ছয় আইজিডব্লিউ বন্ধ হচ্ছে মঙ্গলবার

অনন্য ইসলাম, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : রেভিনিউ শেয়ারিংয়ের টাকা বাকি পড়ায় আরও অন্তত ছয়টি আইজিডব্লিউর সংযোগ মঙ্গলবার বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হচ্ছে। এর মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর বর্তমান এক উপদেষ্টা এবং আওয়ামী লীগের সাবেক এক মন্ত্রীর প্রতিষ্ঠান রয়েছে বলে জানা গেছে।

এ ছয় কোম্পানির কাছে অন্তত দুইশ কোটি টাকা বাকি রয়েছে বলে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) সূত্র জানিয়েছে।

IGW-image

নির্বাচনকালীন সরকারের টেলিযোগাযোগমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বিটিআরসিকে বকেয়া পড়া অর্থ আদায়ে কঠোর হতে নির্দেশ দেওয়ার মাত্র এক দিনের মাথায় এ উদ্যোগ নিচ্ছে কমিশন।

জানা গেছে, মঙ্গলবার সংযোগ বন্ধ হতে যাওয়া ছয় অপারেটরের মধ্যে সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী আ ফ ম রুহুল হকের মস ফাইভ লিমিটেড এবং প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এবং জাতীয় পার্টির নেতা জিয়াউদ্দিন বাবলুর ফাস্ট কম লিমিটেড রয়েছে।

এ ছাড়া এসএম কমিউনিকেশন্স, র‌্যাকংস টেল লিমিটেড এবং সিগমা ইঞ্জিনিয়ার্সের নাম নিশ্চিত হওয়া গেছে। তবে অপর একটি কোম্পানির নাম নিশ্চিত করতে পারেনি সূত্র।

এর আগে সেপ্টেম্বরের শেষে বিটিআরসি আরও ছয়টি কোম্পানির সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে। ওই ছয় কোম্পানির কাছে বিটিআরসির পাওনা ৬১৩ কোটি টাকা।

এ দিকে সোমবার টেলিকম রিপোটার্স নেটওয়ার্ক, বাংলাদেশের(টিআরএনবি) সঙ্গে এক বৈঠকে রাশেদ খান মেনন বলেন, ‌’আমি জানি না উপরের কেউ এ বিষয়ে কোনো চাপ দেয় কিনা। তবে আমার দিক থেকে কোনো বাঁধা নেই। সে কারণে আমি লাইসেন্স বাতিলের কথা পর্যন্ত বলেছি। তবে জনগনের টাকাও আদায় করতে হবে।

বর্তমানে সংযোগ বিচ্ছিন্ন থাকা ছয়টি আইজিডব্লিউর মধ্যে সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী আবুল হোসেনের কোম্পানি ভিশন টেলের কাছে পাওনা ১৪৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা। সাবেক স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবীর নানকের কোম্পানির কাছে পাওনা ৯৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা। নারায়নগঞ্জের সাবেক এমপি শামীম ওসমানের কোম্পানি কে টেলিকমিউনিকেশন্সের কাছে পাওনা সাড়ে ৯১ কোটি টাকা।

এর বাইরে বেস্টটেকের কাছে ১২৭ কোটি, টেলেক্সের কাছে সাড়ে ৯২ এবং অ্যাপল গ্লোবটেল লিমিটেডের কাছে ৫৮ কোটি টাকা বকেয়া পড়েছে। সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত এ কোম্পানিগুলোর কাছে এ টাকা বাকি পড়েছে। তারপর থেকে এগুলোর আর কোনো খোঁজ নেই।

Related posts

*

*

Top