টেক জায়ান্টদের নাম ব্যবহার করে জালিয়াতি

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : টুইটারের ভুয়া অ্যাকাউন্ট নিয়ে বিতর্ক যেন থামছেই না। এবার ভুয়া অ্যাকাউন্ট ব্যবহারকারীদের শিকার হচ্ছেন বিল গেটস, ওয়ারেন বাফেটের মতো বিলিয়নিয়াররা।

ভুয়া অ্যাকাউন্ট রোধে সোশ্যাল নেটওয়ার্কটির নীরবতাকে কাজে লাগিয়ে এক রাতেই হাজার হাজার ডলার হাতিয়ে নিয়েছে ডিজিটাল জালিয়াত চক্র। কয়েকজন বিলিয়নিয়ারের নামে ভুয়া অ্যাকাউন্ট বানিয়েই সেখান থেকে পাঁচ হাজার ডলার (চার লাখ টাকার বেশি) কামিয়েছে জালিয়াতরা।

সূক্ষ্ম কিছু পরিবর্তন এনে এসব বিলিয়নিয়ারের নামে ভুয়া টুইটার অ্যাকাউন্ট বানিয়ে সেখান থেকে ক্রিপ্টোকারেন্সিতে টাকা পাঠানোর ফাঁদ পাতা হয়। বেখেয়ালে সেই ফাঁদে পা দিয়ে অনেকেই পকেট থেকে টাকা খসিয়েছেন।

সেলিব্রেটি টেক জায়ান্টদের ভুয়া অ্যাকাউন্ট থেকে লেখা হয়, আপনারা সকলেই জানেন, আমি এখন ক্রিপ্টো কারেন্সির লেনদেন করছি। তাই প্রথম ১০০ ব্যক্তিকে ১০০ ইথেরিয়াম দেবো। আপনাদেরকে শুধু নিচের দেওয়া ঠিকানায় ৫ ইথেরিয়াম জমা করতে হবে। এটাই আপনার কাছে ১০০ ডলার হয়ে ফিরে আসবে। এরপরে হ্যাশট্যাগ দিয়ে বিফাস্ট ও ওয়ারেনগিভস লিখে একটি নম্বর দেওয়া হয়।

একজন বিলিয়নিয়ারের অ্যাকাউন্টে এমন টুইট দেখে অন্তত এক হাজার ব্যবহারকারী ৫ ইথেরিয়াম পাঠিয়েছেন বলে জানা গেছে। ক্রিপ্টোকারেন্সি অ্যাকাউন্টের গোপনীয়তা রক্ষা করায় অ্যাকাউন্টের মালিককেও শনাক্ত করা যাচ্ছে না।

এতে টেক বিশেষজ্ঞরা এমন জালিয়াত চক্র থেকে সতর্ক থাকতে পরামর্শ দিয়েছেন। টুইটার এর আগে এমন কয়েকটি অ্যাকাউন্ট সরালেও এখনও কয়েকটি অ্যাকাউন্ট সচল আছে।

বিগত ২৭ জানুয়ারি নিউ ইয়র্ক টাইমসের অনুসন্ধানী প্রতিবেদন ‘দ্য ফলোয়ার ফ্যাক্টরি’তে দেখানো হয় কিভাবে ইউজার নেমকে একটু পরিবর্তন করে টুইটার অ্যাকাউন্টকে নকল করা হয়। যেমন ছোট হাতের এলো এর জায়গায় বড় হাতের আই দেওয়া হয়। এবার একই পদ্ধতিতে সেলিব্রেটিদের টুইটার অ্যাকাউন্টের নকল বানানো হচ্ছে।

সেলিব্রেটিদের টুইটার অ্যাকাউন্টকে নকল করা হয়েছে @WarrenBuffert, @Billgavtes এবং @elonnmuusk লিখে। ইউজারনেমগুলো দেখতে অফিসিয়াল পাতার মতো মনে হলেও এগুলো আসলে ভুয়া।  এসব ইউজারনেমের দিকে ভালো করে খেয়াল করলেই কেবল এক বা দুই বর্ণের পরিবর্তন চোখে পড়বে। যেমন বাফেটের জায়গায় বাফার্ট, গেটসের বদলে গাভেটস ইত্যাদি।

গ্যাজেটস নাউ অবলম্বনে এম. রহমান

*

*

আরও পড়ুন