রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে ফেইসবুককে ব্যবহার করা হয়েছে : জাকারবার্গ

facebook-zakarbarg-techshohor
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ফেইসবুককে ব্যবহার করে মিয়ানমারের মুসলিম রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে ঘৃণা ছড়ানোর মাত্রা ছাড়িয়েছে বলে আবারও অভিযোগ করা হয়েছে।

তবে এবার সেই অভিযোগ স্বীকার করেছেন মাধ্যমটির প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ। সোমবার জাকারবার্গও বলেছেন, মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে ফেইসবুকের মাধ্যমে যে ঘৃণা ছড়ানো হচ্ছে তা সত্য। তবে এটি নিয়ন্ত্রণে আমাদের বেশকিছু লোক কাজ করছেন।

জাকারবার্গ বলেন, রোহিঙ্গা-বিরোধী প্রচারণা চালাতে এবং ‘প্রকৃত সংকট উসকে দিতে’ ফেইসবুককে ব্যবহার করার বিষয়টি তারা জানতে পেরেছেন। তবে বৌদ্ধ এবং মুসলিম জনগোষ্ঠীর মধ্যে এমন সংঘাত সৃষ্টির জন্য ফেইসবুক কতটা দায়ী তা খুঁজে বের করার কাজ শুরু হয়েছে।

গত বছরের আগস্টে দেশটিতে সেনাবাহিনী কর্তৃক রোহিঙ্গাদের উপর জাতিগত নিধন শুরু হলে অন্তত সাত লাখ মানুষ বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। তারপর থেকে বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন, সংস্থা এবং স্বয়ং জাতিসংঘ ফেইসবুকের বিরুদ্ধে ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগ আনে।

তবে বার বার ফেইসবুকের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ ওঠার পর তাদের ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করার পরও তা করা হয়নি বলে অনেক বিশ্লেষক ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

এমনকি অনেকেই ফেইসবুকের বিরুদ্ধে দেশটিতে বিশৃঙ্খলা তৈরির জন্য এমন ঘৃণা ছড়ানোকে মূল কারণ হিসেবে দায়ী করে মাধ্যমটিকে বিচারের আওতায় আনার কথাও বলেছেন।

আরও পড়ুন ঃ- মার্কিন ভিসা পেতে ফেইসবুক, টুইটারের তথ্য লাগবে

ডিজিটাল গবেষক এবং বিশ্লেষক হিসেবে পরিচিত রেমন্ড সেরতো ব্যাখ্যা করেছেন, তার চোখে অন্তত ১৫ হাজার পোস্ট পড়েছে যেগুলো রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে করা হয়েছে। সেগুলো খুবই ভয়ংকর। এগুলো করা হয়েছে জাতীয়তাবাদী একটি গ্রুপ হিসেবে পরিচিত মা বা থা থেকে। আর এই পোস্টগুলো ২০১৬ সালের জুন থেকে ২০১৭ সালের ২৪-২৫ আগস্ট পর্যন্ত করা হয়েছে।

সেরতো দেখান, মিয়ানমারে অন্তত ৫৫ হাজার রোহিঙ্গা বিরোধী গ্রুপ সক্রিয় রয়েছে যারা ঘৃণা ছড়ানোর কাজটি দীর্ঘদিন থেকেই করে আসছে।

২০১৪ সালে মিয়ানমারে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ছিল মাত্র এক শতাংশ। আর ২০১৬ সালে দেশটিতে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সঙ্গে ফেইসবুকের ব্যবহারকারী বেড়েছে বহুগুণ। এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে মিয়ানমারও এখন ফেইসবুকের ব্যবহারকারীর দিক থেকে এগিয়ে। এখন দেশটিতে এক কোটি ৪০ লাখ ফেইসবুক ব্যবহারকারী রয়েছে।

ফেইসবুকের বিরুদ্ধে এমন গুরুতর অভিযোগ উঠলেও অনেকটাই নির্বিকার মাধ্যমটি। মাধ্যমটির এক মুখপাত্র বলছেন, তারা মিয়ানমারের এমন ঘৃণা ছড়ানোর বিষয়টি নিয়ে জোরালো ভাবে কাজ করছেন।

গার্ডিয়ান অবলম্বনে ইমরান হোসেন মিলন

আরও পড়ুন ঃ-  আপনার কী কী তথ্য নিচ্ছে ফেইসবুক?

ফেইসবুক জানাবে কে ধনী কে গরিব

*

*

আরও পড়ুন