Maintance

রোবটসহ গোয়েন্দা ডিভাইস ও নেটওয়ার্কিং পণ্য আটক

প্রকাশঃ ২:১৫ অপরাহ্ন, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৬ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ২:৪১ অপরাহ্ন, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৬

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে সোমবার ১৫ কেজি ওজনের একটি বিশেষ ধরনের হেলথ রোবট আটক করেছে শুল্ক গোয়েন্দা কর্তৃপক্ষ।

একই সঙ্গে বেশ কিছু গোয়েন্দা ডিভাইস ও নেটওয়ার্কিং সামগ্রীও উদ্ধার করা হয়েছে বলে শুল্ক গোয়েন্দা কর্তৃপক্ষের ফেইসবুক পেইজে জানানো হয়েছে।

মিথ্যা ঘোষণা দিয়ে টয় ও কম্পিউটার সামগ্রী হিসেবে খালাসের চেষ্টাকালে এয়ারফ্রেইট ইউনিটের বাহির থেকে এসব সামগ্রী আটক হয়।

Robot-Techshohor
আমদানি নীতি অনুযায়ী রোবট মেডিকেল ডিভাইস হিসেবে ঔষধ প্রশাসনের এবং নেটওয়ার্কিং ডিভাইস বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের অনুমোদন ব্যতিরেকে আমদানিযোগ্য নয়।

চালানকৃত পণ্যের মধ্যে একটি রোবট ছাড়াও ১২০টি স্মার্ট ওয়াচ (সিম স্লট সংযুক্ত), ১০টি মিনি ডিজিটাল ও ২৫টি পেন ক্যামেরা (গোয়েন্দা ডিভাইস), ৬৩টি ইথারনেট সুইস, ২৫টি অ্যান্টিনা, ১৯টি বেজ স্টেশনসহ বিভিন্ন ধরনের নেটওয়ার্কিং সামগ্রী পাওয়া গেছে।

রোবটটির প্যাকেটে লেখা আছে ‘হেলথ কেয়ার রোবট’। এতে রিমোট কন্ট্রোলসহ ক্যামেরা ও মিউজিক বক্স সংযুক্ত করা আছে। প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায় এই রোবট উন্নত দেশে মেডিকেল সেবায় ব্যবহার হয়। তবে এর অপব্যবহার রোধে যে কোনো মেডিকেল ডিভাইস আমদানির পূর্বে ঔষধ প্রশাসনের অনুমতি নিতে হয়। যা এই চালানে ছিলো না।

Robot
অন্যদিকে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রদানের ক্ষেত্রে আটক নেটওয়ার্কিং ডিভাইস ব্যবহার করা হয় এবং এজন্য বিটিআরসির অনুমোদন প্রয়োজন। এক্ষেত্রে সেটাও অনুপস্থিত। এসব সামগ্রী ফ্রিকোয়েন্সির মাধ্যমে ব্যবহারযোগ্য।

পণ্য চালানের বিষয়ে গোপন সংবাদ থাকায় গত ৮ সেপ্টেম্বর শাহজালালের এয়ারফ্রেইটের এক নম্বর গেট দিয়ে বের করার পর শুল্ক গোয়েন্দারা পণ্য চালানটি সাময়িক আটক করে। এতে ৩২৫ কেজির ২৪টি কার্টন পাওয়া যায়।

বিল অব এন্ট্রি অনুযায়ী আমদানিকারক হলেন শাহ আমানত সিটি কর্পোরেশন মার্কেট, চট্টগ্রামের মেসার্স গ্লোবাল কমিউনিকেশন্স। সিএন্ডএফ এজেন্ট ছিলেন মেসার্স কুম ট্রেডার্স। চালানটি চীন হতে EY960 যোগে ঢাকায় অবতরণ করে।

সরকারের পূর্ব অনুমোদন ব্যতিরেকে ও প্রকৃত ঘোষণা না দিয়ে খালাসের চেষ্টা করায় শুল্ক আইন ভঙ্গ হওয়ায় এগুলো আটক করা হয়েছে। এখন শুল্ক আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানা গেছে।

জামান আশরাফ

*

*

Related posts/