ভারতে ফেইসবুকের ওয়াই-ফাই সেবা

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে অনলাইনের আওতায় আনতে এবার ভারতে এক্সপ্রেস ওয়াই-ফাই ইন্টারনেট চালু করেছে শীর্ষ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক। এর আগে ফ্রি বেসিকের মাধ্যমে ‘বিনামূল্যের ইন্টারনেট’ সেবা চালু করলেও সমালোচনার মুখে পড়ে সেবাটি। এটি ইন্টারনেট ডট অর্গের দ্বিতীয় প্রচেষ্ঠা।

বৃহস্পতিবার দেশটির উত্তরখন্ড, গুজরাট, রাজস্থান ও মেঘালয়ে বাণিজ্যিকভাবে এই ওয়াই-ফাই সেবা চালু করা হয়। যার মাধ্যমে লাখ লাখ গ্রাহক কম খরচে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন।

facebook-india-express-wifi-TechShohor

দেশটির চারটি রাজ্যে নতুন এই সেবার জন্য প্রায় ৭০০ হটস্পট চালু করা হয়েছে। ভারতের পাশাপাশি বর্তমানে কেনিয়া, নাইজেরিয়া, ইন্দোনেশিয়া ও তানজানিয়াতে এক্সপ্রেস ওয়াই-ফাই প্রোগ্রাম চালু আছে।

ফেইসবুকের এশিয়ার প্যাসিফিক অঞ্চলের কানেক্টিভিটি সল্যুউশনের আঞ্চলিক প্রধান মুনিশ শেঠ জানান, নতুন এই সেবা দিতে স্থানীয় উদ্যোক্তা ও ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের সাথে যৌথভাবে কাজ করছে ফেইসবুক।

একইদিনে ভারতের সবচেয়ে বড় টেলিকম অপারেটর এয়ারটেলের সাথেও চুক্তি করেছে ফেইসবুক। এই চুক্তির মাধ্যমে উভয় প্রতিষ্ঠান যৌথভাবে অতিরিক্ত ২০ হাজার ওয়াই-ফাই হটস্পট তৈরি করবে।

দিনে ১০ থেকে ২০ রুপিতে এবং মাসে ২০০ থেকে ৩০০ রুপিতে স্থানীয় উদ্যোক্তারা নতুন এই সেবার ডেটা প্যাকেজ বিক্রি করবে। অনলাইন ও অফলাইন স্টোরের মাধ্যমে গ্রাহকরা এসব প্যাকেজ কিনতে পারবেন।

ম্যাশেবল অবলম্বনে রুদ্র মাহমুদ

ফ্রি ওয়াই-ফাইতেও গ্রাহকের পরিচয় নিবন্ধন লাগবে

অনন্য ইসলাম, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ফ্রি ওয়াই-ফাই ব্যবহারেও গ্রাহককে পরিচয়সহ নিবন্ধন করতে হবে।

নতুন এ নির্দেশনার ফলে এখন থেকে যেসব স্থানে ফ্রি ওয়াই-ফাই হটস্পট আছে, সেগুলোতে হুটহাট গ্রাহক চাইলেই ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন না। নিয়ম মেনে তাদের পরিচয়ন নিবন্ধন করতে হবে।

নতুন এক প্রজ্ঞাপনে এমন নির্দেশনাই দিয়েছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন বিটিআরসি। নিরাপত্তামূলক এ ব্যবস্থা কার্যকর করতে সংশ্লিষ্টদেরকে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়েছে।

free-wifi_techshohor

একই নির্দেশনায় বিটিআরসি সব সাইবার ক্যাফেতে বাধ্যতামূলক সিসিটিভি স্থাপনের নির্দেশও দিয়েছে। একই সঙ্গে ক্যাফেতে যারা আসবেন তাদের পরিচয় নিশ্চিত করা এবং তা অন্তত ১২ মাস পর্যন্ত সংরক্ষণের নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে।

গত বুধবার কমিশন সব ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার, ইন্টারনেট গেটওয়ে, সাইবার ক্যাফে এবং পুলিশ ও র‍্যাবকে এমন নির্দেশনার চিঠি দিয়েছে।

দুই সপ্তাহ আগে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে নিরাপত্তা বিষয়ক এক বৈঠকে এ বিষয়ে আলোচনা হয়। বৈঠকে ফ্রি ওয়াই-ফাই থেকে হুমকি ধামকিসহ নানা ধরনের অপরাধমূলক কাজে ইন্টারনেট ব্যবহারের তথ্য তুলে ধরা হয়।

এ কারণে কড়াকড়ি আরোপের এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার্স অ্যাসোসিয়েশনের (আইএসপি) সভাপতি এমএ হাকিম।

হাকিম বলেন, ফ্রি হটস্পট থেকে অনেক সময় অপরাধীরা নানা রকম সুবিধা নিয়ে থাকে। এ জন্য বিনামূল্যের এ সেবা বন্ধ না করে গ্রাহক পরিচয় নিশ্চিত করতে এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে তারা মনে করছেন।

নতুন নির্দেশনায় গ্রাহক ফ্রি স্পটে ইন্টারনেট ব্যবহার কতে গেলে তার নাম, পরিচয়, নিবন্ধিত মোবাইল নম্বর দিয়ে নিবন্ধন করতে হবে। এরপর একবারের জন্য ব্যবহার উপযোগী পাসওয়ার্ড পাবেন তিনি। এ তথ্যের ভিত্তিতেই সেখানে ফ্রি ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন।

এ নির্দেশনা কার্যকর হলে ফ্রি ওয়াই-ফাই ব্যবহার করে অপরাধমূলক কার্যক্রমের হার কমবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

বর্তমানে দেশে হাজার খানেক ফ্রি ওয়াই-ফাই হটস্পট আছে। এর মধ্যে বাস, ট্যাক্সি ক্যাব, হোটেল-রেস্টুরেন্টসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে হটস্পট রয়েছে।

ফ্রি হটস্পটের বাইরেও যেখানে ওয়াই-ফাই আছে, সেগুলো ব্যবহারের ক্ষেত্রেও নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দায়িত্ব সংশ্লিষ্ট গ্রাহককেই নিতে হবে বলে জানিয়েছে বিটিআরসি।

তাছাড়া পাড়া মহল্লায় যারা অবৈধভাবে ইন্টারনেট সেবার ব্যবসা করছেন তাদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনার জন্য বিটিআরসি পুলিশ ও র‍্যাবকে অনুরোধ করেছে।

টোটোলিঙ্ক এ৮৫০আর : ডুয়াল ব্যান্ডে এগিয়ে

এস এম তাহমিদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ল্যাপটপ, স্মার্টফোন বা ট্যাব প্রায় সব স্মার্ট গ্যাজেটে এখন বেশিরভাগই ওয়াই-ফাই ইন্টারনেট ব্যবহার করেন। তবে দুঃখজনক হলেও সত্যি, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই আমরা ওয়াই-ফাই রাউটার কেনার সময় সবচাইতে কম মনযোগ দিয়ে থাকি। ফলে প্রায়ই লিমিটেড কানেক্টিভিটি, খারাপ সিগন্যাল ও কম স্পিডের সমস্যায় পরতে হয়। এ কারণে রাউটার কেনার আগে বেশ কিছু বিষয় খেয়াল রাখতে হবে।

এ দেশের বাজারে টোটোলিঙ্ক নামটি তেমন জনপ্রিয় না হলেও অনেক দেশে বাজেট রাউটারের মধ্যে এটি বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে।

এ ব্র্যান্ডের এ৮৫০আর মডেলের রাউটারটি বাজেটের মাঝে সবচাইতে ভাল স্পিড ও নির্ভরযোগ্যগুলোর একটি।

এক নজরে টোটোলিঙ্ক এ৮৫০আর

  • চারটি ল্যান ও একটি ওয়্যান পোর্ট (১০/১০০ মেগাবিট)
  • ২.৪ গিগাহার্জ ৮০২.১১এন ও ৫ গিগাহার্জ ৮০২.১১এসি ওয়াই-ফাই, যা সব মিলিয়ে ১২০০ মেগাবিট পর্যন্ত নেট স্পিড যোগান দিতে সক্ষম
  • চারটি ওয়াই-ফাই অ্যান্টেনা

৫ গিগাহার্জ ওয়াই-ফাই সিগন্যাল মূলত যারা হাই ডেফিনিশন ভিডিও স্ট্রিম, ফাইল শেয়ার বা তারবিহীন ডিসপ্লে ব্যবহার করেন তাদের জন্য তৈরি।

একটি ফাইল সার্ভারে সব ফাইল রেখে ফোন, ট্যাবলেট, ল্যাপটপ বা পিসি সবকিছু থেকে ব্যবহার করার সুবিধা থাকলে বার বার ফাইল ট্রান্সফারের সমস্যা অনেক কমানো সম্ভব। এ জন্য ৫ গিগাহার্জ ওয়াই-ফাই খুবই জরুরি। কেননা ২.৪ গিগাহার্জ ওয়াই-ফাইয়ের লেটেন্সি (কমান্ড দেওয়া ও কাজ শুরুর মাঝের সময়) সমস্যা এতে নেই।

ডিজাইন
সাদা রঙের চার কোনা বাক্সের মতো রাউটারটির তৈরিতে প্লাস্টিক ব্যবহার করা হয়েছে। তবে সাধারণ ব্যবহারে এটি ক্ষতিগ্রস্ত হবার সম্ভাবনা নেই।

এর ওপরের অংশে রয়েছে চারটি অ্যান্টেনা, পেছনের পোর্টগুলো ও নীচে প্রয়োজনীয় সব তথ্য সম্বলিত স্টিকার। মূলত অন্যান্য রাউটারের দেখতে তেমন কোনো পার্থক্য নেই।

সফটওয়্যার
প্রায় সব রাউটারের ক্ষেত্রেই সকল ফিচার ব্যবহারের জন্য ওয়েব পোর্টাল ব্যবহার করা হয়। টোটোলিঙ্কের ক্ষেত্রেও ব্যতিক্রম নয়।

এতে তেমন ব্যাতিক্রমি ফিচার না থাকলেও, প্রায় সকল প্রকারের ব্রডব্যান্ড কানেকশন (ডিএইচসিপি, স্ট্যাটিক আইপি ও পিপিটিপি), আলাদা আলাদা ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্ক, কানেকশন প্রতি স্পিড কন্ট্রোল- এমন সব জরুরি ফিচার ঠিকই রয়েছে।

পারফরমেন্স
একটি রাউটারের মূল পারফরমেন্স নির্ভর করে সেটির স্পিডের ওপর। বাজেট রাউটারের মধ্যে এ৮৫০আর সেদিক থেকে বেশ এগিয়ে।

২.৪ গিগাহার্জ ব্যান্ডে ৩০০ মেগাবিট ও ৫ গিগাহার্জ ব্যান্ডে ৮৬৭ মেগাবিট পর্যন্ত স্পিড দিতে সক্ষম এটি। তবে সাধারণত ১০০ মেগাবিট পর্যন্ত স্পিড ঠিকঠাক পাওয়া যাবে।

এর মূল আকর্ষণ ৫ গিগাহার্জ ব্যান্ডটিতে প্রায় কোনও লেটেন্সি ছাড়াই তথ্য আদান প্রদান করার সুবিধা থাকায় তারবিহীন ডিসপ্লে, ভিডিও স্ট্রিমিং ও গেইম খেলার মতো কাজ করতে কোনও সমস্যা হবে না।

শুধু তাই নয়, আপলোড ও ডাউনলোড সমান তালে চালিয়ে যাবার জন্য এতে মিমো টেকনোলজি ব্যাবহার করা হয়েছে।

পদার্থবিদ্যাগত সীমাবদ্ধতার কারণে ৫ গিগাহার্জ ওয়াই-ফাইয়ের রেঞ্জ কখনই দুটি রুমের বেশি না হলেও, ২.৪ গিগাহার্জ ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কটির রেঞ্জ যথেষ্ট ভালো।

অনায়াসে একটি ১৫০০-২০০০ বর্গফুট বাসা বা অফিসের যে কোনও জায়গা থেকে ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্ক পাওয়া যাবে।

রাউটারটির কেসিংয়ে প্রচুর তাপ বেড়িয়ে যাওয়ার ভেন্ট থাকার ফলে রাউটারটি ওভারহিট হয়ে হ্যাং করার সম্ভাবনা নেই।

মূল্য
বাজারে ৪৫০০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে রাউটারটি।

এক নজরে ভাল

  • ডুয়াল ব্যান্ড ওয়াই-ফাই, ভালো স্পিডে ডেটা ট্রান্সফারের সুবিধা
  • ভাল রেঞ্জ
  • চমৎকার থার্মাল ডিজাইন

এক নজরে খারাপ

  • গিগাবিট ল্যান ও ওয়্যান নেই। তবে এ দামে গিগাবিট ল্যান ও ডুয়াল ব্যান্ড ওয়াই-ফাই এখনও বাজারে নেই
  • ইউএসবি পোর্ট নেই। ফলে ফাইল সার্ভার বা প্রিন্টার শেয়ার করার সুবিধা নেই

আরও পড়ুন: 

ভারতে গুগলের ফ্রি ওয়াই-ফাই

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ডিজিটাল ইন্ডিয়া বাস্তবায়নে সহায়তা করতে দেশটির বিভিন্ন রেল স্টেশনে বিনামূল্যের ওয়াই-ফাই ইন্টারনেট সেবা দিচ্ছে প্রযুক্তি জায়ান্ট গুগল।

গুগল রেলওয়্যার নামের এ সেবা মুম্বাইয়ের আটটি রেল স্টেশনে সোমবার উদ্বোধন করা হয়।

চলতি বছরের প্রথমদিকে পরীক্ষামূলকভাবে এসব স্টেশনে এ সেবা চালু করা হয়েছিল। ১ জিবিপিএস গতিতে এ সেবা দেয়া হচ্ছে। যাত্রীরা যাতে নিরবিচ্ছিন্নভাবে ওয়াই-ফাই সেবা পান সেজন্য ৩১৮টি অ্যাক্সেস পয়েন্ট, ১২০টি অ্যাক্সেস সুইচ ও ৩০টি ফাইবার সুইচ ইনস্টল করা হয়েছে।

Free Wifi by Google at India-TechShohor

ব্যবহারকারীরা মোবাইল নাম্বার প্রদানের মাধ্যমে পাওয়া পিন ব্যবহার করে এ সেবা পাবেন।

দেশটির আরও ২৪ স্টেশনে ওয়াই-ফাই সেবা চালুর প্রক্রিয়া চলছে। গুগল জানিয়েছে, বছরের শেষ নাগাদ ভারতের শতাধিক স্টেশনে বিনামূল্যের এ সেবা দেওয়া হবে।

ফোনএরিনা অবলম্বনে রুদ্র মাহমুদ

ঢাকা চাকায় ফ্রি ওয়াই-ফাই

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : রাজধানীর অভিজাত এলাকা গুলশানে চালু হয়েছে ‘ঢাকা চাকা’ নামের বিশেষ বাস সেবা। চলতি পথে আরামদায়ক যাতায়াতের পাশাপাশি যাত্রীরা যাতে এই সময়ে ইন্টারনেটের মাধ্যমে যোগাযোগ ও প্রয়োজনীয় কাজটি সারতে পারেন তার জন্য রয়েছে ওয়াই-ফাই সুবিধা, তাও আবার বিনামূল্যে।

কুটনৈতিক এলাকাকে নিরাপদ করতে বুধবার থেকে বিশেষ এই বাস সেবা চালু করেছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি)। স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন বিশেষ সার্ভিসের পাশাপাশি বিশেষ রিকসা সেবাও উদ্বোধন করেন।

Dhaka Chaka free wifi-TechShohor
                                                                                 ছবি : সংগৃহীত

গুগল-বনানীর দুটি রুটে প্রাথমিকভাবে ২০টি বাস চলাচল করবে। জনপ্রতি ১৫ টাকায় যেকোনো দুরত্বে যাওয়া যাবে। এই এসি বাসগুলোতে বাড়তি হিসেবে যাত্রীরা বিনামূল্যের ওয়াই-ফাই সেবা ব্যবহার করতে পারবেন। ফলে বাসে বসেই মেইল আদান প্রদান বা সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যমগুলো ব্যবহার করতে পারবেন। কিংবা অনলাইনে বিনোদন বা খবর পড়ারও সুযোগ পাবেন।

এছাড়া বাসে টেলিভিশন দেখা ও গান শোনার ব্যবস্থাও রয়েছে। যানজটে ইঞ্জিন বন্ধ রাখা হলেও বাসগুলোতে এসি চলবে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্টরা।

একটি রুটে নাভানা মোড়-পুলিশ প্লাজা-গুলশান ১-রুপায়ন হয়ে গুলশান-২ পর্যন্ত এবং আরেকটি রুটে কাকলী-বনানী-গুলশান-২ হয়ে মার্কিন দূতাবাস পর্যন্ত এই বাসগুলো চলাচল করবে।

রুদ্র মাহমুদ

রাউটারের ওয়াই-ফাই ধীর হলে কী করবেন

তুসিন আহমেদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে স্মার্ট ডিভাইসের ব্যবহার বাড়ছে। অনলাইনে কাজের জন্যই বেশি ব্যবহার হচ্ছে । এ জন্য ইন্টারনেটের খরচ বাঁচাতে অনেকেই বাসার ব্রডব্যান্ড সংযোগটিকে ওয়াই-ফাই করে থাকেন।

তবে নানা কারনে এ ওয়াই-ফাই সংযোগের গতি ধীর হয়ে যায়। ফলে তা নিয়ে বিপাকে পড়তে হয় ব্যবহারকারীদের।

কিভাবে ওয়াই-ফাই ইন্টারনেট সংযোগের গতি আরও বাড়িয়ে তোলা যাবে তা এই টিউটোরিয়ালে তুলে ধরা হলো।

wifi-router-techshohor
অচেনা ব্যবহারকারী
ওয়াই-ফাই সংযোগের গতি কমার প্রথম কারণ হতে পারে একত্রে একাধিক ব্যক্তির ওই সংযোগের ইন্টারনেট ব্যবহার। অনেক সময় বাসার আশাপাশের অনেকেই পাসওয়ার্ড জেনে যায়। ব্যবহারকারীর অগোচরে তারা ইন্টারনেট ব্যবহার করতে থাকেন।

তাই ইন্টারনেটের গতি ধীর মনে হলে প্রথমে চেক করতে হবে অচেনা বা অজানা কারও আপনার ওয়াই-ফাই ব্যবহারের বিষয়টি। এটি চেক করতে ওয়াই-ফাই রাউটারের ড্যাশবোর্ড প্রবেশ করে আইপিগুলো চেক করতে হবে।

এতে দেখা যাবে বর্তমানে কয়টি সংযোগ আপনার ওয়াই-ফাই ব্যবহার করছে। সেখান থেকে অচেনা আইপিগুলো ব্লক করে দেওয়া যায়।

এ ছাড়া ওয়াই-ফাইয়ের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করেও এ সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

স্বয়ংক্রিয় আপডেট
কম্পিউটার বা স্মার্টফোনে স্বয়ংক্রিয় আপডেট অনেক সময় চালু থাকে। ফলে ব্যাকগ্রাউন্ডে অনেক অ্যাপ্লিকেশন আপডেট হতে থাকে। এতে ইন্টারনেটের গতি কমে যায়। ব্রাউজ করার সময় ওয়াই-ফাই সংযোগ ধীর মনে হয়।

তাই ওয়াই-ফাই সংযোগ স্বাভাবিকের চেয়ে ধীর মনে হলে ডিভাইসটিতে কোনো সফটওয়্যার অটো আপডেট হচ্ছে কিনা তা চেক করে নিতে হবে।

wifi-techshoor

রাউটারের অবস্থান
রাউটারটি বাসার কোন জায়গায় অবস্থান করছে সেটির ওপরও নির্ভর করে এর গতি। তাই ওয়াই-ফাই সংযোগের গতি কম হলে সেটি এমন এক স্থানে রাখতে হবে যেখান থেকে ডিভাইসের দূরত্ব যাবে খুব বেশি মনে না হয়।

এক্ষেত্রে রাউটারটি উপরে রাখা হলে খুব ভালো ফল মিলবে। যত উপরে রাখা হবে ততো ভালো গতি পাওয়া যাবে। রাউটারটিকে উপরে রাখা হলে এর রেডিও ওয়েভগুলো সর্বোচ্চভাবে ব্রডকাস্ট করতে সক্ষম হয়। তাই সম্ভব হলে রুমের  উঁচু স্থানে রাউটারটি রাখা ভালো।

এ ছাড়া রাউটারটি ব্যবহারকারীর রুমের কাছাকাছি রাখলে ভালো গতি পাওয়া যাবে।

আরও পড়ুন 

রেস্তোরা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, পরিবহনে রবির ফ্রি ওয়াই-ফাই

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ওয়াই-ফাই হটস্পটের মাধ্যমে ইন্টারনেট সেবা দিতে দেশের ৫০০টি শীর্ষ স্থানীয় রেস্তোরা, ক্যাফে ও রিটেইল আউটলেট, ১০০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ১০টি পাবলিক প্লেস (বিমানবন্দর ও রেল স্টেশন) এবং ৩৫০টি বাস, ট্যাক্সি ও ট্রেনে উচ্চগতির ওয়াইফাই সেবা প্রদান করবে মোবাইল অপারেটর রবি।

আগামী ছয় মাসের মধ্যে এসব স্থানে ওয়াই-ফাই হটস্পট চালু করা হবে। যেসব রবি গ্রাহক কমপক্ষে এক গিগাবাইট মোবাইল ইন্টারনেট প্যাক কিনেছেন তারা এই ওয়াইফাই বিনামূল্যে ব্যবহার করতে পারবেন।

মঙ্গলবার রাজধানীর একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানিয়েছে রবি।

Robi WiFi Service-Techshohor

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ওয়াইফাই হটস্পট স্থাপন ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য আমরা, অ্যাকসেসটেল ও কিউবির সঙ্গে চুক্তি করেছে রবি। বাস ও ট্রেনে ওয়াইফাই স্থাপনের জন্য চুক্তি হয়েছে কোলেস’র সঙ্গে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, রবির ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও সুপুন বীরাসিংহে, চিফ কর্পোরেট ও পিপল অফিসার (সিসিপিও) মতিউল ইসলাম নওশাদ প্রমুখ।

শামীম রাহমান

চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে বিনামূল্যে গ্রামীণফোনের ওয়াই-ফাই

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোন চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব চত্বরে বিনামূল্যে ওয়াই-ফাই সেবা চালু করেছে। সবার জন্য ইন্টারনেট কর্মসূচীর আওতায় দেশের গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে বিনামূল্যে ওয়াই-ফাই সেবা চালু করছে অপারেটরটি।

মঙ্গলবার চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের প্রেসিডেন্ট কলিম সরওয়ার এই সেবা উদ্বোধন করেন।

গ্রামীণফোন গ্রাহকরা ওয়াইফাই হটস্পট এলাকায় গিয়ে ওয়াই-ফাই চালু করলে ‘জিপি ওয়াই-ফাই’ নামে একটি এসএসআইডি দেখতে পাবেন। জিপি ওয়াই-ফাইয়ে যুক্ত হবার পর তার গ্রামীণফোন নম্বর দিয়ে নিবন্ধন করতে হবে এবং এই পর্যায়ে তারা একটি এসএমএস পাবেন যা তাকে ওয়াই-ফাইয়ের সাথে যুক্ত করবে।

GP

গ্রামীণফোনের চট্টগ্রাম সার্কেল প্রধান এম শাওন আজাদ জানান, চট্টগ্রামের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ওয়াই-ফাই প্রদান এই কার্যক্রমের এটি একটি অংশ মাত্র। নিরবচ্ছিন্ন নেটওয়ার্ক এবং উন্নত সেবাদান নিশ্চিত করার উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম অঞ্চলের জন্য তাদের বিশেষ কিছু পরিকল্পনা আছে।

ওয়াই-ফাই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সেক্রেটারি মহসিন চৌধুরী, গ্রামীণফোনের ডিরেক্ট (সেলস) আঞ্চলিক প্রধান শাকিব আলতাফ, চট্টগ্রাম অপারেসন্স প্রধান সঞ্জয় দাস গুপ্তসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশের বৃহত্তম আইএসপি সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ‘আমরা নেটওয়ার্ক’ গ্রামীণফোনের এই উদ্যোগকে প্রযুক্তিগত সহায়তা প্রদান করছে।

ইমরান হোসেন মিলন

কবরস্থানে ওয়াই-ফাই!

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বাসা বা কর্মস্থলেই সাধারণত ওয়াই-ফাইয়ের ব্যবস্থা করা হয়ে থাকে। তবে এবার কবরস্থানের মতো জায়গায় ওয়াই-ফাই বসানোর অভিনব উদ্যোগ নিয়েছে রাশিয়া!

দেশটির তিনটি বিখ্যাত কবরস্থানে ওয়াই-ফাই সংযোগ স্থাপনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আত্মীয়স্বজন বা বন্ধুবান্ধবরা কবরস্থান পরিদর্শনে গেলে যাতে বিনামূল্যে ইন্টারনেট ব্রাউজ করতে পারেন সেজন্যই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাশিয়ান কর্তৃপক্ষ।

এ ব্যাপারে মস্কো সিটির কবরস্থানগুলোর দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা আরটেম ইয়েকিমভ জানান, কবরস্থানে শায়িত মানুষজনের সম্পর্কে যাতে নানান তথ্য জানা যায় সেজন্য ওয়াই-ফাই বসানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

russia moscow cemetry

এক জরিপের বরাত দিয়ে ওই কর্মকর্তা আরও জানান, কবরস্থানে ওয়াই-ফাই না থাকায় মানুষজন তা পরিদর্শনেই আসতে চায় না। সেজন্য দর্শনার্থীদের সংখ্যা বাড়াতে এবং তাদের পরিদর্শন আনন্দদায়ক করতে বিনামূল্যের ইন্টারনেট সেবা দেয়া হবে।

কবরস্থানে ওয়াই-ফাই বসানোর কাজ পাওয়া এক টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠানের প্রধান জানান, নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই স্পর্শকাতর এই কাজ করা হবে।

তিনটি করবস্থানের মধ্যে বহুল জনপ্রিয় হল নভোদেভিচি ও ট্রয়েকুরোভস্কি। এর মধ্যে নভোদেভিচিতে শায়িত আছেন লেখক আন্তন চেখভ, সাবেক সোভিয়েত নেতা নিকিতা ক্রুশ্চেভ এবং রাশিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট বরিস ইয়েলৎসিনের মতো জগতখ্যাত লোকজন। আর ট্রয়েকুরোভস্কিতে সম্প্রতি দাফন করা হয়েছে রাশিয়ার বিরোধী নেতা বরিস নেমসভকে। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে আততায়ীদের গুলিতে নিহত হন তিনি।

বিবিসি বাংলা অবলম্বনে আহমেদ মনসুর

ভারতের রেল স্টেশনে গুগলের ফ্রি ওয়াই-ফাই

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ভারতের ৪০০ রেল স্টেশনে উচ্চ গতির ওয়াই-ফাই ইন্টারনেট দেবে সার্চ জায়ান্ট গুগল।

বিষয়টি নিয়ে এরই মধ্যে ভারতীয় রেলওয়ের টেলিযোগাযোগ বিভাগ রেলটেলের সঙ্গে চুক্তি করেছে টেক জায়ান্টটি।

এ সেবা বিনামূল্যে উপভোগ করতে পারবেন যাত্রীরা। দেশটিতে দৈনিক এক কোটি মানুষ রেলে ভ্রমণ করে থাকেন।

Google

ভারতের পাহাড়ি ও প্রত্যন্ত অঞ্চলে বিনামূল্যে ইন্টারনেট সেবা দেওয়ার জন্য কাজ করছে গুগল। এ ছাড়া প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানটি আফ্রিকায় ইন্টারনেটের ব্যবহার বাড়াতেও কাজ করছে।

শুধু তাই নয়, বিশ্বের দুর্গম ও পাহাড়ি এলাকায় বেলুনের মাধ্যমে ইন্টারনেট দেওয়ার প্রকল্পও রয়েছে গুগলের।

এক বিবৃতিতে রেলটেল জানিয়েছে, ভারতজুড়ে দুই ধাপে ৪০০ রেল স্টেশনে উচ্চ গতির ওয়াই-ফাই ইন্টারনেট সেবা দেবে গুগল।

আগামী বছর জানুয়ারিতে দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর ভূবেনশ্বরের রেল স্টেশনে প্রথম ওয়াই-ফাই দেওয়া হবে।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অবলম্বনে সৌমিক আহমেদ

আফ্রিকায় গুগলের ওয়াই-ফাই ইন্টারনেট

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : আফ্রিকার প্রথম দেশ হিসেবে উগান্ডার রাজধানী ক্যামপালায় প্রথমবারের মতো উচ্চ গতির ওয়াই-ফাই ইন্টারনেট সেবা চালু করেছে সার্চ জায়ান্ট গুগল।

আফ্রিকার পিছিয়ে পড়া অনগ্রসর দেশগুলোতে ইন্টারনেট ব্যবহার বাড়াতে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান গুগলের নেয়া একটি প্রজেক্টের আওতায় ওয়াই-ফাই ইন্টারনেট সেবা চালু করা হয়েছে।

এ ইন্টারনেট সেবা অবশ্য বিনা মূল্যে দেওয়া হবে না। গুগলের দাবি খুবই কম দামে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন উগান্ডার মানুষ।

Africa

সার্চ জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, একদিনে ব্যবহারকারী যতই ডাটা ব্যবহার করুক না কেন এর দাম পড়বে মাত্র ৩০ সেন্ট। উগান্ডার মুদ্রায় এর খরচ ১ হাজার শিলিং।

দেশটিতে ইন্টারনেট সেবা দেওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মাধ্যমে নাগরিকরা উচ্চ গতির এ ওয়াই-ফাই ইন্টারনেট সেবা উপভোগ করতে পারবেন।

আপাতত ক্যামপালার ১২০টি গুরুত্বপূর্ণ স্থানে এ ইন্টারনেট চালু করা হয়েছে।

আফ্রিকার দরিদ্র দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম উগান্ডায় ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ৮৫ লাখ, যা দেশটির মোট জনসংখ্যার মাত্র ২৩ শতাংশ।

আফ্রিকায় ইন্টারনেটের ব্যবহার বাড়াতে গুগলের নেওয়া প্রজেক্টের আওতায় বিভিন্ন দেশে অবকাঠামোগত উন্নয়ন করা হচ্ছে। উগান্ডার ৮০০ কিলোমিটার এলাকায় অপটিক্যাল ফাইবার বসানো হচ্ছে। পাশাপাশি ঘানার তিনটি শহরেও একই ধরনের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে।

গত অক্টোবরে সোশ্যাল সাইট ফেইসবুক আফ্রিকার দেশগুলোতে নিজস্ব স্যাটেলাইটের মাধ্যমে ইন্টারনেট দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

বিবিসি অবলম্বনে সৌমিক আহমেদ