ভিওআইপি বিরোধী অভিযানে বাংলালিংকের আয়ে ধাক্কা

অনন্য ইসলাম, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল অপারেটর বাংলালিংকের আয় টানা দুই প্রান্তিকে কমেছে।  তৃতীয় প্রান্তিকের আয় গত বছরের একই সময়ের চেয়ে কমেছে ১৫ শতাংশ। ভিওআইপির বিরুদ্ধে সরকারের অভিযানের কারণে সর্বশেষ দুই প্রান্তিকে আয় কমেছে বলে দাবি করেছে অপারেটরটির মূল কোম্পানি ভিম্পেলকম।

ভিম্পেলকম গত বুধবার তৃতীয় প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর) প্রতিবেদন প্রকাশ করে।  এ সময়ে আয় হয়েছে এক হাজার কোটি টাকা। গত বছর জুলাই-সেপ্টেম্বর প্রান্তিকে আয় হয়েছিল ১২’শ কোটি টাকা। প্রকাশিত আর্থিক প্রতিবেদনে আয় কমার কারণ হিসাবে অবৈধ কল টার্মিনেশনের বিরুদ্ধে নেওয়া নিয়ন্ত্রণ সংস্থার পদক্ষেপকে মূল কারণ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

এর আগে এপ্রিল-জুন প্রান্তিকেও বাংলালিংকের আয় কমেছিল। আয় কমার এ বাস্তবতা মেনে নিয়েছে অপারেটরটির মূল মালিকরা। এ বিষয়ে অবশ্য বাংলালিংকের স্থানীয় কোনো কর্মকর্তা মন্তব্য করতে রাজি হননি।

Banglalink VOIP_ Tech Shohor

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আয় কমলেও এ সময়ে গ্রাহক সংখ্যা ৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে ২ কোটি ৮১ লাখে পৌঁছেছে। গ্রাহক প্রতি আয়ের পরিমাণও আগের চেয়ে কমেছে। একই সঙ্গে কমেছে গ্রাহকদের বাংলালিংক ব্যবহারের প্রবণতাও। এখন একজন গ্রাহক মাসে ১৮৯ মিনিট বাংলালিংক নেটওয়ার্ক ব্যবহার করছেন। গত বছর একই সময়েও এর পরিমাণ ছিল ২২৫ মিনিট।

স্থানীয় কোনো কর্মকর্তা কথা না বললেও প্রতিবেদনে ভিম্পেলকমের গ্রুপ সিইও জো লন্ডার বলেছেন, তৃতীয় প্রান্তিকটি তাদের জন্যে কেটেছে রেগুলেটরি প্রেসার এবং তীব্র প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে।

এর আগে ২০০৮ সালে ভিওআইপির অবৈধ কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে ১৬৮ কোটি টাকা জরিমানার মুখোমুখি হয়েছিল  বাংলালিংক।

Related posts

*

*

Top