ইন্টেলের নতুন প্রসেসর কোর আই৯

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় চিপ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ইন্টেল তাদের কোর এক্স-সিরিজের নতুন প্রসেসরের নাম ঘোষনা করেছে। কম্পিউটেক্স তাইপেকে সামনে রেখে ‘কোর আই৯’ নামের এই প্রসেসরকে পরিচয় করে দেয়া হয়।

নতুন এক্স২৯৯/এলজিএ২০৬৬ ‘বেসিন ফলস’ প্লাটফর্মনির্ভর নতুন কোর এক্স-সিরিজের নয়টি ভিন্ন পণ্য আসছে। যার মধ্যে মঙ্গলবার ৫টি পণ্যের বর্ণনা দেয়া হয়। বাকি চারটি আসছে বলে জানিয়েছে ইন্টেল।

ক্রেতারা ৪ কোর থেকে শুরু করে ৬, ৮, ১০, ১২, ১৪, ১৬ এবং ১৮ কোরের প্রসেসর বেছে নিতে পারবেন, যা বাজারের সকল চাহিদা পূরণ করতে সক্ষম হবে। প্রায় প্রতিটি মডেলেই থাকছে ইন্টেলের হাইপার-থ্রেড প্রযুক্তি।

Intel-core-i9-processor-TechShohor

পরিচয় করে দেয়া প্রসেসরগুলো হলো- কোর আই৫-৭৬৪০এক্স, কোর আই৭-৭৭৪০এক্স, কোরর আই৭-৭৮২০এক্স, কোর আই৯-৭৯০০এক্স। এগুলোর দাম যথাক্রমে ২৪২ ডলার, ৩৩৯ ডলার, ৩৮৯ ডলার, ৫৯৯ ডলার ও ৯৯৯ ডলার।

এছাড়া সামনে উন্মোচিত হতে যাওয়া প্রসেসরগুলো হলো কোর আই৯-৭৯২০এক্স, আই৯-৭৯৪০এক্স, আই৯-৭৯৬০এক্স, আই৯-৭৯৮০এক্সই। দাম নির্ধারণ হয়েছে ১১৯৯ ডলার, ১৩৯৯ ডলার, ১৬৯৯ ডলার ও ১৯৯৯ ডলার। চলতি সপ্তাহে কম্পিউটেক্সে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরা হবে বলে জানিয়েছে ইন্টেল।

জিএসএম এরিনা অবলম্বনে রুদ্র মাহমুদ

মাতৃত্বকালীন সুরক্ষা দেবে স্মার্ট চুড়ি ‘কোয়েল’

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : গ্রামীণ ইন্টেল সোশ্যাল বিজনেসের উদ্যোগে বাজারে আসছে স্মার্ট চুড়ি ‘কোয়েল’।

মায়েদের গর্ভকালীন সুস্থতা নিশ্চিত করতে গ্রামের স্বাস্থসেবা বঞ্চিত গর্ভবতী নারীদের মাতৃত্বকালীন পরামর্শ ও সতর্কবার্তা দেবে এটি।

এতে রয়েছে প্রি-রেকর্ডেড ৮০টি গর্ভকালীন স্বাস্থ্য পরামর্শ, চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার রিমাইন্ডার এবং শরীরের যত্নে সাধারণ সব নিয়মকানুন।

Smart-bala-Techshohor

বাতাসে কার্বন মনোক্সাইডের মতো দূষিত উপাদানের মাত্রা মায়ের জন্য ক্ষতিকর পর্যায়ে চলে গেলে সতর্ক সংকেত পাঠাবে কোয়েল। রান্নাঘরের দূষিত ধোয়ার কারণে বাতাস দূষিত হয়ে গেলেও সেখান থেকে সরে আসার সতর্কবার্তা দেবে কোয়েল।

আধুনিক ডিজাইনের পানি নিরোধক স্মার্ট চুড়িটি প্লাস্টিকের তৈরি। এর ব্যাটারির আয়ু দশ মাস। গর্ভাবস্থার পুরো সময় জুড়েই এটি মায়ের সুরক্ষা নিশ্চিত করবে।

আনিকা জীনাত

ইন্টেল নুক কোর আই৩ : ক্ষুদ্র তবে কাজের পিসি

এস এম তাহমিদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ডেস্কটপ পিসি বলতে চোখের সামনে একটি বিশাল বাক্স, মনিটর, কিবোর্ড, মাউস ভেসে ওঠে। সে ধারণা প্রযুক্তির চমক লাগানো উন্নতিতে পাল্টাতে শুরু করেছে। বিশেষ করে গত কয়েক বছরে অ্যাপলের ম্যাক মিনি কম্পিউটারের ছোট আকার সবার মন জয় করে নিয়েছে। এ কারণে অন্য কোম্পানিগুলোও ছোট সাইজের পিসি তৈরি শুরু করেন।

এগুলোর মধ্যে ইন্টেল নুক জনপ্রিয়তায় বেশ এগিয়ে। যাদের ছোট আকারের ও বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী একটি পিসি দরকার তাদের জন্য এ রিভিউ।

একনজরে ইন্টেল নুক (৬ষ্ঠ প্রজন্ম)

  • ৬ষ্ঠ প্রজন্মের ইন্টেল কোর আই থ্রি ৬১০০ইউ প্রসেসর, ২.৩ গিগাহার্জ ডুয়াল কোর
  • ডুয়াল চ্যানেল ডিডিআর৪ র‌্যাম সাপোর্ট (ডিভাইসের সঙ্গে দেওয়া নেই র‍্যাম)
  • ইন্টেল এইচডি ৫২০ গ্রাফিক্স
  • এম.২ এসএসডি স্টোরেজ সাপোর্ট বা সাটা৩ ২.৫ ইঞ্চি ড্রাইভ সাপোর্ট করে ( এটিও সাথে দেয়া নেই)
  • পেছনে ও সামনে দুটি করে ইউএসবি ৩ পোর্ট
  • সামনে ইনফ্রারেড সেন্সর
  • এসডি কার্ড স্লট
  • হেডফোন ও মাইক্রোফোন জ্যাক
  • গিগাবিট ইথারনেট, ৮০২.১১এসি .ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ ৪.১

nuc2

ডিজাইন
ক্ষুদ্রাকৃতির কম্পিউটারটি দৈঘ্যে ও প্রস্থে ১২ সেন্টিমিটারেরও কম। ফলে যে কোনও স্থানে এটি রেখে ব্যবহার করা সম্ভব। মূলত পিসিটি মিডিয়া সেন্টার হিসেবে ব্যবহারের জন্য তৈরি। তাই সরাসরি টিভির রিমোট ব্যবহারের জন্য ইনফ্রারেড সেন্সরও দেওয়া রয়েছে এতে।

পুরো পিসিটি ছোট বাক্সের আকৃতির। সিলভার অ্যালুমিনিয়াম ও কালো প্লাস্টিকে তৈরি বডির বিল্ড কোয়ালিটি খুবই সুন্দর।  

ইন্টেল নুকের ওপরের কালো প্লাস্টিকের প্যানেলে রয়েছে পাওয়ার বাটন। সামনে রয়েছে দুটি ইউএসবি পোর্ট, হেডফোন অডিও জ্যাক, ও ইনফ্রারেড সেন্সর।

বাম পাশে রয়েছে কার্ড স্লট ও পেছনে এইচডিএমআই পোর্ট, পাওয়ার পোর্ট, গিগাবিট ইথারনেট পোর্ট, মিনি ডিসপ্লে পোর্ট ও আরও দুটি ইউএসবি পোর্ট।

মেশিনটির ওপরের অংশে কালো প্লাস্টিক হলেও চারিদিকে সিলভার অ্যালুমিনিয়াম মোড়ানো।

পারফরমেন্স
একটি কম্পিউটারের পারফরমেন্স সাধারণত বেঞ্চমার্ক পরীক্ষার মাধ্যমে বিবেচনা করা হয়। তবে বেঞ্চমার্ক দেখে সাধারণত ঠিক পারফরমেন্স বিচার করা যায় না। সে ক্ষেত্রে প্রচলিত এ পরীক্ষা ছাড়া আরও দুটি দিক থেকে নুকের কর্মক্ষমতা পরীক্ষা করা হয়েছে। কাজ ও বিনোদনের এর ব্যবহার উপযোগিতা যাচাই করা হয়েছে।

nuc5

  • কাজ : কোর আই থ্রি প্রসেসর সাধারণত হালকা থেকে মাঝারি কাজের জন্য তৈরি করা হয়। তার মানে এই নয় যে, এটি ভারী কাজ করতে একেবারেই অক্ষম। সেক্ষেত্রে কাজ করতে প্রসেসরটির বেশ অনেকটুকু সময় লাগবে।                         তবে ওয়েব ব্রাউজিং, হালকা থেকে মাঝারি ধরনের ফটো এডিটিং, ওয়ার্ড প্রসেসিং, স্প্রেডশিট ও মাঝারি মানের প্রোগ্রামিং প্রায় সবকিছুই সুন্দরভাবে চালাতে সক্ষম পিসিটি।                                                                                                                       ঠিকভাবে কাজ করার জন্য অবশ্য সঠিক পরিমান র‌্যাম লাগিয়ে নিতে হবে। ৮ গিগাবাইট র‌্যাম সাধারণ সব কাজের জন্য যথেষ্ট। বাজেট কম থাকলে ৪ গিগাবাইট র‌্যামেও কাজ চালিয়ে দেয়া যেতে পারে।
  • বিন‌োদন : কম্পিউটার মানেই গেইম- এমন একটি ধারণা আমাদের দেশে প্রায় সবার মাঝেই বিদ্যমান। এ বিবেচনায় একেবারেই গেমিং উপযোগী নয় কম্পিউটারটি। এরপরও এর বিল্ট-ইন ইন্টেল এইচডি ৫২০ জিপিউটি একেবারে ফেলনা নয়। এটি এনভিডিয়া জিটি ৮২০ এম জিপিউ এর চাইতে প্রায় ৩% বেশি পারফরমেন্স দিতে সক্ষম।                                                                                     অতএব পুরাতন ও মাঝারি নতুন সব গেইম লো সেটিংস ও ১২৮০x৭২০ পিক্সেল রেজুলেশনে ৩০ এফপিএসে চলবে।                                                                         অন্যদিকে বিনোদন মানেই গেমিং নয়, মুভি দেখা ও গানশোনও এর মাঝে পরে। সেদিক থেকে পিসিটির পারফরমেন্স যথেষ্ট ভাল। এটি ৪কে ভিডিও সঠিকভাবে চালাতে সক্ষম, ফুল এইচডি ভিডিও দেখা নিয়ে কোনও সমস্যা নেই।
  • বেঞ্চমার্ক: দিন শেষে কোনও পারফরম্নেস রিভিউ বেঞ্চমার্ক ছাড়া সঠিকভাবে করা যাবে না। তাই কিছু জনপ্রিয় বেঞ্চমার্ক নিচে দেয়া হলো।
    • গিকবেঞ্চnuc
    • থ্রিডি মার্কskylake_i3_3dmark-1024x706
    • পিসি মার্কnuc6

ব্যবহারিক সুবিধা

  • থার্মাল ডিজাইন : ইন্টেলের নুক কম্পিউটারগুলো প্রায় সবসময়ই প্রসেসরের তাপ সুন্দরভাবে সরানোর জন্য ডিজাইন করা থাকে। এক্ষেত্রেও ব্যাতিক্রম নয়।               সর্বোচ্চ লোডেও কম্পিউটারটি বেশ ঠান্ডা ও শব্দহীন ভাবে চলতে সক্ষম। মিডিয়া সেন্টার পিসির জন্য যা খুবই গুরত্বপূর্ণ।
  • পোর্ট : পোর্টের দিক থেকে পিসিটিতে কোনও কমতি নেই। তবে কার্ড স্লটটি সাইডে থাকার ফলে ব্যবহারে একটু সমস্যা হতে পারে।nuc4
  • হার্ডওয়্যার বর্ধনযোগ্যতা : র‌্যাম ও স্টোরেজ ছাড়া আর কিছুই ব্যবহাকারী বদল করতে পারবেন না। এটি অনেকের জন্য সমস্য হতে পারে।
  • বিদ্যুৎ : পিসিটি মাত্র ৬৫ ওয়াট পাওয়ারে চলতে সক্ষম। ফলে দীর্ঘ সময় চালু রাখলেও বিদ্যুৎ বিল নিয়ে ভাবতে হবে না।

সফটওয়্যার সাপোর্ট
মূলত উইন্ডোজ ১০ অপারেটিং সিস্টেমের জন্য তৈরি করা হলেও উইন্ডোজ ৭ বা লিনাক্স চালানো যাবে তেমন কোনো সমস্যা ছাড়াই।

অনেকে এটিকে ফাইল, প্রিন্ট ও মিডিয়া সার্ভার হিসেবে ব্যবহারের জন্য বিশেষ মিডিয়া সেন্টার কেন্দ্রিক লিনাক্স ডিস্ট্রো ব্যবহার করতে পারেন।

মূল্য : বাজারে ২৫ হাজার টাকায় পাওয়া যাচ্ছে ইন্টেল আই থ্রি নুক। তবে আই৫ বা পেন্টিয়াম সংস্করণ কিনলে মূল্য বাড়বে বা কমবে।

এক নজরে ভাল

  • স্বল্প মূল্যে ছোট পিসি
  • সব ধরণের অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহারের সুযোগ
  • তাপ নিয়ে চিন্তা নেই
  • মিডিয়া সেন্টারের ফিচার রয়েছে

এক নজরে খারাপ

  • প্রসেসর, মাদারবোর্ড বা কোনও কিছুই বদলযোগ্য নয়
  • র‌্যাম ও স্টোরেজ সঙ্গে দেওয়া নেই
  • গেমিং উপযোগী নয়
  • নিজেরা একই ধরনের পিসির কনফিগারেশন করলে কিছুটা কম মূল্যে পাওয়া যাবে

বাংলাদেশে অফিস গোটালো ইন্টেল

আল-আমীন দেওয়ান, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বাংলাদেশ হতে অফিস গুটিয়ে নিল বিশ্বের সবচেয়ে বড় সেমিকন্ডাক্টর চিপ নির্মাতা কোম্পানি ইন্টেল কর্পোরেশন।

সম্প্রতি বাংলাদেশের কান্ট্রি বিজনেস ম্যানেজার জিয়া মনজুরকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। তবে শুধু বাংলাদেশ নয় পাকিস্তান ও শ্রীলংকায়ও অফিস গুটিয়েছে কম্পিউটার প্রসেসর নির্মাণে বিশ্বখ্যাত এই প্রতিষ্ঠানটি। মূলত ব্যয়সংকোচন করতেই এই অফিস গোটানো বলে জানা গেছে।

ইন্টেল বাংলাদেশে কর্মরত ছিলেন এমন একজন শীর্ষ কর্মকর্তা এই অফিস গুটিয়ে নেয়ার বিষয়টি টেকশহরডটকমকে নিশ্চিত করেছেন।

অফিস গোটালে বাংলাদেশের ব্যবসায়িক কার্যক্রম কীভাবে পরিচালিত হবে তা জানতে চাইলে ওই কর্মকর্তা বলেন, একটি চ্যানেল হাব এর মাধ্যমে বাংলাদেশের কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

বাংলাদেশে ইন্টেলের ব্যবসায়িক অবস্থান ভাল থাকার পরও কেনো অফিস বন্ধ করে দেয়া হলো সে বিষয়ে কিছু জানা নেই বলে বলেন তিনি।

জানা গেছে, চ্যানেল হাবটি হতে পারে সিঙ্গাপুরে। যেখান হতে এশিয়ার এই তিন দেশের ব্যবসা পরিচালনা করা হবে।

intel-techshohor

চলতি বছরের এপ্রিলেই বিশ্বব্যাপী ১২ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দেয় যুক্তরাষ্ট্রের এই চিপ নির্মাতা কোম্পানি। সেই হিসেবে মোট কর্মীর ১১ শতাংশ ছাঁটাই করা হচ্ছে। এর পর বেশ কয়েকটি দেশের অফিস গুটিয়ে নেয়ার পরিকল্পনার কথাও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে আসে।

ব্যবসায় ইন্টেল মাইক্রোচিপ, পাওয়ার ডাটা সেন্টার, ইন্টারনেট কানেক্টেড ডিভাইসেও মন্দায় রয়েছে। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে পিসির বাজার ছোট হয়ে আসায় সেখানেও চিপের বাজারে সাফল্য নেই প্রতিষ্ঠানটির। ইন্টেল এখন ক্লাউড কম্পিউটিং, স্মার্ট কানেকটেড ডিভাইস ব্যবসায় মনোযোগ দিতে চাইছে।

কম্পিউটার প্রসেসর তৈরির পাশাপাশি ইন্টেল মাদারবোর্ড চিপসেট, নেটওয়ার্ক ইন্টারফেস কন্ট্রোলার, ইন্ট্রিগ্রেটেড সার্কিট, ফ্ল্যাস মেমোরি, গ্রাফিক্স কার্ড, সংযুক্ত প্রসেসরসহ কম্পিউটার সংযুক্ত বিভিন্ন পণ্য তৈরি করে আসছে।

এর আগে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ তথ্যপ্রযুক্তি পণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হিউলেট প্যাকার্ড (এইচপি) বাংলাদেশ থেকে নিজেদের অফিস গুটিয়ে নেয়। তখনকার মতো এবারও ইন্টেলের চলে যাওয়াতে বিস্মিত তথ্যপ্রযুক্তি খাতের ব্যবসায়ী ও বিশ্লেষকরা।

এইচপি এখন সিঙ্গাপুরভিত্তিক হাব হতে বাংলাদেশের কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

দেশের অন্যতম তথ্যপ্রযুক্তি পণ্য আমদানীকারক ও বিপণনকারী প্রতিষ্ঠান স্মার্ট টেকনোলজিসের জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) মুজাহিদুল আল বিরুনী সুজন টেকশহরডটকমকে জানান, দেশে একটি কোম্পানির কান্ট্রি অফিস থাকলে স্থানীয়ভাবে ব্যবসায়িক যে সুবিধা পাওয়া যায় দেশের বাইরে হতে সেটা মেলে না। আমরা এখনও ঠিক জানি না অফিস তুলে নিয়ে তারা কীভাবে বা কোন পন্থায় এখানে ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনা করবে।  

ইন্টেলের ‘পকেট পিসি’ নিয়ে কর্মশালা

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : এক সময়কার বিশাল বিশাল পিসির দিন অনেক আগেই ফুরিয়েছে। সেই যুগ শেষ করে ডেক্সটপ, ল্যাপটপ,নেটবুকের মতো ছোট পিসি বাজারে ছেড়েছে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। এখনো তারা চেষ্টা করে চলেছে সেটাকে আর কতোটা ছোট করা যায়। তেমননি একটি উদ্যোগ নিয়ে পকেট পিসি নিয়ে ঢাকায় কর্মশালা করেছে ইন্টেল।

২০০৩ সাল থেকে গ্রাহকের চাহিদা অনুযায়ী প্রযুক্তির নিয়মিত পরিবর্তনের ধারাবাহিকতায় ইন্টেলের সর্বশেষ সংযোজন ষষ্ঠ প্রজন্মের কম্পিউটার স্টিক ও নাক পিসি (নেক্সট ইউনিট অফ কম্পিউটিং)।

INtecl-pocket-pc-Techshohor
শনিবার ঢাকার এক রেস্তোঁরায় আয়োজিত বিপনণ কর্মীদের এক কর্মশালায় এ তথ্য উপস্থাপন করেন ইন্টেল চ্যানেল এক্সিকিউটিভ জাহিনুল হক। কম্পিউটার সোর্স আয়োজিত এ কর্মশালায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির বিশেষায়িত ব্যবসায় ইউনিট (এসবিইউ) প্রধান মেহেদী জামান, ইন্টেল পণ্য ব্যবস্থাপক হুমায়ন কবিরসহ আরও কয়েকজন।

কর্মশালায় ল্যাপটপে তারহীন প্রযুক্তির নেটওয়ার্ক স্থাপন, টাচ প্রযুক্তির আল্ট্রাবুক, মোবাইল চিপ সেট এবং সর্বশেষ আগামী প্রজন্মের পকেট আকারের পিসিকে নিয়ে আসার ধারাবাহিক সফল্যের কথা তুলে ধরে নতুন পণ্য সারির করিগরি ও ব্যবহারিক বৈশিষ্ট্য তুলে ধরা হয় বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে কম্পিউটার সোর্স।

ইমরান হোসেন মিলন

ইন্টেল নিয়ে আসছে সেভেন জেন প্রসেসর

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বৈশ্বিক চিপ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ইন্টেল মঙ্গলবার সুপার ফাস্ট সেভেন জেনারেশনের কোর প্রসেসর তৈরির ঘোষণা দিয়েছে। নতুন প্রসেসরটি আগের যেকোনো প্রসেসরের চেয়ে দ্রুত গতির, অত্যাধুনিক প্রযুক্তির এবং সিলিকন অপটিমাইজেশন ড্রাইভার সমন্বিত হবে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

নতুন এই সেভেন জেন প্রসেসরটি ইন্টেল কোর এম৩, কোর আই৩, আই৫ এবং আই সেভেন প্রসেসরের অন্তর্ভুক্ত হবে।

ইন্টারনেটের দারুণ অভিজ্ঞতা দিতে ইন্টেল সেভেন জেন কোর আই সেভেন ১৪ এনএম প্রসেসরটি স্কাইলেক মাইক্রোর অভিজ্ঞতায় ডিজাইন করা হয়েছে বলে একটি বিবৃতিতে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

Intel, techshohor
নতুন এই চিপটি মোবাইল প্রোডাক্টিভিটিতে আগের চেয়ে ৭০ শতাংশ বেশি কাজ করবে। এছাড়াও গ্রাফিক্স অভিজ্ঞতা ভালো দেবে, ফোরকে রেজুলেশনের কাজ খুব সহজেই করা যাবে প্রসেসরটির সাহায্যে।

প্রসেসরটি নিয়ে আমরা কিছুটা হলেও উত্তেজিত। এজন্য আমরা অরিজিনাল ইকুইপমেন্ট ম্যানুফ্যাকচারারের (ওইএম) সঙ্গে কাজ করছি। যেখানে আশা করছি ভিন্ন ভিন্ন ১০০ টু ইন ওয়ান এবং ল্যাপটপে আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যেই সেভেন জেন ইন্টেল কোর সহজলভ্য করা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছেন ইন্টেল কর্পোরেশনের কর্পোরেট ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক (ক্লায়েন্ট কম্পিউটিং গ্রুপ) নাভান শিনয়।

তবে গেইমারদের জন্য এটি খুব বড় ধরনের সুখবর বলেও জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। যেখানে গ্রাফিক্স ও ফোরকে রেজুলেশন এবং ফোর কে ভিডিও অন্য ধরনের অভিজ্ঞতা দেবে গেইমারদের।

ইকোনোমিক টাইমস অবলম্বনে ইমরান হোসেন মিলন

আরও পড়ুন: 

পেনড্রাইভ পিসি এনেছে কম্পিউটার সোর্স

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ডেস্কটপ, ল্যাপটপ, ট্যাবলেট ও ফ্যাবলেটের পর এবার ক্লাউড সুবিধাযুক্ত বুকপকেটে বহনযোগ্য পেনড্রাইভ পিসি এনেছে কম্পিউটার সোর্স।
দৈর্ঘ্যে চার ইঞ্চি, প্রস্থে দেড় ইঞ্চি এবং আধা ইঞ্চি পুরুর এই ল্যাপটপ ও ডেস্কটপের মধ্যে সমন্বয়কারী ৩২ জিবি ধারণক্ষমতার দুইটি ভিন্ন মডেলের ইন্টেল কম্পিউট স্টিক পিসিটি দেখতে অনেকটা পেনড্রাইভের মতো।
এই পেনড্রাইভ পিসিটি মনিটর কিংবা টিভির এইচডিএমআই পোর্টে সংযুক্ত করে মাউস আর কি-বোর্ড জুড়ে দিয়ে ডেস্কটপ পিসি’র কাজ করা যাবে। এতে রয়েছে দুই জিবি র‍্যাম ও ১.৮৩/১.৮৪ এটম কোয়াডকোর প্রসেসর।

intel_computestick-techshohor
তবে এর ধারণক্ষমতা ১২৮ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো সম্ভব। অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে রয়েছে অরিজিনাল উইন্ডোজ ১০। ওয়াইফাই ও ব্লু-টুথ ব্যবহার করা যাবে।
এক বছরের ওয়ারেন্টিযুক্ত রকমারি সুবিধার ইন্টেল এর এই ডব্লিউএফপি মডেলের পেনড্রাইভ পিসিটির দাম ১১ হাজার টাকা এবং ডব্লিউ৩২এসসি মডেলের দাম ১৩ হাজার টাকা।
ইমরান হোসেন মিলন

সাইবার নিরাপত্তা ব্যবসা গুটিয়ে ফেলছে ইন্টেল!

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় চিপ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ইন্টেল সাইবার নিরাপত্তা ব্যবসা গুটিয়ে নেয়ার পরিকল্পনা করছে। প্রতিষ্ঠানটির মালিকানাধীন সাইবার নিরাপত্তা ব্যবসা ম্যাকাফি বিক্রি করে দিতে চাইছে তারা।

রোববার ফিনান্সিয়াল টাইমসের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রতিষ্ঠানটি ম্যাকাফিকে বিক্রি করে দেয়ার জন্য ইতোমধ্যে ব্যাংকারদের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করেছে।

intel-mcafee-logo-techshohor

২০১১ সালে ৭৭০ কোটি মার্কিন ডলারে ম্যাকাফিকে কিনে নেয় ইন্টেল।

বিষয়টি নিয়ে ফিনান্সিয়াল টাইমস ইন্টেলের একজন মুখপাত্রের সঙ্গে যোগাযোগ করে। তবে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

এর আগে গত এপ্রিলে ইন্টেলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, তারা বিশ্বজুড়ে ১২ হাজার কর্মীকে ছাঁটাই করার পরিকল্পনা করছে। মূলত মাইক্রোচিপ ব্যবসাকে আরও গতিশীল করতে এমন উদ্যোগ নিচ্ছে তারা। ম্যাকাফি বিক্রি করা হয়তো সেই পরিকল্পনারই অংশ।

শামীম রাহমান

আরও পড়ুন: 

যে কারণে পরবর্তী আইফোনে ইন্টেল চিপ

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : আইফোনের পরবর্তী সংস্করণে ইন্টেলের চিপ ব্যবহারের ঘোষনা এসেছে গত বছরেই। এটি ইন্টেলের জন্য বড় পাওয়া। তবে অ্যাপলের এই সিদ্ধান্তের পিছনেও রয়েছে বড় কারণ।

এতোদিন আইফোনে কোয়ালকমের চিপ ব্যবহার করে আসছে অ্যাপল। তবে বিভিন্ন বাজারের উপযোগী দামে আইফোন দিতেই ইন্টেলের চিপ ব্যবহার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। যদিও আইফোনের সকল সংস্করণেই ইন্টেলের চিপ ব্যবহার করা হবে না।

Intel-Chips-in-iPhone-7-Apple-techShohor

ব্লুমবার্গ জানিয়েছে, পরবর্তী আইফোনের এটিঅ্যান্ডটি সংস্করণে এবং বিশ্বের বিভিন্ন বাজারের জন্য আলাদা সংস্করণে ইন্টেল মডেম চিপ ব্যবহার করা হবে। তবে ভেরিজন সংস্করণে আগের মতোই কোয়ালকম চিপ থাকবে, যা চীনের বাজারে বিক্রি করা হবে।

একাধিক কোম্পানির কম্পোনেন্ট ব্যবহারের ক্ষেত্রে আরেকটি বিশেষ কারণ রয়েছে। কোয়ালকম যদি কোনো কারণে কম্পোনেন্টের দাম বাড়ায় কিংবা প্রয়োজনীয় পরিমাণে সরবরাহ করতে না পারে সেক্ষেত্রে অন্যটি সহায়ক হবে। একাধিক সরবরাহকারী থাকলেও দাম ও মানের ক্ষেত্রেও প্রতিযোগিতা থাকবে।

উভয় প্রতিষ্ঠানের কম্পোনেন্ট নেওয়ার কারণে আইফোনে ৫জি প্রযুক্তি ব্যবহার নিশ্চিতও দ্রুত হবে বলে মনে করছে প্রতিষ্ঠানটি। যদিও এ বিষয়ে অফিসিয়ালি কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

টেক টাইম অবলম্বনে ফারজানা মাহমুদ পপি

ইন্টেলের সাবেক প্রধান নির্বাহী অ্যান্ডি গ্রোভ আর নেই

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : শীর্ষস্থানীয় সেমিকন্ডাক্টর চিপ প্রস্ততকারক প্রতিষ্ঠান ইন্টেলের সাবেক প্রধান নির্বাহী অ্যান্ডি গ্রোভ মারা গেছেন। সোমবার যুক্তরাষ্ট্রে ৭৯ বছর বয়সে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। গ্রোভ দীর্ঘদিন ধরে পারকিনশন ও মুত্রথলির ক্যান্সারে ভুগছিলেন।

গ্রোভ ছিলেন ইন্টেলের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য। ১৯৬৮ সাল থেকেই তিনি প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে ছিলেন। ১৯৭৯ থেকে ৮৭ সাল পর্যন্ত তিনি ইন্টেলের প্রধান নির্বাহী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৭ থেকে ২০০৫ পর্যন্ত তিনি প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

ইন্টেলকে প্রসেসর চিপস জায়ান্ট প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলতে গ্রোভের ভূমিকা ছিল অগ্রগণ্য। তিনি ইন্টেলের প্রধান নির্বাহী হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে প্রতিষ্ঠানের বিক্রিকে ২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার থেকে ২৬ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত করেন।

andy grove

পারসোনাল কম্পিউটারের (পিসি) উন্নয়নেও তিনি অসামান্য অবদান রেখেছেন। এজন্য তাকে পারসোনাল কম্পিউটারের অন্যতম জনকও বলা হয়।

অ্যান্ডি গ্রোভের মহাপ্রয়াণ প্রসঙ্গে ইন্টেলের বর্তমান প্রধান নির্বাহী ব্রায়ান যানিচ বলেন, গ্রোভ অসাধারণ ব্যক্তি ছিলেন। তার সময়ে তিনি ইন্টেলকে অনেক দূর এগিয়ে দিয়েছেন। তার চলে যাওয়া আমাদের জন্য অনেক কষ্টের।

সিএনএন অবলম্বনে শামীম রাহমান

ম্যাকাফি কিনলে ব্যাকপ্যাক ফ্রি

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : অ্যান্টিভাইরাস ব্র্যান্ড ইন্টেলের ম্যাকাফি ইন্টারনেট সিকিউরিটি ও ম্যাকাফি টোটাল প্রোটেকশনের সঙ্গে ব্যাকপ্যাক ফ্রি দেয়া হচ্ছে। অফারটি শুরু হয়েছে ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে। চলবে ৩১ মার্চ পর্যন্ত।

Mcafee-Internet-Security-2016

তিন বছর মেয়াদের এই অ্যান্টিভাইরাস দুটি কম্পিউটার ভিলেজের শোরুম ও বিভিন্ন আইটি মার্কেটে পাওয়া যাবে।

শামীম রাহমান