ল্যাপটপের ব্যাটারি বিষয়ক জিজ্ঞাসা ও সমাধান

তুসিন আহমেদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : হালের আমলে সবচেয়ে বেশি জানতে চাওয়া প্রশ্নগুলোর মধ্যে শীর্ষে রয়েছে ল্যাপটপের ব্যাটারি ব্যবহার সর্ম্পকিত। ফ্রিকোয়েন্ট কশ্চিন অ্যান্ড অ্যানসার (এফএকিউ) গুলোর মধ্যে ব্যাটারির বিষয়ে জানতে চাওয়ার সংখ্যাই বেশি। কেননা ল্যাপটপের অন্যতম প্রধান দিক বহনযোগ্যতার সুবিধা পাওয়ার বিষয়টি ব্যাটারির ওপর নির্ভর করে।

ব্যাটারি বিষয়ে ব্যবহারকারীদের সবচেয়ে সাধারণ প্রশ্ন ল্যাপটপের ব্যাটারি কিভাবে ব্যবহার করতে হয়? কখন চার্জ দিতে হবে? এ ছাড়া ব্যাটারির চার্জ যতক্ষণ থাকার কথা ততক্ষণ থাকছে না, ব্যাটারি গরম হয়ে যাচ্ছে-এমন সব প্রশ্ন করা হয়ে থাকে।

সঠিক যত্ন নিলে ও সচেতনভাবে ব্যবহার করলে ব্যাটারির কার্যক্ষমতা বাড়বে। ল্যাপটপের ব্যাটারি ব্যবহারের বিভিন্ন দিক নিয়ে এ টিউটোরিয়াল।

laptop-battery-life_techshohor

ব্যাটারি চার্জের সময় আসল চার্জার ব্যবহার করা উচিত।

বাহ্যিক তাপ ব্যাটারির শক্তিকে কমিয়ে দেয়। তাই সরাসরি সূর্যের আলোয় ল্যাপটপ ব্যবহার না করাই উচিত।

ল্যাপটপের ভেতরের তাপ যাতে সহজে বাইরে বের হয়ে আসে, এ জন্য বাতাস বেরোনোর রাস্তা পরিষ্কার রাখতে হবে।

চার্জ প্রায় ৪০ শতাংশ রেখে ব্যাটারি খুলে শুষ্ক ও খোলামেলা জায়গায় রাখলে সেলের মান বাড়ে।

ব্যাটারির চার্জ ১০০% হলে সেটি চার্জ দেয়া বন্ধ করে দিতে হবে।

এক্সটারনাল যন্ত্রাংশ বেশি পরিমাণে বিদ্যুৎশক্তি অপচয় করে থাকে। এ জন্য ইউএসবির মাধ্যমে ল্যাপটপে যুক্ত করা কোনো ডিভাইস যেমন পেনড্রাইভ, এক্সটার্নাল ড্রাইভার, ইউএসবি ক্যাবল, ইউএসবি রাউটার ইত্যাদি লাগিয়ে রাখলে চার্জ দ্রুত শেষ হয়। কাজ শেষ হলে এ ডিভাইসগুলো সড়িয়ে ফেলুন। বহনযোগ্য হার্ডডিস্ক থেকে সরাসরি ফাইল না খুলে কপি করে তারপর কাজ করুন।

ল্যাপটপের সিডি বা ডিভিডি ড্রাইভে অযথা কোনো ডিস্ক রাখলে ডিস্ক ঘোরার সময় চার্জ খরচ হয় বেশি। তাই অযথা ডিভিডি ড্রাইভে সিডি বা ডিভিডি না রেখে বের করে ফেলা উচিত।

স্মার্টফোনের মতো ল্যাপটপের ডিসপ্লে অতিরিক্ত চার্জ ব্যয় করে। এতে ব্যাটারির আয়ু দ্রুত কমে। তাই ল্যাপটপের উজ্জ্বলতা যতটা সম্ভব কমিয়ে রাখুন। এ ছাড়া কিবোর্ডের ব্যাকলাইট বন্ধ করে রাখুন।

ল্যাপটপ অতিরিক্ত গরম হলে এর ভেতরের পাখা দ্রুত ঘুরতে থাকে- যা ব্যাটারি থেকে অতিরিক্ত চার্জ ব্যবহার করে। তাই অতিরিক্ত গরম হওয়া ঠেকাতে ল্যাপটপ কুলার ব্যবহার করার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।

ল্যাপটপ স্ট্যান্ডবাই মোডে না রেখে হাইবারনেট মোডে রাখুন। এতে কিছুটা হলেও তা চার্জ সাশ্রয় করবে।

উইন্ডোজনির্ভর ল্যাপটপগুলোতে পাওয়ার প্ল্যান সেটিংস বিল্ট ইন থাকে। এ পাওয়ার প্ল্যান থেকে অতিরিক্ত চার্জ গ্রহণ করে এমন বিষয়গুলো বন্ধ করে রাখতে পারেন।

ব্যাটারির আয়ু-সম্পর্কিত তথ্য জানতে ব্যাটারি কেয়ার নামের অ্যাপ্লিকেশন (অ্যাপ) ব্যবহার করতে পারেন। অ্যাপটি ব্যাটারির চার্জ চক্র, সিপিইউ ব্যবহার, তাপ সংক্রান্ত নানা তথ্য জানিয়ে দেবে আপনাকে। অ্যাপের তথ্য অনুযায়ী পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া যাবে। এতে দূরের কোনো ভ্রমণে কিংবা গুরুত্বপূর্ণ কাজের সময় বেকায়দায় পড়তে হবে না।

Related posts

*

*

Top