এলটিইর অনুমোদন পেল বাংলালায়ন

টেক শহর ডেস্ক : দেশের শীর্ষ ওয়াইম্যাক্স অপারেটর বাংলালায়ন উচ্চ গতির ইন্টারনেট সেবা দিতে চতুর্থ প্রজন্মের এলটিই (লং-টার্ম ইভ্যালুয়েশন) প্রযুক্তি আমদানির অনুমোদন পেয়েছে। গত বৃহস্পতিবার টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন বিটিআরসি কোম্পানিটিকে এই অনুমোদন দিয়েছে।

এর আগে সেপ্টেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে অপর ওয়াইম্যাক্স অপারেটর কিউবি একই অনুমোদন পায়। এলটিই প্রযুক্তি আমদানির জন্য দুইটি অপারেট কমিশনের কাছ থেকে অনাপত্তিপত্র (এনওসি) পেলেও তাদেরকে বকেয়া সকল টাকা পরিশোধের পরই কেবল নতুন এ প্রযুক্তি আমদানি করতে পারবে।

বিটিআরসির চেয়ারম্যান সুনীল কান্তি বোস এ প্রসঙ্গে বলেন, বাংলালায়নকে শর্তসাপেক্ষে এলটিই প্রযুক্তি আমদানির জন্যে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। বাকিটা এখন তাদের হাতে।

Banglalion

এর আগে মোবাইল ফোন অপারেটরগুলোও থ্রি জি লাইসেন্সের সঙ্গে এলটিই প্রযুক্তি ব্যবহারের অনুমোদন পেয়েছে। তবে মোবাইল ফোন অপারেটরগুলো কবে থেকে এই প্রযুক্তি চালু করতে পারবে তা কেউ জানাতে পারেনি।

গত বছর শেষের দিকে এলটিইর জন্যে আবেদন করে বাংলালায়ন। একই সঙ্গে তারা আরও কিছু স্পেকট্রামও চায়। বর্তমানে অপারেটরটির হাতে ৩৫ মেগাহার্জ স্পেকট্রাম রয়েছে। তবে গ্রাহক সংখ্যা সন্তুষ্ঠিজনক না হওয়ায় তাদের ওই আবেদনে সাড়া দেয়নি বিটিআরসি বলে জানান সুনীল কান্তি।

আগস্ট মাসের সর্বশেষ হিসেবে অনুযায়ী, বাংলালায়নের গ্রাহক ১ লাখ ৮৩ হাজার ৯৮০। আর কিউবির গ্রাহক ১ লাখ ৩১ হাজার ৩১৭।
সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, এলটিই সেবা পেতে গ্রাহকদের মডেম এবং ডিভাইস পরিবর্তন করতে হবে।

এর আগে চলতি বছরের এপ্রিল মাসের দিকে ওলে দেশে এলটিই যন্ত্রপাতি আমদানি করে। যদিও তাদের এলটিই বা ওয়াইম্যাক্সের কোনো লাইসেন্স ছিল না। এরপর তারা ওয়াইম্যাক্সের জন্যে আবেদন করে।

– অনন্য ইসলাম, টেক শহর প্রতিবেদক

Related posts

টি মতামত

*

*

Top