Maintance

ভিশনটেলের তিন পরিচালকের বিরুদ্ধে বিটিআরসির মামলা

প্রকাশঃ ১১:৫৪ পূর্বাহ্ন, জানুয়ারি ২১, ২০১৪ - সর্বশেষ সম্পাদনাঃ ১১:৫৪ পূর্বাহ্ন, জানুয়ারি ২১, ২০১৪

অনন্য ইসলাম, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ১৮১ কোটি ৫০ টাকা বকেয়া রেখে দীর্ঘদিন ধরে নিখোঁজ আন্তর্জাতিক গেটওয়ে অপারেটর ভিশনটেলের তিন পরিচালকের বিরুদ্ধে অর্থ আদায়ে সার্টিফিকেট মামলা করেছে বিটিআরসি।

গত বৃহস্পতিবার দায়ের করা এ মামলায় ভিশনটেলের কানাডা প্রবাসী তিন পরিচালকের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে। কোম্পানিতে শরীফুল ইসলামের নামে ৮০ হাজার, রাশেদ মির্জার নামে ৭০ হাজার এবং জিয়াউর রহমানের নামে ৫০ হাজার শেয়ার রয়েছে।

IGW-image_techshohor

মামলা দায়ের করলেও বিপুল এ টাকা আদায়ে সন্দিহান বিটিআরসির শীর্ষ কর্মকর্তারা। তারা বলছেন, প্রবাসীদের (এনআরবি) ধরে এনে টাকা আদায় করা কঠিন হবে। সে কারণে এদের নামে আরও একাধিক মামলা দেওয়ার পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

বিটিআরসির ১২ বছরের ইতিহাসে এটি দ্বিতীয় সার্টিফিকেট মামলা। এর আগে ৭ জানুয়ারি অপর আইজিডব্লিউ টেলেক্সের বিরুদ্ধে ৯২ কোটি টাকা বাকি ফেলে উধাও হওয়ায় মামলা করে কমিশন।

Symphony 2018

তবে সরকারের প্রভাবশালী হওয়া রাতুল টেলিকমের কাছে ৯৬ কোটি টাকা বকয়ো থাকলেও কোনো মামলা করা হয়নি।

সাবেক স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবীর নানকের মেয়ে রাতুল টেলিকমের মালিক।

আন্তর্জাতিক গেটওয়ে অপারেটরগুলো বিদেশ থেকে ৩ সেন্ট টার্মিনেশন রেট হিসেবে টেলিফোন কল আনে। যার ৫১ দশমিক ৭৫ শতাংশ বিটিআরসিকে দিতে হয় রেভিনিউ শেয়ারিং চুক্তির আওতায়।

এ টাকা দীর্ঘদিন ধরে বকেয়া রেখেছে অপারেটরগুলো। ডিসেম্বরের শেষ পর্যন্ত এর পরিমাণ ১৪’শ কোটি টাকা ছাড়িয়ে গেছে।

সূত্র জানায়, অপারেটরগুলোর চেকও ইতিমধ্যে ডিজঅনার হয়ে গেছে। এ অপরাধেও একটি মামলা করা হবে। তা ছাড়া টাকা বাকি থাকার পরেও অনেক দিন টেলিযোযোগ সেবা চালিয়ে যাওয়ার অপরাধে ফৌজদারি মামলা করা হবে অপারেটরগুলোর বিরুদ্ধে।

*

*

Related posts/