যেভাবে ব্যবহার করবেন টর ব্রাউজার

টেক শহর  ডেস্ক : অনেক সময়ই নিজের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে পরিচয় গোপন করে ইন্টারনেট ব্রাউজ করার দরকার হতে পারে। এছাড়াও অনেক সময় বিভিন্ন ওয়েব সাইট যেমন ফেসবুক, ইউটিউব ইত্যাদি অফিসে বা নির্দিষ্ট স্থানে ব্লক করা থাকে। এসব সমস্যা থেকে মুক্তি দিবে টর ব্রাউজার (Tor Browser) নামের সম্পূর্ণ ফ্রি এবং শক্তিশালী ওয়েব ব্রাউজার।

টর ব্রাউজারের বৈশিষ্ঠ্য:

  • আইপি হাইড করে অর্থাৎ সম্পূর্ণ অজ্ঞাত পরিচয়ে ব্রাউজিং করা যায়।
  • ব্লক করা যে কোন ওয়েব সাইট ব্রাউজ করার সুবিধা।
  • আইপি হাইডের কারণে স্পীডের কোন তারতম্য ঘটে না।
  • উইন্ডোজ, ম্যাক এবং লিনাক্স সংস্করণ রয়েছে।
  • ইন্সটল করার কোন ঝামেলা নেই।
  • সম্পূর্ণ ফ্রি সফটওয়্যার।
  • ইংরেজি ছাড়াও আরো অনেক ভাষা সাপোর্ট করে।

উইন্ডোজে ব্যবহার করতে হলে :
এই ব্রাউজারটি ব্যবহার করা খুবই সহজ। হ্যাকাররা ছাড়াও সাধারণ ব্যবহারকারীরাও এটা ব্যবহার করতে পারে অনায়াসেই।

ব্রাউজার বান্ডেলটি ডাউনলোড করে আপনি যেখানে এক্সাক্ট করতে চান সেটা দেখিয়ে দিতে হবে। সেটা  পোর্টেবল ডাইভও হতে পারে।

Screenshot of<br /><br /> 	  extraction process
এখন দেখানো লোকেশনে টর ব্রাউজার নামের একটি ফোল্ডার তৈরি হবে। ফোল্ডারটিতে Start Tor Browser নামের একটি আইকন থাকবে। সেখানে ডাবল ক্লিক করলে নিচের মত একটা উইন্ডো ওপেন হবে।

Screenshot of<br /><br /> 	  bundle startup

যখন এটি পুরোপুরি লোড হবে তখন স্বয়ংক্রিয়ভাবে নতুন একটি ব্রাউজার ওপেন হবে। তবে টর ব্রাউজারের জন্য অন্যান্য ব্রাউজারে কোনো প্রভাব ফেলবে না অর্থাৎ আগের মতই কাজ করা যাবে। ব্রাউজিং শেষ করার পরে ব্রাউজারটি বন্ধ করে দিতে হবে। স্বয়ংক্রিয়ভাবে সকল কুকি, হিস্টিরি মুছে যাবে টর ব্রাউজারের। অর্থাৎ ব্যবহারকারী পুরোপুরি নিরাপদ থাকবেন।

Screenshot of<br /><br /> 	  Firefox

এভাবেই টর ব্রাউজার ব্যবহার করে নিরাপদ থাকা ও ব্লকড ওয়েবসাইট ব্যবহার করা যাবে।

ডাউনলোডঃ
টর ব্রাউজার বান্ডলটি মাত্র ২৬ মেগাবাইটের। এই লিংক থেকে সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করা যাবে। বিস্তারিত জানা যাবে এই সফটওয়্যারটির ওয়েবসাইট থেকে।

– হাসান জুবায়ের, টেক শহর প্রতিবেদক

Related posts

টি মতামত

*

*

Top