশাল ইন্টারনেট ট্রাফিক ম্যানেজ করার জন্য সে রকম সক্ষমতা অর্জন করতে হবে। বিডিনগ তাদের সম্মেলন ও কর্মশালার মাধ্যমে প্রযুক্তিবিদ ও প্রকৌশলীদের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে প্রতিনিয়ত কাজ করছে বলে বলেন পলক।

উদ্বাধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যশোরের জেলা প্রশাসক মো. আবদুল আওয়াল।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিডিনগ বোর্ড অব ট্রাস্টির চেয়ারম্যান রাশেদ আমিন বিদ্যুৎ, ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারস অ্যাসোসিয়েশন অফ বাংলাদেশ (আইএসপিএবি) সভাপতি আমিনুল হাকিম, সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুল হক, বিডিনগ ট্রাস্টি সুমন আহমেদ সাবির, বিডিনগ সাধারণ সম্পাদক বরকতুল আলম বিপ্লব প্রমুখ।

উল্লেখ্য, সম্মেলনের প্রথম দিন ‘ডেটা সেন্টার ডিজাইন, গাইডলাইন অ্যান্ড স্ট্যান্ডার্ডস’, ‘ক্যালকুলেটিং কুলিং রিকয়রমেন্টস ফর ডেটা সেন্টার’, ‘প্রিভেন্টিং ট্রাফিক উইথ ইস্পুপড সোর্স আইপি এড্রেস’, ‘ডেপলয়িং আইওটি : এ টেলকো প্রাসপেকটিভ’, ‘হান্ট ডাউন দ্যা ইভিল অফ ইওর ইনপ্রাসটেকচার’ শীর্ষক বিভিন্ন সেশন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

৫ থেকে ৮ মে রাউটিং এবং ভার্চুয়ালাইজেশন বিষয়ে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হবে এই সম্মেলনে।

এবারের আয়োজনের সহ-আয়োজক হিসাবে আছে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (আইএসপিএবি)। আয়োজনের সহযোগিতায় আছে আইসিটি ডিভিশন এবং বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আইসিটি বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল।

আয়োজন সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে এই ঠিকানায়

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

আরও পড়ুন