আবারও ১১শ’ কোটি টাকা লোকসানের প্রস্তাব বিটিআরসির

জামান আশরাফ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : আন্তর্জাতিক গেটওয়েগুলোর (আইজিডব্লিউ) কল টার্মিনেশন রেট অর্ধেক কমানোর প্রস্তাব গত ফেব্রুয়ারিতে বাতিল করে অর্থ মন্ত্রনালয়। তবে দেড় মাস না যেতেই একই প্রস্তাব আবারও পাঠিয়েছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

টার্মিনেশন রেট তিন সেন্ট থেকে দেড় সেন্টে নামিয়ে আনা হলে বছরে সরকারের ১ হাজার ৭৩ কোটির লোকসান হবে বলেও প্রতিবেদনে আগের মতো উল্লেখ করেছে বিটিআরসি।

টেলিযোগাযোগ মন্ত্রনালয় ঘুরে গত সপ্তাহে এ প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে অর্থ মন্ত্রনালয়ে।

IGW_ICX_BTRC_TechShohor

বর্তমানে প্রতি মিনিটের বৈধ আন্তর্জাতিক টেলিফোন কল দেশে আসার সঙ্গে তিন সেন্ট করে দেশে আসে। বিটিআরসি বলছে এ রেট দেড় সেন্টে নামিয়ে আনলে মোট কল অনেক বেড়ে যাবে, তাতে সরকারের বাস্তব দৃষ্টিতে কিছুটা ক্ষতি হলেও সুদূরপ্রসারী লাভ হবে।

যদিও বিটিআরসির এমন প্রস্তাবের সঙ্গে একমত নয় অনেক আইজিডব্লিউ অপারেটরও। এমনকি পরপর দেড় মাসের মধ্যে একই প্রস্তাব দু’বার প্রস্তাব পাঠানোকে নেতিবাচকভাবেই দেখছেন তারা।

সংশ্লিষ্টদের মতে, গত মেয়াদে আওয়ামী লীগ সরকার রাজনৈতিক বিবেচনায় অনেক লাইসেন্স দিয়েছে। এখন ওই সব কোম্পানির ব্যবসা বাঁচিয়ে রাখতেই টার্মিনেশন রেট কমানোর চেষ্টা চলছে।

এর আগে ৬ সেন্ট থেকে টার্মিনেশন রেট নামিয়ে ৩ সেন্ট করা হয়। কিন্তু তাতে পরিস্থিতির কোনো উন্নতি হয়নি বলে অপারেটরগুলো উল্লেখ করেন।

সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, মালদ্বীপে প্রতি মিনিটের টার্মিনেশন রেট ২৫ সেন্ট। নেপালে সাড়ে নয় সেন্ট, শ্রীলংকায় ৯ সেন্ট এবং পাকিস্তানে সম্প্রতি টার্মিনেশন রেট বাড়িয়ে ৮ দশমিক ৮ সেন্টে উন্নীত করা হয়েছে।

আগের বার এ প্রস্তাব বাতিল করে অর্থ মন্ত্রণালয় আরও বলেছে, মাত্র কয়েক দিন আগে আইজিডব্লিউসহ অন্যান্য অপারেটরদের বার্ষিক লাইসেন্স নবায়ন ফি ৫০ শতাংশ কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। এতে সরকারের আয় কমেছে শতাধিক কোটি টাকা। এখন আবার এমন প্রস্তাব যুক্তিসংগত নয়।

টার্মিনেশন রেট কমানোর প্রস্তাবের সঙ্গে বিটিআরসি আবারও এ খাত থেকে সরকারের রাজস্ব প্রাপ্তির অংশও কমানোর প্রস্তাব করেছে। এখন তিন সেন্ট থেকে সরকার পায় ৫১ দশমিক ৭৫ শতাংশ।

প্রস্তাব অনুসারে এটি ৪০ শতাংশে নামাতে বলা হয়েছে। এতে কল রেট কমানো হলে কেবল সরকারের আয় কমবে। আর রাজস্ব ভাগাভাগিতে অপারেটরদের অংশ বৃদ্ধি হওয়ায় তাদের আয়ের ওপর তেমন কোনো প্রভাব পড়বে না বলে সংশ্লিষ্টরা মন্তব্য করেন।

*

*

Top