বকেয়া আদায়ে বিটিআরসির প্রতি নির্দেশ মন্ত্রীর

অনন্য ইসলাম, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : গত কয়েক বছরে বকেয়া পড়া প্রায় তিন হাজার কোটি টাকা আদায়ে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) কে কঠোর হতে নির্দেশ দিয়েছেন নতুন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন। রোববার বিটিআরসি কার্যালয়ে কর্মকর্তাদের সঙ্গে পরিচিতি অনুষ্ঠানে বকেয়া টাকা আদায়ে প্রয়োজনে লাইসেন্স বাতিল বা আরও কঠোর হওয়ার কথা বলেন মন্ত্রী।

এর আগে জুন মাস পর্যন্ত বিভিন্ন অপারেটরের কাছে ২ হাজার ৬১০ কোটি ৯১ লাখ টাকা বাকি পড়ে বিটিআরসি’র। তবে এর মধ্যে সরকারি কোম্পানির কাছেই বিটিআরসি’র পাওনা সবচেয়ে বেশী। ইতিমধ্যে এই বাকির পরিমান বেড়ে তিন হাজার কোটি টাকা পেরিয়ে গেছে।

BTRC_techshohor

মন্ত্রী বলেন, আমি জানি না উপরের কেউ এ বিষয়ে কোনো চাপ দেয় কিনা। তবে আমার দিক থেকে কোনো বাঁধা নেই। আপনারা টাকা আদায়ের চেষ্টা করেন। প্রয়োজনে দু’একটি লাইসেন্স বাতিল করে দেন।

তিনি বলেন, আইজিডব্লিউদের কাছে বিটিআরসি’র অনেক টাকা বাকি পড়ে আছে বলে শোনা যায়। এ বিষয়ে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে। রেভিনিউ শেয়ারিংয়ের টাকা না দিয়ে কেউ পার পেয়ে যাবে সেটা হতে পারে না।

পরে বিটিআরসি’র চেয়ারম্যান সুনীল কান্তি বোস বলেন, তারা এ বিষয়ে জিরো টলারেন্স অবস্থান নিয়েছেন।

এর আগে বাকির তালিকায় আইজিডব্লিউগুলোর অংক পাওনা ৫শ কোটি ১৩ লাখ টাকা দেখানো হলেও ইতিমধ্যেই তা ১ হাজার ১১৫ কোটি টাকা পেরিয়ে গেছে। আর কেবল ছয়টি বড় কোম্পানির কাছেই এ সংক্রান্ত ৬১৩ কোটি টাকা পাওনা রয়েছে।

সাবেক যোগাযোগ মন্ত্রী আবুল হোসেনের কোম্পানি ভিশন টেলের কাছে পাওনা ১৪৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা। সাবেক স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবীর নানকের কোম্পানির কাছে পাওনা ৯৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা। নারায়নগঞ্জের সাবেক এমপি শামীম ওসমানের কোম্পানি কে টেলিকমিউনিকেশন্সের কাছে পাওনা আরও সাড়ে ৯১ কোটি টাকা।

এর বাইরে আরো তিন কোম্পানি বেস্টটেকের কাছে ১২৭ কোটি, টেলেক্সের কাছে সাড়ে ৯২ কোটি এবং অ্যাপল গ্লোবটেল লিমিটেডের কাছে ৫৮ কোটি টাকা বকেয়া পড়েছে। সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত কোম্পানিগুলোর কাছে এই টাকা বাকি পড়েছে। তারপর থেকে তাদের আর কোনো খোঁজ নেই।

মন্ত্রী একই সঙ্গে আন্তর্জাতিক কল টার্মিনেশনে বৈধ কল বৃদ্ধির ওপর জোর দেন। তিনি বলেন, আপনারা বলছেন বৈধ কল বেড়েছে। কিন্তু যখনই আমি বিদেশের কারো কল পাই স্থানীয় নম্বর দেখি। তাতে বুঝতে পারি পরিস্থিতি কোন দিকে যাচ্ছে।

অনুষ্ঠানে টেলিযোগাযোগ সচিব আবুবকর সিদ্দিক বলেন, অবৈধ কল টার্মিনেশন বা ভিওআইপি এখন ঢাকা থেকে বেরিয়ে জেলা উপজেলা এমনকি আরও প্রত্যন্ত অঞ্চলে চলে যাচ্ছে। বিটিআরসিকে এ বিষয়ে মনোযোগ দিতে হবে।

Related posts

*

*

Top