জিমেইলের অসাধারন ৫ ফিচার

তুসিন আহমেদ টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সার্চ জায়ান্ট গুগলের জিমেইল আইডিকে অনেকে ওয়ান ইন ফোর বলে অভিহিত করেন। কারণ এটি দিয়ে একইসঙ্গে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গুগল প্লাস এবং ভিডিও দেখার সাইট ইউটিউব ব্যবহার করা যায়। এ ছাড়া ব্যবহার করা যায় গুগল ড্রাইভার। এসব কারণে এ সেবা ব্যবহারকারীর সংখ্যা বাড়ছে।

বহুবিধ ফিচারের কারণে এটির জনপ্রিয়তা বাড়ছে। ই-মেইল আদান প্রদান করেন এমন খুব কম ব্যক্তি রয়েছেন, যাদের জিমেইল আইডি নেই। এ আইডি দিয়ে একাধারে মেইল চালাচালির কাজ ছাড়াও আরও অনেক কিছু করার সুযোগ রয়েছে। কষ্ট করে জেনে নিতে হবে এসব লুকানো ফিচারগুলো।

জিমেইলের অজানা কিন্তু আকর্ষণীয় এসব ফিচারের কথা জানাতে এ প্রতিবেদন। এক নজর দেখলে বোঝা যাবে এগুলো কতো কাজের।

gmail techshohor

গুগল ড্রাইভে সরাসরি মিউজিক শোনা
ক্লাউড সেবার জন্য গুগল ড্রাইভ বেশ জনপ্রিয়। এতে ডকুমেন্ট, ফটো, ভিডিও এবং অন্যান্য ফাইলগুলো অনলাইনে স্টোর করে রাখা যায়। আর অনলাইনে মিউজিক শোনার জন্য স্ট্রিমিংয়ের ব্যবস্থাও রয়েছে। এতে করে গুগল ড্রাইভে রাখা কোনো অডিও গান ডাউনলোড না করে শোনা যাবে। অসাধারণ  ফিচারটি উপভোগ  করা যাবে গুগলের জি-মেইল আইডি ব্যবহার করে।

gmail feature_techshohor

এজন্য প্রথমে এখানে (http://www.drivetunes.org) যেতে হবে। এরপর জিমেইল আইডি দিয়ে লগইন করতে হবে। তাহলে গুগল ড্রাইভে রাখা মিউজিকগুলোর লিস্ট দেখা যাবে। সেখান থেকে যে কোনো গান ডাউনলোড না করে সরাসরি অনলাইনে শোনা যাবে।

নিজের জন্য ম্যাপ তৈরি
ধরুন আপনি নতুন কোনো স্থানে বেড়াতে যাবেন কিংবা আপনার বন্ধু নতুন বাসা নিয়েছে। এসব এলাকা সম্পর্কে আপনার ধারনা নেই। সে ক্ষেত্রে গুগল ম্যাপ সহায়ক হিসাবে বেশ কার্যকরী। নতুন এলাকা চিনিয়ে দিতে বেশ কাজে দেবে। ম্যাপ দেখে আপনি চলে যেতে পারবেন নির্দিষ্ট ঠিকানায়।

gmail feature_techshohor

এ জন্য নিজের ম্যাপ বানিয়ে নিতে পারবেন সহজে। চাইলে ম্যাপে নিজের স্থানটি যুক্ত করে নেওয়া যায় খুব সহজে। তবে অবশ্যই প্রয়োজন হবে জিমেইল আইডির।

প্রথমে গুগল ম্যাপে গিয়ে জিমেইল আইডি দিয়ে লগইন হতে হবে। ‘My places’ এ ক্লিক করতে হবে। এরপর ‘Create Map’এ ক্লিক করলে নতুন একটি পেইজ লোড হবে। যেখানে থেকে ‘Create a new Map’ এ ক্লিক করতে হবে।

gmail feature_techshohor

এরপর বিভিন্ন ইন্টারফেস রয়েছে- সেগুলো ব্যবহার করে নিজের পছন্দমত স্থান যুক্ত করা যাবে। এতে রাস্তা, পার্ক, স্থাপনা, ঘরবাড়ি ইত্যাদি যুক্ত করা যাবে।

প্রিন্ট করুন যে কোনো স্থান থেকে
বর্তমান যুগ হলো প্রযুক্তির। প্রযুক্তি সব কিছুকে সহজ থেকে সহজতর করছে। এখন থেকে জিমেইল আইডি এবং ক্রোম ব্রাউজার ব্যবহার করে বিশ্বের যে কোনো স্থান থেকে বাসায়/অফিসে ব্যবহৃত পিন্টারটি দিয়ে প্রিন্ট করা যাবে। এটি সম্ভব করেছে গুগল। এ জন্য প্রথমে বাসার পিন্টারটি অন রাখতে হবে।

gmail feature_techshohor

এরপর ক্রোম ব্রাউজারের ‘Settings’  এ যেতে হবে। সেখানে ‘advanced settings’ ক্লিক করে “Google Cloud Print’ অপশনে গিয়ে লগইন করতে হবে জিমেইল আইডি দিয়ে। এরপর পিন্টারটি যুক্ত করে ‘Add Printers’ করতে হবে। তাহলে যুক্ত হয়ে যাবে পিন্টারটি।

কন্টাক্ট নম্বর ব্যাকআপ
অনেক সময় মোবাইল ফোন পরিবর্তন কিংবা চুরি বা হারিয়ে গেলে মাথায় হাত দিয়ে বসে থাকতে হয় ফোন নম্বরের জন্য। ফোন হারানোর চেয়ে নম্বরগুলোর জন্য হাপিত্যেশ থাকে সবচেয়ে বেশি। এ সমস্যারও সমাধান দিতে পারে আপনার জিমেইল আইডি।

জিমেইল আইডিটি ব্যবহার করে অনলাইনে ব্যাকআপ রাখা যাবে ফোনের কন্টাক্ট নম্বরগুলো।

gmail feature_techshohor

এ জন্য প্রথমে জিমেইলে লগইন করতে হবে। এরপর ইনবক্সের ওপরে ‘Gmail’ অপশনে ক্লিক করলে তিনটি অপশন আসবে। সেখান থেকে ‘contacts’ এ ক্লিক করতে হবে। এরপর ‘More’ থেকে ‘import’ এ ক্লিক করে “CSV অথবা vCard’ ফরম্যাটে কন্টাক্ট নম্বরগুলো কম্পিউটারে রাখা ফাইলটি সিলেক্ট করে দিতে হবে। তাহলে নম্বরগুলো ব্যাকআপ হয়ে যাবে।

gmail feature_techshohor

চাইলে যে কোনো সময় জিমেইল আইডি ব্যবহার করে অ্যান্ড্রয়েডচালিত স্মার্টফোনের মাধ্যমে নম্বরগুলো ব্যাকআপ মোবাইলে নেওয়া যাবে। অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের জন্য জিমেইল আইডির সাহায্যে খুব সহজে মোবাইল ফোন নম্বর সিনক্রোনাস করার ফিচারও রয়েছে।

জিমেইলে ফোন নম্বরগুলো ব্যাকআপ রাখার পর ফোন হারিয়ে গেলেও নম্বর থাকবে সুরক্ষিত। হারিয়ে যাবে না কোনো নম্বর। পরে জিমেইলে লগইন করে ফিরে পাওয়া যাবে নম্বরগুলো।

নিজের লাইভ ডিভিও চ্যানেল তৈরি
ইউটিউব, বিশ্বে ভিডিও শেয়ারিংয়ের ক্ষেত্রে এক নম্বার সাইট। এবার এ সাইটের মাধ্যমে লাইভ ব্রডকাষ্ট করে আপনি সরাসরি প্রচার করতে পারবেন যে কোনো ভিডিও কন্টেন্ট। এ ক্ষেত্রে আপনার যা লাগবে তা হল একটি জিমেইল আইডি এবং ওয়েবক্যাম ও মাইক্রোফোন।

gmail feature_techshohor

এ জন্য প্রথমে ইউটিউবে গিয়ে জিমেইল আইডি দিয়ে লগইন করতে হবে। এরপর ওপরের দিকে ডান পাশে একাউন্ট নামের ওপর ক্লিক করে ‘My  Channels to Create one’ ক্লিক করতে হবে। এতে করে নিজের চ্যানেল তৈরি হয়ে যাবে।

এরপর পেইজের ওপরের দিকের ‘Upload’ বাটনে  ক্লিক করতে হবে। এখন ‘Record’ বাটন থেকে ‘Webcam Capture’ ক্লিক করতে হবে। ভিডিও রের্কড হলে তা পাবলিশ করে দিতে হবে। এভাবে নিজের তৈরি ভিডিও সরাসরি পাবলিশ করা যাবে।

Related posts

*

*

Top