ভ্যাট পরিশোধে রবিকে সাত দিন, নইলে ব্যবস্থা

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সাত দিনের মধ্যে ভ্যাট পরিশোধ না করলে রবির ট্যারিফ অনুমোদন ও এনওসি বন্ধ করে দেবে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

অপারেটরটিকে এই সময়ের মধ্যে ১৮ কোটি ৯৩ লাখ ৫২ হাজার ৫২৯ টাকা ৫৮ পয়সা ভ্যাট দিতে বলা হয়েছে।  স্পেকট্রাম নিউট্রালিটি ফি এবং ফোরজি লাইসেন্স ফি’র ভ্যাট বাবদ এই অর্থ পায় এনবিআর।

রোববার বিটিআরসির সিনিয়র সহকারী পরিচালক (অর্থ), মো. হাসিবুল কবির স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে রবিকে জানানো হয়, সাত দিনের মধ্য রবি ওই টাকা পরিশোধে ব্যর্থ হলে বিটিআরসি তাদের সকল প্রকার ট্যারিফ অনুমোদন এবং নো অবজেকশন সার্টিফিকেট (এনওসি) বা অনাপত্তিপত্র প্রদান বন্ধ করবে। এছাড়াও এনবিআর এবং এলটিইউ-ভ্যাট দপ্তরকে অবহিত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেবে।

এর আগে পাওনা চেয়ে ১৯ এপ্রিল এনবিআর বিটিআরসির কাছে আবেদন করে। যার প্রেক্ষিতে বিটিআরসি রবিকে আগামী ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত সময় বেঁধে দেয় ভ্যাট পরিশোধের জন্য।

বিটিআরসির চিঠিতে বলা হয়,  এনবিআরের এলটিইউ-ভ্যাট শাখা রবি আজিয়াটা লিমিটেডের কাছ থেকে ফোরজি বা এলটিই লাইসেন্স অ্যাকুইজিশন ফি’র উপর মূসক বাবদ ৫০ লাখ এক হাজার টাকা এবং টেক-নিউট্রালিটির উপর মূসক বাবদ ১৮ কোটি ৪৩ লাখ ৫১ হাজার ৫২৯ টাকা ৫৮ পয়সা দাবি করে।

কিন্তু দুই মাস অতিবাহিত হওয়ার পরও রবি তা পরিশোধ করেনি বা করার কোনো উদ্যোগ নেয়নি। এটি অপারটরটির ফোরজির লাইসেন্স ও গাইড লাইনের শর্ত ভাঙার শামিল। তাই বিটিআরসি তাদের ২১২তম সভায় অপারেটরটির বিষয়ে এসব সিদ্ধন্ত নিয়েছে।

এর আগে ২৬ ফেব্রুয়ারি অন্য ক্ষেত্রের রাজস্ব ফাঁকির অভিযোগে এনবিআরের এলটিইউ-ভ্যাট দপ্তর রবির সব ব্যাংক হিসাব তিন দিনের জন্য জব্দ করেছিল।

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

আরও পড়ুন