টেলিকম আইসিটির কর্তাব্যক্তিরা দলবেধে বার্সেলোনা যাচ্ছেন

জামান আশরাফ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : প্রচলিত বিধিবিধান ও নিয়ম ভেঙ্গে ওয়ার্ল্ড মোবাইল কংগ্রেসে অংশ নিতে বার্সেলোনায় যাচ্ছেন টেলিযোগাযোগ ও আইসিটিমন্ত্রী, একাধিক সচিব, যুগ্ম সচিব, বিটিআরসির চেয়ারম্যানসহ মন্ত্রনালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তারা।

বর্তমান সরকারি বিধি অনুযায়ী একই সঙ্গে কোনো মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী ও সচিবের দেশের বাইরে যাওয়ার ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ রয়েছে। কিন্তু আগামী সপ্তাহের বার্সেলোনা সফরের ক্ষেত্রে এ নিয়মের তোয়াক্কা করছেন না মন্ত্রণালয়ের কর্তাব্যক্তিরা।

আগামী শনিবার রাতে তাদের সকলের দলবেধে বার্সেলোনার উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার কথা। ফলে ফেব্রুয়ারির শেষ ভাগ পর্যন্ত দেশের টেলিযোগাযোগ খাত অভিভাবক শূন্য থাকবে।

world mobile congress_techshohor

২৪ থেকে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত স্পেনের বার্সেলোনায় অনুষ্ঠিত হবে এবারের মোবাইল কংগ্রেস।

এর বাইরে একই সময়ে মন্ত্রনালয়ের অপর একটি দল চীন সফরের প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানা গেছে।

এ দিকে মন্ত্রী, দুই সচিব ও বিটিআরসির চেয়ারম্যান বার্সেলোনায় যাচ্ছেন খবর পেয়ে মোবাইল ফোন অপারেটরদের শীর্ষ পর্যায়ের প্রায় সব কর্মকর্তাও সম্মেলনে যাবার প্রস্তুতি শুরু করেছেন।

একমাত্র টেলিটক ছাড়া বাকি সবগুলো অপারেটরের প্রধানসহ আরও কয়েকজন নির্বাহী এ সময় বার্সেলোনায় থাকবেন। একই সঙ্গে যাচ্ছেন মোবাইল ফোন অপারেটরদের সংগঠন অ্যামটবের সাধারণ সম্পাদকও।

জানা গেছে, টেলিযোগাযোগ ও আইসিটিমন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী, দুই সচিব আবুবকর সিদ্দিক এবং নজরুল ইসলাম খানের বার্সেলোনায় যাওয়ার সকল প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। এ দলে মন্ত্রণালয়ের কয়েকজন যুগ্ম সচিবও রয়েছেন। কিন্তু এতে জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়ের জারি করা নিয়মের লংঘন হয়েছে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রনালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

নিয়মানুসারে সরকারের গুরুত্বপূর্ণ সফরেই কেবল এক সঙ্গে মন্ত্রী ও সচিব দেশের বাইরে যেতে পারবেন। গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে জনপ্রশাসন ও অর্থ মন্ত্রনালয়ের সুপারিশের প্রেক্ষিতে এ প্রবিধান জারি করা হয়।

তবে বার্সেলোনায় যাওয়ার ক্ষেত্রে টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব কিছুটা কৌশলগত অবস্থান নিয়েছেন বলে জানা গেছে। সূত্র নিশ্চিত করেছে, সচিব এ সফরকে সরকারের জন্য গুরুত্বপূর্ণ হিসাবে দেখিয়েছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আবুবকর সিদ্দিক বলেন, গুরুত্ব বেশি হওয়ার কারণেই মন্ত্রীর সঙ্গে তিনিও ওয়ার্ল্ড মোবাইল কংগ্রেসে যোগ দিতে পাচ্ছেন।

এদিকে সূত্র জানিয়েছে, গতবারের মতো এবারও কংগ্রেস চলাকালে টেলিযোগাযোগমন্ত্রীর সঙ্গে গ্রামীণফোনের মূল কোম্পানি টেলিনরের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) জন ফেডরিক বাকসাসের বৈঠক রয়েছে।

বৈঠকে টেলিযোগাযোগ বিভাগ ও আইসিটি বিভাগের দুই সচিব এবং বিটিআরসির চেয়ারম্যান সুনীল কান্তি বোসও থাকবেন।

এর আগে গতবারও তখনকার মন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন, সচিব আবুবকর সিদ্দিক এবং বিটিআরসির চেয়ারম্যান সুনীল কান্তি বোস টেলিনর কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন।

Related posts

*

*

Top