আইজিডব্লিউ-আইসিএক্স মালিকদের তথ্য চান টেলিযোগাযোগমন্ত্রী

অনন্য ইসলাম, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : নতুন টেলিযোগাযোগমন্ত্রী দায়িত্ব নিয়ে প্রথম দফাতেই বিটিআরসির কাছে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গেটওয়ে এবং আন্তসংযোগ এক্সচেঞ্জসহ অন্যান্য সব অপারেটরের মালিকানা সম্পর্কিত তথ্য চেয়েছেন।

সম্প্রতি এক বৈঠকে টেলিযোগাযোগমন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী বিটিআরসির চেয়ারম্যান সুনীল কান্তি বোসকে এ নির্দেশনা দেন বলে জানিয়েছে বিটিআরসি সূত্র।

গত পাঁচ বছরে বিটিআরসি সাড়ে ১৫শ’ লাইসেন্স দিয়েছে। আর সব মিলে মোটে লাইসেন্সের সংখ্যা ১,৮৪০টি।

IGW_ICX_BTRC_TechShohor

সূত্র বলছে, যে আইজিডব্লিউ লাইসেন্স নিয়ে এত বিতর্ক সেগুলো সম্পর্কে সবচেয়ে বেশি জানতে চান মন্ত্রী। সেক্ষেত্রে কে কোন আইজিডব্লিউর মালিক বা কার কোথায় শেয়ার আছে সে বিষয়ে আগে জানাতে নির্দেশ দিয়েছেন লতিফ সিদ্দিকী।

আইজিডব্লিউ-আইসিএক্স ছাড়াও ইন্টারনেট গেটওয়ে এবং ভিআইপি সার্ভিস অপারেটরদের মালিকানা সংক্রান্ত তালিকা প্রস্তুত করতে শুরু করেছে বিটিআরসি।

বর্তমানে দেশে ২৯টি আজিডব্লিউ রয়েছে যার মধ্যে একটি সরকারি। বাকি ২৮টি বেসরকারি অপারেটরে মালিকানা আছে প্রায় ১০০ জনের। যার মধ্যে আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী রাজনৈতিক ব্যক্তিরাই বেশি। এর মধ্যে প্রভাবশালী রাজনীতিবিদরা তাদের অপারেটরদের নামে শত শত কোটি টাকা বাকি ফেলে ব্যবসা বন্ধ রেখেছেন।

মোট বেসরকারি আইসিএক্স আছে ২২টি। আর সরকারি একটি। এর মধ্যে অনেকেই আছেন যারা একই সঙ্গে আইজিডব্লিউ এবং আইসিএক্স-এর মালিকানা নিয়েছেন।

আর ৩৭টি আন্তর্জাতিক ইন্টারনেট গেটওয়ে (আইআইজি) লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে এ সরকারের সময়ে।

এর বাইরেও ৮৮১টি ভিওআইপি সার্ভিস প্রোভাইডার অপারেটরের লাইসেন্স দিয়েছে গত সরকার। যেগুলোর অধিকাংশ নিয়েছেন ছাত্রলীগের নেতারা।

অন্যদিকে আছে ছয়টি আইটিসি লাইসেন্স। ভারত থেকে ফাইবার কানেকটিভিটি আনা এসব লাইসেন্সের মধ্যেও আছে রাজনৈতিক প্রভাব।

বিটিআরসির ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা বলেন, সব মিলে মালিকানা বিষয়ে ধারনা নিতে মন্ত্রী এসব তথ্য চেয়ে পাঠিয়েছেন।

Related posts

*

*

Top