Maintance

মনে পড়বে যাদের কথা

প্রকাশঃ ৪:২১ অপরাহ্ন, ডিসেম্বর ৩০, ২০১৭ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ৪:২৩ অপরাহ্ন, ডিসেম্বর ৩০, ২০১৭

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সময়ের নির্ধারিত পরিক্রমায় নিজের বিদায়ের সঙ্গে ২০১৭ সালটি অনেকের অনির্ধারিত বিদায়ের সাক্ষী হয়ে থাকবে।

বছরটির নানা ঘটনাবলির মধ্যে খুঁজে দেখা যাক সেইসব হারিয়ে যাওয়াদের।

কেইমু ডটকম :

বছরের ফেব্রুয়ারিতে ই-কমার্স প্লাটফর্ম কেইমু ডটকম ডটবিডি বন্ধ হয় যায়। কোম্পানিটি দারাজ ডটকম ডটবিডির সঙ্গে একীভূত হয়ে যায়। কেইমু দেশের ই-কমার্স খাতে সুপরিচিত কোম্পানি ছিল ।

ভিজার্টি :

ভার্চুয়াল স্টুডিও, ব্রডকাস্ট মিডিয়া ও অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার তৈরিতে বিশ্বের শীর্ষ কোম্পানি ভিজার্টি বাংলাদেশ হতে রিসার্চ সেন্টার গুটিয়ে নেয়ার ঘোষণা দেয় মার্চে।

কোম্পানিটির সবচেয়ে বড় রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট সেন্টার (আরএন্ডডি) ছিল বাংলাদেশে। আগস্টে একেবারে বন্ধ হওয়ার আগে কোম্পানিটিতে প্রায় অর্ধশত কর্মী ছিল। যাদের অধিকাংশই উচ্চ পর্যায়ের দক্ষ ও পেশাদার কম্পিউটার ও সফটওয়্যার প্রকৌশলী।

এখানেই ডটকম : 

মে মাসে বন্ধ হয়ে যায় দেশের ক্ল্যাসিফাইড ই-কমার্স সাইট এখানেই ডটকম।

২০০৬ সালে দেশ যাত্রা করা সেলবাজার ডটকম ই-কমার্স সাইটকে কিনে নিয়ে ২০১৪ সালের ২৭ মে আনুষ্ঠানিক যাত্রা করে এখানেই ডটকম। ১৭ মে ২০১৭ থেকে এখানেই ডটকম ওয়েবসাইট এবং এখানেই ডটকমের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ বন্ধ করে দেয়া হয়।

জোভাগো : 

অক্টোবরে বাংলাদেশ হতে ব্যবসা গোটানোর পথ ধরে অনলাইনে হোটেল বুকিংয়ের মার্কেটপ্লেস জোভাগো ।

দেশে রকেট ইন্টারনেটের সপ্তম ভেঞ্চার হিসেবে ২০১৫ সালের ৩০ নভেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে জোভাগো কার্যক্রম শুরু করেছিল। আর দু’বছর না হতেই তাদের চলে যাওয়া। চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যেই  একেবারেই গুটিয়ে নেয়ার কথা কোম্পানিটির।

অ্যাকসেঞ্চার : 

নভেম্বরে বন্ধ হয়ে যায় মার্কিন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অ্যাকসেঞ্চার। জুলাইয়ে কোম্পানিটি বাংলাদেশ কার্যালয়ের ৫৫৬ কর্মীকে একসঙ্গে ছাঁটায়ের নোটিশ দেয়।  ২০১৩ সালে গ্রামীণফোন আইটি (জিপিআইটি) এর ৫১ ভাগ মালিকানা কিনে বাংলাদেশের বাজারে প্রবেশ করে অ্যাকসেঞ্চার।

আল-আমীন দেওয়ান

*

*

Related posts/