Techno Header Top and Before feature image

ডিপফেইক পর্নো ভিডিও প্রচারে রেডিটের না

gal-techshohor

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : কারও অনুমতি ছাড়া সুপার কম্পোজ করে ভুয়া পর্ন ছবি ও ভিডিও প্রচার নিষিদ্ধ করেছে প্রযুক্তি বিষয়ক ফোরাম ওয়েবসাইট রেডিট।

সাইটটি ডিপফেইক নামে বানানো ভুয়া ভিডিও প্রচারের জন্য বেশ জনপ্রিয়তা পায়। তবে এখন থেকে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স সফটওয়্যারের মাধ্যমে পর্ণ ছবিতে তারকাদের মুখমন্ডল কেটে বসানো হলে তা সরিয়ে ফেলার ঘোষণা দিয়েছে ওয়েবসাইটটি।

এর আগে টুইটার, জিএফওয়াইক্যাট ও গিটহাব ডিপফেইক ভিডিও আপলোডের ওপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করে।

ডিপফেইক ভিডিও তৈরি করতে বিভিন্ন অ্যাঙ্গেল থেকে নেওয়া কমপক্ষে পাঁচশ’ ছবির প্রয়োজন হতো। এরপর অ্যালগোরিদমের মাধ্যমে সুপার ইম্পোজ করা ভিডিও ক্লিপ বানানো হতো।

deepfake-techshohor

গত ডিসেম্বর ওয়ান্ডার উইমেনের অভিনেত্রী গ্যাল গ্যাডটের ভুয়া ভিডিও মাদারবোর্ডে প্রকাশ করা হলে  বিষয়টি নিয়ে আলোচনা শুরু হয়। কিন্তু জানুয়ারিতে ফেইকঅ্যাপ নামে একটি সফটওয়্যার টুল উন্মোচন করার পর থেকেই ভুয়া ভিডিও বানানোর প্রক্রিয়াটি খুব সহজ হয়ে যায়।

সুপার ইম্পোজ করা সব ভিডিও বা ছবিই পর্ণোগ্রাফি বিষয়ক নয়। যেমন এর আগে এতে ডোনাল্ড ট্রাম্প বা তার স্ত্রীর ছবি কেটে হলিউড ছবির এক দৃশ্যে বসিয়ে দেওয়া হয়। তবে এসব ডিপফেইক ভিডিওর শিকার মূলত হলিউডের নারী সংঙ্গীত শিল্পী  ও অভিনেত্রীরা।

দ্য ডিপফেইক সাবরেডিট ফোরাম পেইজটিতে ৯১ হাজার সাবস্ক্রাইবার থাকলেও রেডিট তা বন্ধ দিচ্ছে। এর পাশাপাশি সাত বছর ধরে চালানো সেলেবফেইক নামে আরেকটি ফোরামও বন্ধ করেছে রেডিট।

বিবিসি অবলম্বনে আনিকা জীনাত

*

*

আরও পড়ুন