রাইড শেয়ারিং প্ল্যাটফর্মের কারণে বাড়ছে যানজট

uber-techshohor

আনিকা জিনাত, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : নিউইয়র্কে যানবাহনের চলার গতি কমে গেছে, ম্যানহাটনেও তাই। বাণিজ্যিক শহরগুলোতেও সারাক্ষণই ট্রাফিক জ্যাম লেগে থাকে। গত পাঁচ বছরে দিনের বেলাতে যানবাহনের গতি ২০ শতাংশ কমেছে।

রাইড শেয়ারিং অ্যাপগুলো যাত্রীদের চলাচল আরও সহজ করে দিয়েছে বটে। কিন্তু এর কারণে রাস্তায় যানবাহনের চাপ বেড়েছে। উবার ও লিফটের মতো অ্যাপগুলোর জনপ্রিয়তা আরও বৃদ্ধি পাওয়ায় যানজট আরও তীব্র আকার ধারণ করেছে। এমন তথ্যই জানিয়েছেন, ট্রান্সপোর্ট এক্সপার্ট ব্রুস স্ক্যালার।

চার বছর ধরে চালানো এ জরিপ থেকে জানা যায়, ম্যানহাটনের রাইড শেয়ারিং অ্যাপভিত্তিক গাড়িগুলোর ভাড়া ৮১ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

বর্তমানে শুধু নিউইয়র্কেই এখন ৬৮ হাজার রাইড শেয়ারিং ড্রাইভার রয়েছেন। হলুদ ক্যাব ড্রাইভারদের চেয়ে তাদের সংখ্যা পাঁচ গুণ বেশি। এতে দেখা যায় ৪৫ শতাংশ সময় তারা ভাড়া পাওয়ার আশায় এমনিই এমনিই ঘুরতে থাকে। এতে ব্যস্ত রাস্তা স্থবির হয়ে পরে।

uber-techshohor

এ বিষয়ে পাবলিক ট্রান্সপোর্ট পলিসি বিশেষজ্ঞ জারেট ওয়াকার বলেছেন, বেশির ভাগ মানুষ এখন পাবলিক ট্রান্সপোর্ট ব্যবহার করাকে ঝামেলা পূর্ণ মনে করছে। তাই রাইড শেয়ারিং সার্ভিস ব্যবহার করার পরিমাণ বেড়েছে। এর অর্থ হলো বড় বড় বাস ট্রেন ছেড়ে যাত্রীরা উবারে চালিত ছোট ছোট গাড়ি ব্যবহার করছে। এতে রাস্তায় যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। এমন পরিস্থিতি চলমান থাকতে পারে না। তাই শীঘ্রই আমরা যানযট নিয়ন্ত্রণে আরও কঠোর নীতিমালা দেখতে পাবো।

তবে রাস্তায় অত্যধিক ভিড়ের জন্য রাইড শেয়ারিং প্ল্যাটফর্মগুলো শুধু নিজেদের ঘাড়ে দোষ নিতে নারাজ। উবারের হেড অব ট্রান্সপোর্ট পলিসি অ্যান্ড্রু সেলবার্গ জানিয়েছেন,অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি, রাস্তার নির্মাণ ও শহর কর্তৃপক্ষের যানজট নিয়ন্ত্রণের নীতিমালাও রাস্তায় অতিরিক্ত ভিড় বাড়ার অন্যতম কারণ। যাত্রীকে সময় মতো কোথাও পৌঁছে দেওয়া না গেলে সেটা আমাদের ব্যবসার জন্যও ভালো কিছু নয়।

তবে তার মানে এই নয় যে আমরা পাবলিক ট্রান্সপোর্টের বিকল্প হতে চাই।

অন্টারিওতে পাবলিক ট্রান্সপোর্ট ও রাইড শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম যৌথভাবে যাত্রী সেবা দিচ্ছে। ঘর থেকে বের হয়েই তারা উবার ব্যবহার করছেন। যেখানে পাবলিক ট্রান্সপোর্ট পাওয়া যাচ্ছে সেখানে নেমে যাচ্ছেন। এতে করে যাদের ব্যক্তিগত গাড়ি নেই তারা উপকার পাচ্ছেন।

বিবিসি অবলম্বনে

*

*

আরও পড়ুন