সব জেলায় সবার আগে গ্রামীণফোনের থ্রিজি

অনন্য ইসলাম, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সবার আগে দেশের সব জেলায় থ্রিজি (তৃতীয় প্রজন্মের) মোবাইল সেবা নিয়ে হাজির হয়েছে শীর্ষ মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোন।

রাজধানীর একটি হোটেলে রোববার আনুষ্ঠানিকভাবে ৬৪ জেলায় থ্রিজির আওতায় এসেছে বলে বলে ঘোষণা দেন গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) বিবেক সুদ।

গত সপ্তাহে অপারেটরটি দেশের সব জেলায় থ্রিজির নেটওয়ার্ক তৈরির কাজ শেষ করেছে। নেটওয়ার্কে একটু হের ফের হলেও বেশিরভাগ জেলায় থ্রিজি সেবা কাজ করছে বলে কর্মকর্তারা জানান।

3g gp_techshohor

সংবাদ সম্মেলনে সুদ বলেন, টেলিনর গ্রুপ অন্যান্য দেশের মধ্যে বাংলাদেশেই সবচেয়ে কম সময়ে দ্রুতগতির তৃতীয় প্রজন্মের থ্রিজি নেটওয়ার্ক পৌঁছে দিয়েছে।

সম্মেলনে চট্টগ্রাম, সিলেট, খুলনা ও রাজশাহীতে থ্রিজির নেটওয়ার্কের মাধ্যমে ওই এলাকাগুলোতে ভিডিও কল করে থ্রিজির কার্যক্রম দেখানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন গ্রামীণফোনের চিফ করপোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার মাহমুদ হোসেন ও হেড অব করপোরেট কমিউনিকেশনস সৈয়দ তাহমীদ আজিজুল হক।

লাইসেন্স নেওয়ার মাত্র ছয় মাসের মধ্যে ৬৪ জেলাকে থ্রিজি নেওয়ার্কের আওতায় নিয়ে আসা সম্পর্কে গ্রামীণফোনের কারিগরি বিভাগের এক কর্মকর্তা বলেন, “থ্রিজির লাইসেন্স নীতিমালায় সারাদেশে নেটওয়ার্ক তৈরির ক্ষেত্রে বাধ্যবাধকতা ছিল ৩৬ মাসের। কিন্তু এর ছয় ভাগের এক ভাগ সময়ে আমরা সারা দেশে পৌঁছে গিয়েছি।” এটিকে নিজেদের সাফল্য হিসাবেই দেখছেন কর্মকর্তারা।

গত বছর ৮ সেপ্টেম্বর থ্রিজি স্পেকট্রাম বিতরণের নিলাম আনুষ্ঠিত হয়। এতে গ্রামীণফোন ১০ মেগাহার্ডজ স্পেকট্রাম কেনে ২১ কোটি ডলার দিয়ে।

একই নিলামে পাঁচ মেগাহার্ডজ করে স্পেকট্রাম কেনে রবি, এয়ারটেল এবং বাংলালিংক। এ তিন অপারেটরের মধ্যে এয়ারটেল নয় জেলায় এবং বাংলালিংক চার জেলায় থ্রিজি নিয়ে যেতে পেরেছে। রবির নেটওয়ার্ক সম্পর্কে ধারণা মেলেনি। তবে ঢাকা-চট্টগ্রামের বাইরে তাদের নেটওয়ার্ক বাড়ানো হয়নি বলে শোনা যায়।

অন্যদিকে লাইসেন্স নেওয়ার আগে থেকেই ২০১২ সালের অক্টোবর থেকে থ্রিজির পরীক্ষামূলক বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু করে রাষ্ট্রায়ত্ত্ব অপারেটর টেলিটক। এ পর্যন্ত মাত্র ১৮ জেলায় দ্রুত গতির এ মোবাইল সেবা নিয়ে যেতে পেরেছে অপারেটরটি।

সেপ্টেম্বরে লাইসেন্স নেওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যে ঢাকায় থ্রিজির পরীক্ষামূলক কার্যক্রম শুরু করে গ্রামীণফোন। পরে অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে বাণিজ্যিক কার্যক্রমে যায় অপারেটরটি।

তখন সংবাদ সম্মেলনে আনুষ্ঠানিকভাবে সিইও সুদসহ অন্যরা এপ্রিলের মধ্যে সারা দেশে থ্রিজি সেবা নিয়ে যাওয়ার কথা বলেছিলেন। তবে এপ্রিলের আগেই আনুষ্ঠানিকভাবে অপারেটরটি এ ঘোষণা দিতে যাচ্ছে বলে জানা গেছে।

Related posts

*

*

Top