রাতুলকে আড়ালে রেখে টেলেক্সের বিরুদ্ধে বিটিআরসি’র মামলা

অনন্য ইসলাম, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : আন্তর্জাতিক গেটওয়ে অপারেটর টেলেক্সের কাছ থেকে সাড়ে ৯২ কোটি টাকা আদায়ে মামলা করেছে বিটিআরসি। মঙ্গলবার তারা সার্টিফিকেট কোর্টে এই মামলা করে।

এর আগে স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রীর মেয়ে সৈয়দা আমরিন রাখি এবং স্ত্রী সৈয়দা আরজুমান্দ বানুর আন্তর্জাতিক গেটওয়ে রাতুল টেলিকমসহ টেলেক্সের বিরুদ্ধে লাইসেন্স বাতিল করতে চায় টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

প্রায় দুইশ কোটি টাকা বাকি পড়ায় বর্তমানে বন্ধ থাকা কোম্পানি দুটির লাইসেন্স বাতিল করার বিষয়ে ১৬০তম কমিশন বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেয় বিটিআরসি।

তবে সরকার রাতুলকে তিন কিস্তিতে টাকা পরিশোধের সুযোগ দিলেও টেলেক্সের বিরুদ্ধে চড়াও হয়েছে তারা।

রাতুল টেলিকমের কাছে এপ্রিল-জুন প্রান্তিকেই বিটিআরসি রেভিনিউ শেয়ারিংয়ের অংশ হিসেবে ৭৫ কোটি ২ লাখ টাকা পাওনা রয়েছে। পরে লাইসেন্স ফিসহ এই অংক ৯৫ কোটি টাকা পেরিয়ে যায়।

মামলার খবর নিশ্চিত করেছেন বিটিআরসি’র এক কমিশনার। তিনি বলেন, টাকা আদায়ের জন্যে তারা সার্টিফিকেট মামলা করেছেন ঢাকার একটি কোর্টে। পাবলিক ফান্ড আদায়ের এই মামলা অনেক ধীর গতিতে সমাধা হবে বলেও জানান তিনি।

টেলেক্সের দু’জন পরিচালকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। মামলা অনুসারে বিটিআরসি’র দাবি প্রতিষ্ঠিত হলে প্রয়োজনে টেলেক্সের সম্পদ বিক্রি করে সরকারের টাকা আদায় করা হবে।

আইজিডব্লিউ’র নীতিমালা অনুসারে প্রতি মিনিট আন্তর্জাতিক টেলিফোন কল দেশে আনার সঙ্গে তিন সেন্ট করে দেশে আসে। আর এই তিন সেন্টের ৫১ দশমিক ৭৫ শতাংশ রেভিনিউ শেয়ারিং হিসেবে বিটিআরসি তথা সরকারকে দিতে হয়।

সব মিলে নয়টি আইজিডব্লিউ রয়েছে বর্তমানে, যারা রেভিনিউ শেয়ারিংয়ের টাকা না দেওয়ায় কল আনতে পারছে না। এর মধ্যে সরকারের একাধিক মন্ত্রী এবং মহাজোটের বিভিন্ন পর্যায়ের শীর্ষ নেতাদের কোম্পানিও রয়েছে।

Related posts

*

*

Top