নতুন করে ডেপুটেশন না দিতে বিটিআরসির অনুরোধ

অনন্য ইসলাম, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের বয়স এক যুগ পার হলেও এখনও ধার করা জনবল দিয়ে চলছে সংস্থাটি। নিজস্ব কর্মকর্তারা এখনও সংস্থাটির নের্তৃত্বের পর্যায়ে আসার সুযোগ পাচ্ছেন না। বছরের পর বছর জনপ্রশাসন এবং সেনা প্রশাসন থেকে কর্মকর্তা পাঠিয়ে পরিচালনা করা হচ্ছে সংস্থাটিকে। এতে নিজস্ব কর্মকর্তাদের পদোন্নতিও আটকে থাকছে দীর্ঘ সময় ধরে।

সম্প্রতি বিটিআরসির চেয়ারম্যান সুনীল কান্তি বোস দুই প্রশাসনকে চিঠি লিখে আর ডেপুটেশন না দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছেন।

ইতিমধ্যে বিটিআরসির নিজস্ব কর্মকর্তাদের মধ্যে থেকে কয়েকজনকে পদোন্নতি দেওয়া হয়েছে। তারপর চেয়ারম্যান এ অনুরোধ করেন।

btrc, techshohor

সূত্র জানিয়েছে, অনেক ক্ষেত্রে উভয় প্রশাসন থেকে বিটিআরসির চেয়ারম্যানের সঙ্গে কোনো আলোচনা ছাড়াই কর্মকর্তা পাঠিয়ে দেওয়া হয়। যেটি খুবই বিব্রতকর। সেটি এড়াতেই চেয়ারম্যান এ উদ্যোগ নিয়েছেন।

চেয়ারম্যানের এ চিঠির প্রেক্ষিতে বিটিআরসির নিজস্ব কর্মকর্তারা খুশি হয়েছেন।

চেয়ারম্যান এবং অন্যান্য কমিশনার ছাড়া পাঁচটি মহাপরিচালক পদের বিপরীতে বিটিআরসির নিজস্ব কর্মকর্তা রয়েছেন মাত্র একজন। বাকি চার কর্মকর্তা ডেপুটেশনে এসে দায়িত্ব পালন করছেন। এর একজন জন প্রশাসনের ও বাকি তিন জন সেনা কর্মকর্তা।

বেশ কয়েকটি পরিচালক পদ খালি থাকলেও কোনো নিজস্ব কর্মকর্তাকে সেখানে এতদিন পদোন্নতি দেওয়া হয়নি। বরং দু’জন সেনা এবং দু’জন সিভিল প্রশাসনের কর্মকর্তারা পরিচালক পদে ছিলেন বছরের পর বছর। শুধু হিসাব বিভাগের পরিচালক পদে ছিল বিটিআরসির নিজস্ব কর্মকর্তা।

স্থায়ী কর্মকর্তাদের অনেক বিক্ষোভের পর অবশেষে বিটিআরসির চার জন নিজস্ব কর্মকর্তাকে পরিচালক পদে পদোন্নতি দেওয়া হয়েছে গত সপ্তাহে। এর  মধ্যে ১১ বছর উপ-পরিচালক পদে আটকে থাকার পর পদোন্নতি পেয়েছেন এমন কর্মকর্তাও রয়েছেন।

এ দিকে গত সপ্তাহে টেলিকম রিপোটার্স নেটওয়ার্কের এক আলোচনা অনুষ্ঠানে বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেছেন, ১২ বছরে বিটিআরসির যতোটা শক্তি নিয়ে দাঁড়ানোর কথা ছিল তা হয়নি। তবে চেষ্টা চলছে কমিশন যাতে নিজস্ব কাঠামোতে পরিচালিত হতে পারে সে ব্যবস্থার।

Related posts

*

*

Top