১০০% রেগুলেটরি ভাতা চান বিটিআরসির কর্মীরা

জামান আশরাফ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) কর্মীরা শতভাগ রেগুলেটরি ভাতা দাবি করেছেন। তবে চুক্তিভিত্তিক বা প্রেষণে আসা সরকারের অন্যান্য কর্মকর্তারা সরাসরি এর বিরুদ্ধে না বললেও কোনোভাবে এটির পক্ষে বলছেন না। অথচ সিদ্ধান্ত নেওয়ার এখতিয়ার এসব ব্যক্তিদের হাতে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানিয়েছে, অনেক দিন থেকে বাড়তি বেতনের এমন দাবি করে আসছিলেন বিটিআরসির স্থায়ী কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা। এটি নিয়ে তারা আন্দোলনও করেছেন।

সম্পতি বিষয়টি কমিশন বৈঠকে উঠলে তা পর্যালোচনার জন্য একটি কমিটি করা হয়েছে। অবশ্য গত এক মাসে একবারও বৈঠক করতে পারেনি কমিটি। সে কারণে ভেতরে ভেতরে বেশ সংক্ষুব্ধ কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

btrc, techshohor

বিটিআরসির কর্মকর্তাদের মতে সরকারি কর্মকর্তা না হওয়ায় তারা সরকারি বেতন-ভাতা বা অন্যন্যা সুযোগ সুবিধা পান না। এমনকি মহার্ঘ্যভাতা বা এমন কোনো ভাতাও দেওয়া হচ্ছে না। অথচ কমিশনের হয়ে তারা প্রতিবছর সরকারের হাজার হাজার কোটি টাকা আয়ের জন্য কাজ করছেন্

এর আগে ২০০৮ সালে তখনকার চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল আলম সকলের জন্যে বিশেষ ভাতার ব্যবস্থা করেছিলেন। তাতে করে কেবল চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারিরাও কয়েক লাখ টাকা করে পেয়েছিলেন।

বিটিআরসির এখনকার কর্মকর্তা-কর্মচারিরাও তেমন একটি ভাতা দাবি করছেন। তবে সেটি সম্ভব না হলেও প্রতি মাসে মূল বেতনের সমপরিমান রেগুলেটরি ভাতা চেয়েছেন তারা।

এ বিষয়ে গঠিত কমিটির চেয়ারম্যান ও কমিশনের লিগাল অ্যান্ড লাইসেন্স বিভাগের মহাপরিচালক শহীদুজ্জামান বলেন, বিষয়টি পর্যালোচনা করে দেখা যাক- শেষ পর্যন্ত কি সুপারিশ আসে।

তবে সুপারিশ যাই আসুক না কেন শেষ পর্যন্ত তা অনুমোদনের জন্য অর্থ মন্তনালয়ে যাবে।

এদিকে কর্মচারিরা কর্মকর্তাদের মতো মোবাইল বিল দাবি করলেও কমিশন তা নাকচ করে দিয়েছে।

Related posts

*

*

Top