জাকারবার্গের দ্বিমুখী আচরণ কেন?

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ২০১১ সালে ডেইলি মেইলের এক ফটো সাংবাদিক নিক স্টার্ন ফেইসবুকের প্রধান কার্যালয়ের ভিতন যে গ্রাউন্ড রয়েছে সেখানে কঠোর পাহারার মধ্যেও জাকারবার্গের কয়েকটি ছবি তোলেন । পরে সেগুলো পোস্ট করেছিলেন।

সেই ছবিতে দেখা যায়, জাকারবার্গ তার কুকুর নিয়ে হেঁটে বেড়াচ্ছেন। তবে এমন ছবি তোলার জন্য তখন তাকে নানা ধরনের হয়রানির শিকার হতে হয়েছিল।

অথচ জাকারবার্গের ফেইসবুক অন্তত আট কোটি ৭০ লাখ ফেইসবুক ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁসের সঙ্গে জড়িত। এখন এসে জাকারবার্গ কেন সেটি নিয়ে কোনো জবাবদিহিতার কথা বলছে না? কেন এখন তার এমন দ্বিমুখী আচরণ?

আরও পড়ুন ঃ- রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে ফেইসবুককে ব্যবহার করা হয়েছে : জাকারবার্গ

সে সময় ছবি তোলার এমন ঘটনায় নিক স্টার্নকে প্রধান কার্যালয়ের ভিতরে নিয়ে যাওয়া হয় এবং তাকে বলা হয়, জাকারবার্গের একটা ব্যক্তিগত জীবন রয়েছে, যেটা খুব ‘গোপন এবং নিরাপদ’। তাই তাকে নিয়ে কোনো স্টোরি করা যাবে না। এটার কোনো অধিকার নেই নিক স্টার্নের।

অথচ সময়ের পরিবর্তনে সেই জাকারবার্গই শত শত কোটি গ্রাহকের তথ্য নিয়ে বেচে দিচ্ছেন অন্যের কাছে। তার কোনো জবাব দেবার প্রয়োজন বোধই করছেন না। এমন দ্বিমুখী আচরণ কেন তার? প্রশ্ন তুলেছেন নিক স্টার্ন।

বেশকিছু পুরস্কার প্রাপ্ত সাংবাদিক নিক স্টার্ন অবশ্য পালো আন্টোর ফেইসবুক সদর দপ্তারের গলফ গার্ডেনে যাবার আগে অনুমতিও নিয়েছিলেন। তবে তারপরও তাকে এমন হয়রানির শিকার হতে হয়েছে।

বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছেন, তার প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা আট কোটি ৭০ লাখ ব্যবহারকারীর তথ্য ফাঁস হয়েছে বলে জানান।

এর আগে জানা যায়, ২০১৬ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় অন্তত পাঁচ কোটি ফেইসবুক ব্যবহারকারীর তথ্য হাতিয়ে নেয় কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা নামে ব্রিটিশ রাজনৈতিক কনসালটেন্সি ফার্ম। যেটি তারা সেই নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে কাজে লাগায়।

ইমরান হোসেন মিলন

আরও পড়ুন ঃ- মার্কিন ভিসা পেতে ফেইসবুক, টুইটারের তথ্য লাগবে

ভবিষ্যৎ জানানো ফেইসবুক অ‍্যাপগুলো কি নিরাপদ?

মেয়েদের কটাক্ষ ও গোপন ভিডিওর হুমকিতে ফেইসবুকে ক্ষোভ

*

*

আরও পড়ুন