অবশেষে ব্যান্ডউইথ রপ্তানির সিদ্ধান্ত

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : অবশেষে ব্যবহারের অতিরিক্ত ব্যান্ডউইথ রপ্তানির নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। দীর্ঘ এক বছর পর রোববার এক আন্ত:মন্ত্রণালয় বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন কোম্পানি বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবলের অব্যবহৃত ব্যান্ডউইথ রপ্তানি করা হবে। তবে এর আগে ২০২১ সাল পর্যন্ত দেশের সম্ভাব্য চাহিদা নির্ধারণ করার পর অবশিষ্ট ব্যান্ডউইথ রপ্তানি করা হবে।

Fibre-Optic-Cable_Tech Shohor

সচিবালয়ে রোববার ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত আন্তমন্ত্রণালয় বৈঠক শেষে বৈঠক শেষে ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব আবু বকর সিদ্দিক বলেন, দেশে প্রয়োজনের চেয়ে অনেক বেশি ব্যান্ডউইথ রয়েছে। তা ছাড়া দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল স্থাপনের প্রক্রিয়া শেষ হলে ব্যান্ডউইথ আরও বেড়ে যাবে। সে কারণে অতিরিক্ত ব্যান্ডউইথ রপ্তানি লাভজনক হবে।

বৈঠক সূ্ত্রে জানা গেছে, ভারতের সেভেন সিস্টার খ্যাত দেশটির উত্তর-পূর্ব অঞ্চলের সাতটি রাজ্য বাংলাদেশ থেকে ব্যান্ডউইথ আমদানি করতে চায়। আখাউড়া অংশ দিয়ে ত্রিপুরা এবং বাংলাবান্ধা অংশ দিয়ে দার্জিলিং হয়ে ব্যান্ডউইথ নিতে চায় তারা। ভারত সরকার অনানুষ্ঠানিকভাবে ব্যান্ডউইথ আমদানির প্রস্তাবও দিয়েছে।

বর্তমানে দেশে ব্যান্ডউইথ রয়েছে ২৫০ গিগাবাইট প্রতি সেকেন্ড (জিবিপিএস)। এর মধ্যে বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবলের রয়েছে ২০০ গিগাবাইট। এর মধ্যে ব্যবহার হচ্ছে মাত্র ৪২ গিগাবাইট।

তবে ২০২১ সাল নাগাদ ব্যবহার বেড়ে দাঁড়াতে পারে ২২০ জিবিপিএস। তাই ৫০ গিগাবাইটের মত ব্যান্ডউইথ রপ্তানি করা সম্ভব বলে মনে করছে সংশ্লিষ্টরা। আর এ থেকে আয় হবে প্রায় ৪০ কোটি  টাকা।

-আমিন রানা

Related posts

*

*

Top