ফেইসবুক ভারি শোকে, ভুল নিয়েও বির্তক

plane-techshohor

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : কাঠমান্ডুর বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ৫০ জন যাত্রীর মৃত্যু শোক এখন পুরো দেশ কাটিয়ে উঠতে পারেনি। ফেইসবুকে নিহত বাংলাদেশি যাত্রীদের ছবি ও পরিচয় ছড়িয়ে পড়েছে। সেসব নিয়ে চলছে মাতম।

কার দোষে বিমানটি বিধ্বস্ত হলো সেই বিকর্ত নিয়েও সরগরম ফেইসবুক। অনেকেই দাবি করেছেন, বিমানটি পুরোনো ছিলো। এতো ছোট বিমান আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পরিচালনার জন্য উপযুক্ত নয়।

কাঠমান্ডু বিমানবন্দরের এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলের (এটিসি) সঙ্গে পাইলটের কথোপকথনের শেষ কয়েক মিনিটের একটি অডিও বার্তা ইউটিউবে ছড়িয়ে পড়েছে। এই অডিও বার্তা অনেকেই ফেইসবুকে শেয়ার করেছেন।

Techshohor Youtube

plane-crush-techshohor

বিমানবন্দরের রানওয়ের দক্ষিণ আর উত্তর দিকের সংকেত নিয়ে ভুল বোঝাবোঝির প্রমাণ মিলেছে অডিও বার্তাটিতে।

তাই বিমানটি এটিসির ভুল সংকেত নাকি কারিগরি ত্রুটির কারণে বিধ্বস্ত হয়েছে তা নিয়ে অনেকেই দ্বিধান্বিত।

ফেইসবুকে ফয়সাল আখতার ইথার নামে একজন লিখেছেন, বিমান দুর্ঘটনার মূল কারণ বের করা একটি সময় সাপেক্ষ এবং অনেক সূক্ষ্ম পর্যালোচনার ব্যাপার। কারো পক্ষেই টাওয়ার আর এয়ারক্র্যাফট এর কনভারসেশন শুনে মূল কারণ বুঝে ফেলা বা ক্র্যাশ এর ছবি দেখেই কি ঘটেছিল বুঝে ফেলা অসম্ভব ব্যাপার।

আমার পরামর্শ থাকবে সব কিছু পড়া মাত্রই কনক্লুশন এ পৌঁছাবেন না। বিমান দুর্ঘটনা একটা চেইন অফ ইভেন্টের কারণে ঘটে। এই ইভেন্টগুলো আমরা আস্তে আস্তে জানতে পারবো সময় মতো। এখন গেসিং গেইম খেলার সময় না। শোকার্ত পরিবারগুলোর শোক অনুভব করার সময়। মন খারাপের সময়।

রেজওয়ানুল আলম নামে একজন অডিও বার্তাটি শেয়ার করে লিখেছেন, ভুল যোগাযোগ বার্তায় বিমান দুর্ঘটনা এবং মর্মান্তিক প্রাণহানি।

মীর্জা রাব্বী নামে আরেক ব্যবহারকারী লিখেছেন, রং ডাইরেকশন।

আনীকা জিনাত

*

*

আরও পড়ুন