অনলাইন কেনাকাটায় নিরাপদ থাকার সহজ উপায়

হাসান যোবায়ের, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশে এখন দিন দিন অনলাইনে কেনাকাটা প্রচুর বাড়ছে। এ ধরনের কেনাবেচার পুরোটাই হয়ে থাকে অনলাইন ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে। ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে লেনেদেন করতে হয় বলে নিরাপত্তার দিকটি মাথায় রাখতে হয়। দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে ওঠা এ মাধ্যমে সামান্য কিছু ভুলের জন্য হয়ে যেতে পারে অনেক বড় ক্ষতি। তাই সাবধানতার কোনো বিকল্প নেই।

নিরাপদে এ ধরনের লেনদেন করার কিছু টিপস থাকছে এ টিউটোরিয়ালে।

পপ আপ বিজ্ঞাপনে ক্লিক করবেন না

বিভিন্ন ওয়েবসাইট ভিজিট করার সময় মাঝে মাঝে বিভিন্ন পপ বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করে। এ বিজ্ঞাপনগুলোতে ক্লিক করলে হয়ে যেতে পারে অনেক বড় সর্বনাশ। তাই এগুলোতে ক্লিক করার আগে একটু সাবধান থাকবে হবে। মজিলা ফায়ারফক্সে ad  blocker এড অন্স ব্যবহার করলে এ সমস্যা থেকে কিছুটা মুক্তি পাওয়া যাবে।

Public WiFi

সফটওয়্যার আপ টু ডেট রাখুন

প্রতিনিয়ত আপনার ব্যবহার করা বিভিন্ন সফটওয়্যারের নতুন নতুন আপডেট রিলিজ করা হয়। হতে পারে সেটা অ্যান্টি ভাইরাস বা ফায়ার ওয়াল। এমনকি সেটা সেটা সাধারণ সফটওয়্যারও হতে পারে। সকল ক্ষেত্রে সফটওয়্যার আপডেটেড রাখা জরুরী। তাহলে অনেক সিকিউরিটি হোল থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

শক্তিশালী পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন

অনলাইনে নিরাপদ থাকতে শক্তিশালী পাসওয়ার্ডের বিকল্প নেই। আমরা অনেক সময় পাসওয়ার্ড হিসেবে জন্মদিন, মোবাইল নম্বর বা ১২৩৪৫ টাইপ করে সহজ পাসওয়ার্ড ব্যবহার করি। এটা অবশ্যই অনেক রিস্কের ব্যাপার। তাই নিরাপদ থাকতে কঠিন পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন।

শক্তিশালী অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যার ব্যবহার করুন

আপনি কোন কোন সাইট ভিজিট করছেন তা নিশ্চয়ই কাউকে জানাতে চান না? অথচ এটা ট্র্যাক করা সম্ভব। ফলে অনেক অনাকাংখিত ঘটনার জন্ম হতে পারে। তাই নিরাপদ থাকতে অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যার ব্যবহার করুন। পারলে কিনে ব্যবহার করুন।

মোবাইলে সব সময় লগ ইন রাখবেন না

আপনি যদি মোবাইল দিয়ে অনলাইন কেনাকাটা করেন তাহলে আরও বেশি সতর্ক হতে হবে। মোবাইল অবশ্যই লক স্ক্রিন পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন। যদি কোনো কারণে আপনার মোবাইলে চুরি হয় তাহলে পুরো ব্যাংক ব্যালেন্স চোরের  হাতে দিয়ে দিলেন।

নিরাপদ ইন্টারনেট কানেকশন ব্যবহার করুন

অর্থনৈতিক যে  কোনো কাজ যেমন ব্যাংকিং বা কেনাকাটার জন্য প্রাইভেট ওয়াই-ফাই বা ইন্টারনেট কানেকশন ব্যবহার করুন। ফ্রি ওয়াই-ফাই নেট ব্যবহার করলে এ ধরণের আর্থিক লেনদেন না করাই  ভাল।

ইমেইল বিজ্ঞাপন থেকে দূরে থাকুন

ই-মেইলে অনেক ধরনের বিজ্ঞাপনের মেইল আসে। হতে পারে সেটা অতি পরিচিত এবং বিশ্বস্ত ওয়েবসাইট। কিন্তু আপনি সরাসরি সেই বিজ্ঞাপন লিঙ্ক থেকে কিনবেন না। দরকার হলে সেই ওয়েবসাইট আলাদা করে এড্রেস টাইপ করে প্রবেশ করুন। তাহলে ফিশিং থেকে নিরাপদ থাকতে পারবেন।

বিশ্বস্ত সাইট থেকেই শুধু পণ্য কিনুন

দেশে এখন অনেক ধরণের কেনাকাটার সাইট তৈরি হয়েছে। সবগুলো যে বিশ্বস্ত তা বলা যায় না। কেনার সময় অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সাইটকে দিতে হয়। তাই বিশ্বস্ত সাইট না হলে এ ধরণের তথ্য দিয়ে বোকামি করবেন না।

ডেবিট কার্ড নয় ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করুন

ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারে কিছু নিয়মকানুন থাকে। তাই চাইলেই যে কেউ ব্যবহার করতে পারে না। অন্য দিকে ডেবিট কার্ড দিয়ে অনেক সহজেই অনলাইনে কেনাকাটা করা যায়। পাসওয়ার্ড জানা থাকলে যে কেউ এ দুর্বলতা কাজে লাগাতে পারে।

ওয়েবসাইট নিরাপদ কিনা যাচাই করুন

URL  দেখেই সাইটটি বিশ্বস্ত কিনা তা জানা যায়। যদি সেখানে “https”  থাকে তাহলে চোখ বন্ধ করে ধরে নিন এটা নিরাপদ সাইট। অন্যদিকে শুধু “http” থাকলে এই সাইট নিরাপদ কিনা তা URL দেখে বোঝা যাবে না।

লোকেশন ট্রেস এবং প্রাইভেসি সেটিংস ঠিক করুন

স্মার্টফোনের এই যুগে এখন অনেক অ্যাপস রয়েছে যেগুলো অটোমেটিক GPS লোকেশন ট্যাক করে এবং অনেক ক্ষেত্রে তা প্রকাশ্যে শেয়ার করে দেয়। ধরুণ আপনার পুরো পরিবার বাইরে বেড়াতে গিয়েছেন। এখন সেই স্থান সবাইকে জানানো নিশ্চয়ই ভাল কথা না। তাই প্রাইভেসি সেটিংস ব্যবহারে সতর্ক থাকুন।

নিরাপদ ব্রাউজার ব্যবহার করুন

অনলাইনে নিরাপদ থাকতে শক্তিশালী ব্রাউজের বিকল্প নেই। অনেকে এখনও ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার ব্যবহার করে থাকে। অথচ এ ব্রাউজারে প্রচুর সিকিউরিটি হোল রয়েছে। তাই মজিলা বা গুগল ক্রোম ব্রাউজারের সাথে ভালো এড অন্সও ব্যবহার করুন।

Related posts

*

*

Top