আইফোনকে গতিময় রাখার উপায়

তুসিন আহমেদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সুন্দর ডিজাইন এবং গতির কারণে অ্যাপলের আইফোনের জনপ্রিয়তা অনেক। তবে শখ করে ফোনটি কেনার পর সঠিকভাবে ব্যবহার না করতে পারলে অনেক সময় এটি নষ্ট হয়ে য়ায় কিংবা ধীরগতির হয়ে পড়ে। তবে কিছু বিষয় খেয়াল রাখলে এ পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে না।

আইফোনকে গতিময় রাখতে করণীয় বিষয়গুলো নিয়ে এ টিউটোরিয়াল।

iphone_techshohor

মোবাইল ফোন অপারেটরদের কাছ থেকে প্রতিনিয়ত নানা মেসেজ আসে। এ ছাড়া অনেক ভিডিও ও ছবির মেসেজের ফলে মেমোরি পরিপূর্ণ হয়ে যায়। এতে আইফোনটির গতি কমে যেতে পারে। এ জন্য অপ্রয়োজনীয় মেসেজ মুছে ফেলা প্রয়োজন।

এ জন্য টেক্সট মেসেজ কনভারসেশনে গিয়ে একটি টেক্সটের নিচে যাওয়ার স্ক্রল বাটনটি চেপে ধরে রাখুন। এদে একটি পেইজ আসবে। সেখান থেকে বেছে বেছে মেসেজ মুছে ফেলতে পারবেন, আবার একযোগে সবগুলো মুছে ফেলতে পারবেন।

আইফোনের সাফারি ব্রাউজারটি গতি কমে যেতে পারে হঠাৎ করে। এ জন্য কিছুদিন পর পর ব্রাউজারের কেস ক্লিয়ার করা উচিত। ব্রাউজার সেটিংসে গিয়ে সেখানে থেকে হিস্ট্রি এবং ক্লিয়ার কুকিজ অ্যান্ড ডাটাগুলো মুছে দিতে হবে।

আইফোনের আইওএস৭ এর জন্য অটো অ্যাপস আপডেট ফিচার রয়েছে। এটি ব্যাটারির শক্তি খেয়ে ফেলবে দ্রুত এবং অটোমেটিক বিভিন্ন ধরণের অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড হতে থাকবে। এ থেকে বাঁচতে সেটিংসে যান, নীচের দিকে গিয়ে ‘আইটিউনস অ্যান্ড অ্যাপ স্টোর’-এ ক্লিক করুন। যে পেইজটি আসবে সেখানে বামপাশের বাটনগুলো ব্যবহার করে অটো ডাউনলোড বন্ধ করে দিন।

আইফোন ধীর গতি হওয়ার আরেকটি কারণ হতে পারে অপ্রয়োজনীয় অ্যাপসের জায়গা দখল করে রাখা। তাই ফোনে থাকা অপ্রয়োজনীয় সকল অ্যাপসগুলো আনইন্সটল করে ফেলা উচিত। এ জন্য সেটিংয়ে গিয়ে সেখান থেকে জেনারেলে যেতে হবে। এ অপশনের নিচের দিকে ইউজেসে ক্লিক করতে হবে। সব গেমস বা অ্যাপসের তালিকা আসবে। অপ্রয়োজনীয় অ্যাপসগুলো এখান থেকে রিমুভ করতে হবে।

Related posts

*

*

Top