সিমের ভুয়া নিবন্ধন নিয়ে গোয়েন্দা সংস্থার আশংকা

অনন্য ইসলাম, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : মোবাইল ফোনের সিম নিবন্ধন যথাযথভাবে না হওয়ায় এর অপব্যবহার আরও বাড়তে পারে বলে আশংকা প্রকাশ করেছে একটি গোয়েন্দা সংস্থা। সাম্প্রতিক সময়ে রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতায় এ সুযোগ নিয়ে অপরাধমূলক কার্যক্রম বাড়তে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছে সংস্থাটি।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রনালয় এবং টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন বিটিআরসিকে এ আশংকার কথা জানিয়ে পদক্ষেপ নিতে সম্প্রতি চিঠি দিয়েছে গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তারা। মূলত সিম নিবন্ধনের নিয়ম কানুন না মানার কারণেই এ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে বলে কর্মকর্তাদের অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে।

সংস্থাটির গোয়েন্দাদের মতে, মোবাইল ফোনের সিমের মূল্য কম হওয়ায় এমনিতেই বিভিন্ন ধরণের অপরাধমূলক কার্যকলাপ বৃদ্ধি পেয়েছে। পাশাপাশি বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে দেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি করতে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে বিভিন্ন রকম রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকাণ্ড পরিচালিত হচ্ছে বলে বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা যাচ্ছে। এ ক্ষেত্রে মোবাইল সিমের সহজলভ্যতা ও স্বল্পমূল্যের কারণে অপরাধীচক্র প্রতিনিয়ত সিম পরিবর্তনের মাধ্যমে এ ধরণের কর্মকান্ড চালিয়ে আসছে এবং ভবিষ্যতে তা ব্যাপক হারে বাড়বে বলে মনে করছেন তারা।

Mobile SIM Cards_techshohor

মন্ত্রণালয় ও বিটিআরসিকে ২২ অক্টোবর পাঠানো চিঠিতে সংস্থাটি জানায়, সিম নিবন্ধনের ক্ষেত্রে গাফিলতির কারণেই এ অবস্থার সৃস্টি হচ্ছে। সিম বিক্রির সময় গ্রাহকদের পরিচয় যথাযথভাবে নিবন্ধনের নিদের্শনা থাকলেও এ বিষয়ে অগ্রগতি দেখা যায়নি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিটিআরসির চেয়ারম্যান সুনীল কান্তি বোস বলেন, সিম নিবন্ধনের জন্য গত বছর থেকে কমিশন কড়াকড়ি আরোপ করেছে। কিন্তু নানা করণে আগের অনেক পুরনো ভুল নিবন্ধিত সিম বাজারে রয়ে গেছে। ফলে পরিস্থিতি পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হচ্ছে না। তবে তাদের অবস্থান থেকে তারা সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বলেও জানান তিনি।

এ দিকে মোবাইল ফোন অপারেটরদের সংগঠন অ্যামটবও এ বিষয়ে বিটিআরসিকে কয়েক দফা চিঠি দিয়েছে। তারা বলছে, অপারেটররা জাতীয় পরিচয়পত্রের ডাটাবেইজ ব্যবহার করতে পারে না। এ জন্য সিম কিনতে আগ্রহী ব্যক্তিদের পরিচয় যাচাই বাছাই করা সম্ভব হচ্ছে না।

Related posts

*

*

Top