৯ এফএম রেডিও অতিরিক্ত স্পেকট্রাম ব্যবহার করছে

অনন্য ইসলাম, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশের নয়টি বেসরকারি এফএম (ফ্রিকোয়েন্সি মডিউলেশন) রেডিওয়ের সবগুলো বরাদ্দের চেয়েও বেশি স্পেকট্রাম ব্যবহার করছে। বিটিআরসির পর্যবেক্ষণে ধরা পড়ার পর নিয়ন্ত্রণ কমিশনের কাছে বিষয়টি স্বীকারও করেছে রেডিওগুলো।

রেডিও স্টেশনগুলোর কর্মকর্তারা বলছেন, তরঙ্গ পরিমাপের পদ্ধতিগত জ্ঞান ও সরঞ্জামের অভাবে এটা হয়েছে।

fm-radio_techshohor

সম্প্রতি বিটিআরসির অতিরিক্ত তরঙ্গ ব্যবহার বিষয়ে দেওয়া কারণ দর্শানো নোটিসের জবাবে এ তথ্য জানিয়েছে অধিকাংশ রেডিও।

এদিকে সমস্যা সমাধানে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য কর্মশালা আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিশন।

জাতীয় তরঙ্গ বরাদ্দ নীতিমালা অনুযায়ী, ৮৭-১০৮ মেগাহার্টজ এফএম ব্যান্ডের সম্প্রচারের জন্য সংরক্ষিত। লাইসেন্স পাওয়া রেডিও স্টেশনগুলোকে সম্প্রচার কার্যক্রম পরিচালনার জন্য এফএম ব্যান্ডে ২০০ কিলোহার্টজ করে তরঙ্গ বরাদ্দ দিয়েছে বিটিআরসি।

কিন্তু এফএম স্টেশনগুলো বরাদ্দের অতিরিক্ত তরঙ্গ ব্যবহার করছে বলে জানতে পারে কমিশনের তরঙ্গ ব্যবস্থাপনা কমিটি (এসএমসি)।

পর্যবেক্ষণে দেখা যায়, ক্ষেত্র বিশেষে রেডিও স্টেশনগুলো ৬০ থেকে ১৬২ দশমিক ৫ কিলোহার্টজ পর্যন্ত অতিরিক্ত তরঙ্গ ব্যবহার করছে।

এ বিষয়ে কারণ দর্শানোর নোটিস দেয় বিটিআরসি। তার জবাবে অতিরিক্ত তরঙ্গ বরাদ্দের কথা স্বীকার করে প্রতিষ্ঠানগুলো।

এ বিষয়ে কমিশনের এক কর্মকর্তা বলেন, রেডিওগুলো তরঙ্গ পরিমাপের জ্ঞান এবং সরঞ্জাম না থাকার কারণ উল্লেখ করে ভুল স্বীকার ও দুঃখ প্রকাশ করেছে। একই সঙ্গে এ বিষয়ে তারা বিটিআরসির সহায়তা চাওয়ায় স্টেশনগুলোকে ক্ষমা করা হয়েছে।

এদিকে বিষয়টির সমাধানে ইন্টারন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়ন ও বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বিদ্যমান এফএম রেডিও ব্রডকাস্টিং নীতিমালার আলোকে একটি কর্মশালা আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিশন বলেও জানান ওই কর্মকর্তা।

এর আগে ২০০৬ সালে সরকার প্রথম বেসরকারি খাতে বাণিজ্যিকভাবে এফএম লাইসেন্স দেয়। তখন রেডিও টুডে ও রেডিও ফুর্তি লাইসেন্স পায়। এরপর এবিসি রেডিও, ঢাকা এফএম, রেডিও আমার, পিপলস রেডিও, রেডিও ভূমি, রেডিও স্বাধীন ও সিটি এফএম সম্প্রচারে রয়েছে।

সম্প্রতি আরও ১৪টি এফএম রেডিওর অনুমোদন দিয়েছে সরকার। খুব তাড়াতাড়ি এগুলোও সম্প্রচারে আসবে বলে জানা গেছে।

বাণিজ্যিক এফএম রেডিও বাইরে ১৪টি কমিউনিটি রেডিও সম্প্রচারের অনুমতি নিয়েছে। এসব রেডিও এফএম ব্যান্ডে সম্প্রচার করছে।

Related posts

*

*

Top