সহজে ইউটিউব ব্যবহারের ১০ কৌশল

তুসিন আহমেদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ভিডিও দেখার ওয়েবসাইট হিসাবে ইউটিউব এখন সবচেয়ে জনপ্রিয়। সামাজিক এ নেটওয়ার্ক ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রতিনিয়ত বাড়ছে। তেমনি এতে যোগ হচ্ছে নতুন সব ফিচার। ইউটিউবের মাধ্যমে ভিডিও দেখার পাশাপাশি নিজেদের তৈরি ভিডিও শেয়ার করাও যায়। এ কারণে বিভিন্ন পেশা ও শ্রেণীর মানুষের এ নেটওয়ার্কের প্রতি নির্ভরতাও বাড়ছে। 

নতুন ও পুরনো ব্যবহারকারীদের কথা বিবেচনা করে ইউটিউবের কিছু ফিচার সহজে ব্যবহারের কিছু কৌশল তুলে ধরতে এ প্রতিবেদন।

YouTube Comments_techshohor

কাস্টমাইজড সার্চিং

আপনি যদি সার্চ রেজাল্ট অনুসন্ধান করতে চান, তাহলে নম্বরের কোড ব্যবহার করতে পারেন। আর যদি হাই ডেফিনিশন (এইচডি) কোনো ভিডিও দেখতে চান তবে কাস্টমাইজড সার্চ বক্সে এইচডি নির্বাচন করুন। এ ছাড়া আপনি চাইলে বিভিন্ন অপশনও নির্বাচন করে ছোট ও বড় ভিডিও খুঁজতে পারেন। এভাবে অনুসন্ধান করতে পারেন থ্রিডি ভিডিও। এ ছাড়া ২০ মিনিটের চেয়ে লম্বা ভিডিও পেতে লিখুন লং। সার্চ বক্সে শর্ট লিখলে সর্বোচ্চ চার মিনিটের ভিডিওর তালিকা দেখাবে।

রিপিট ভিডিও দেখা
আপনি যদি ইউটিউবের কোনো ভিডিও বারবার দেখতে চান তবে সেটিকে রাখুন ইউটিউব রিপিটারে। এ জন্য ভিডিওটি সিলেক্ট করার পর অ্যাড্রেস বারে ইউটিউব লেখার পর রিপিটার শব্দটি যোগ করতে হবে। অর্থাৎ ইউটিউব অ্যাড্রেস তখন হবে অনেকটা এ ধরনের-http://www.youtuberepeater.com/watch?

এমবেড  ভিডিও

ওয়েবসাইটে ইউটিউিব ভিডিও আপলোড করা হচ্ছে এখন হরহামেশা। তখন যে ভিডিওটি আপলোড করতে হবে সেটিতে গিয়ে শেয়ার বাটনে প্রেস করতে হবে। এবার এমবেডে গিয়ে  ভিডিওটি দেখার উইন্ডোর আকার ছোট বড় করা যাবে। নিচের বক্স দেখলে সব পরিষ্কার হয়ে যাবে।

youtube_embed_techshohor

কি বোর্ডের সাহায্য পজ দেওয়া
ইউটিউবে ভিডিও দেখার সময় ভিডিওটি হঠাৎ করে থামানোর প্রয়োজন হয়। কিবোর্ডের স্পেস বাটন ব্যবহার করে ভিডিও পজ করা যায়।। মাউসের চেয়ে কিবোর্ডের মাধ্যমে সহজে এ কাজটি করা যায়। পুনরায় ভিডিওটি চালু করতে কিবোর্ডের স্পেস বাটন প্রেস করতে হবে। তাহলে ভিডিওটি আবার চলতে শুরু করবে।

শেয়ার
ইউটিউবের ভিডিও ব্যক্তিগত ওয়েবসাইটে শেয়ার করতে হলে প্রথমে ভিডিওটি চালু করতে হবে। এরপর ভিডিওটির নিচের দিকে শেয়ার অপশন পাওয়া যাবে। যেখান থেকে চাইলে ফেইসবুক, টুইটারের মতো অনেকগুলো সামাজিক মিডিয়া এবং ব্লগে শেয়ার করা যাবে সরাসরি। আবার ইচ্ছা করলে ইউআরএল কোড কপি করেও ভিডিও শেয়ার করা যাবে।

youtube share_techshohor

সামনে পেছনে টেনে দেখা
ভিডিও সামনে বা পেছনে টেনে দেখার জন্য কিবোর্ডের লেফট অ্যারো কি ও রাইট অ্যারো কি ব্যবহার করতে হবে। মাউসের মাধ্যমে এ কাজটি করতে বেশি সময় লাগে। অথচ কিবোর্ড ব্যবহার করে সহজে ভিডিও সামনে এবং পেছনে টেনে দেখা যায়।

পছন্দের ভাষায় ভিডিও দেখা
ইউটিউবে বিভিন্ন ভাষায় আপলোড করা বিষয়বস্তু খুঁজে বের করা যায় খুব সহজে। ইংরেজি ছাড়াও অন্যান্য ভাষায় বিষয়বস্তুর উপর নির্মিত ভিডিও দেখতে ইউটিউব পেইজের একেবারে নিচে ল্যাঙ্গুয়েজ অপশন আছে। যেখানে গিয়ে নিজের পছন্দ মত ভাষায় সিলেক্ট করে দিতে হবে। তাহলে পেয়ে যাবেন পছন্দ মত ভাষা অনুযায়ী ভিডিও।

youtube_techshohor

ধীরগতির ইন্টারনেট
আমাদের দেশের ইন্টারটেন স্পিড অনেক ধীর গতির। এ ধীর গতির ইন্টারনেট ব্যবহার করে ভিডিও দেখা বেশ সমস্যা। এ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে ব্যবহার করা যেতে পারে ইউটিউব ফেদার। এখান থেকে  লো ভার্সনের ভিডিও দেখা পায়। এভাবে ভিডিও দেখার সময় কিছু বাটন ও ফিচার দেখা যাবে না। তবে এতে তুলনামূলক কম সময়ে ভিডিও লোড হবে।

ইউটিউব ফেদার সেট করতে অ্যাড্রেস বারে টাইপ করুন http://www.youtube.com/feather_beta। এরপর সেখান থেকে ফেদার বেটা সেট করে নিতে হবে।

পরবর্তীতে ভিডিও দেখা
ভিডিও দেখার সময় অনেক জরুরি কাজে ভিডিও দেখা বন্ধ করে কাজে যেতে হয়। সেক্ষেত্রে কাজ শেষ করে এসে ভিডিওটি চালু করলে আবার প্রথম থেকে দেখতে হয়। তবে ইউটিউবে রয়েছে এমন এক ফিচার সেটার মাধ্যমে যেখান থেকে ভিডিও শেষ করা হয়েছে, সেখান থেকে আবার শুরু হবে। এ জন্য ‘ওয়াচ লেটার’ বাটনে প্রেস করুন। এটি দেখতে ঘড়ির মতো। এতে পরবর্তীতে আপনাকে আবার ভিডিওটি খুঁজে বের করতে হবে না। সহজেই আগের ভিডিওতে ফিরে যেতে পারবেন।

বিষয় নিষ্ক্রিয় করে দেওয়া
আপনি যদি কোনো নির্দিষ্ট বিষয়ের ভিডিও দেখতে না চান, তবে আপনি সেগুলোকে নিষ্ক্রিয় করে দিতে পারেন। এ জন্য এমবেড কোডে গিয়ে ইউআরএল-এর শেষে ?rel=0 যুক্ত করুন।

ট্যাগ ,

Related posts

*

*

Top