স্কাইপির ব্যবহার বাড়ছে, সরকারের পকেট পুড়ছে

অনন্য ইসলাম, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : টেলিফোন ও মোবাইল ফোনের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক যোগাযোগ প্রতিদিন কমছে। সেখানে জায়গা নিচ্ছে স্কাইপি। আগের বছরের তুলনায় ২০১৩ সালে স্কাইপির মাধ্যমে কথা বলার পরিমান বৃদ্ধি পেয়েছে ৩৬ শতাংশ। সেখানে টেলিফোন ও মোবাইল ফোনের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক যোগাযোগ ৭ শতাংশ কমেছে। তবে গত কয়েক বছরের হিসাব বিবেচনায় নিলে এ পতনের  হার ১৩ শতাংশের বেশি।

টেলিজিওগ্রাফি নামের একটি আন্তর্জাতিক গবেষণা সংস্থা এ তথ্য প্রকাশ করেছে। এর ফলে আন্তর্জাতিক টেলিযোগাযোগ থেকে বাংলাদেশ সরকারের বছরে বড় অঙ্কের  যে আয় করে থাকে, সেটিতে বড় রকমের ধাক্কা লাগবে বলে মনেকরছেন টেলিকম বিশেষজ্ঞরা।

skype_techshohor

 

সরকার প্রতি বছর অন্তত দুই হাজার কোটি টাকা আয় করে বিদেশি টেলিফোন কল দেশে আনার মাধ্যমে। এক সময় এ আয় ছিল প্রায় পাঁচ হাজার কোটি টাকার কাছাকাছি। এখন স্কাইপির ব্যবহার বৃদ্ধির কারণে এ আয়ের ওপর আরও নেতিবাচক প্রভাব পড়বে।

অন্যদিকে এ আয় ধরে রাখতে সরকার কয়েক বছর আগে আন্তর্জাতিক গেটওয়ে নামের একটি প্রতিষ্ঠান সৃস্টি করে। প্রথমে চারটি কোম্পানিকে লাইসেন্স দেওয়া হলেও এখন তা বাড়িয়ে ২৯টি করা হয়েছে।

Skype graph_techshohor

টেলিজিওগ্রাফির তথ্য বলছে, টেলিফোনের মাধ্যমে কথা বলার পরিমান কমে যাওয়ার ক্ষেত্রে মোবাইল অ্যাপস, ফেইসবুকের ম্যাসেঞ্জারও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।

গবেষণা সংস্থাটি বলছে, এসব অ্যাপসের মাধ্যমে যোগাযোগ অন্তত একশ গুন বেড়েছে। বিনা পয়সায় যোগাযোগ করা যায় বলে যারা প্রযুক্তিবান্ধব তাদের বড় অংশই টেলিফোন বা মোবাইল ফোনে কথা বলার পরিমাণ কমিয়ে দিয়েছেন।

Related posts

*

*

Top