আসুসের নতুন ট্যাবের ছবি ফাঁস

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : নতুন ট্যাবলেট নিয়ে হাজির হতে যাচ্ছে প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান আসুস।

সম্প্রতি অনলাইনে ফাঁস হয়েছে প্রতিষ্ঠানটির ‘আসুস জেনপড জেড৮ ২০১৭’ মডেলের ছবি। ডিভাইসের তথ্য ফাঁসে বিখ্যাত টু্ইটার আইডি ইভান ব্লাস তা ফাঁস করে।

যদিও ট্যাবলেট ডিভাইসটি সম্পর্কে আসুসের পক্ষ থেকে কোনো তথ্য জানানো হয়নি।

ফাঁস হওয়ার তথ্য মতে, ৮ ইঞ্চি ডিসপ্লের ট্যাবটি রেজুলেশন  ২০৪৮*১৫৩৬ পিক্সেল। অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে রয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ৭.১’য়ের কাস্টমাইজ জেনইউআই।

কোয়াডকোর স্ন্যাপড্রাগন ৬৫২ প্রসেসর যুক্ত ডিভাইসটি ৩ ও ৮ জিবি র‍্যামের সংস্করণে পাওয়া যেতে পারে। স্টোরেজ সুবিধা উপর নির্ভর করে পাওয়া যাবে ৩২ ও ৬৪ জিবি ইন্টারনাল মেমোরিতে।

ট্যাবটিতে কতো মেগাপিক্সেল ক্যামেরা রয়েছে তা জানা যায়নি। তবে ফাঁস হওয়া ছবি থেকে দেখা যাচ্ছে, পিছনে একটি ক্যামেরা রয়েছে তবে নেই ফ্ল্যাশ। সামনে রয়েছে একটি সেলফি ক্যামেরা।

ডিজাইনে হালকা পাতলা ধরনের ট্যাবের সামনে রয়েছে ফিজিক্যাল হোম বাটন। ছবিতে থাকা বাটনটি দেখে মনে হচ্ছে এতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সুবিধাও রয়েছে।

ট্যাবটি কবে আসবে এই সম্পর্কে কোনো তথ্য না জানা গেলেও ধারণা করা হচ্ছে আগামী মাসে উন্মুক্ত হতে পারে এটি।

জিএসএম এরিনা অবলম্বনে তুসিন আহমেদ

ঈদে চাঙ্গা ফোনের বাজার, বাড়েনি দাম

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ঈদের আগে সাজ-পোশাক কেনার পাশাপাশি তরুণদের নজর থাকে নতুন ইলেক্ট্রনিক গ্যাজেট ও মোবাইল ফোনের কেনার দিকে। অনেকেই চান ঈদে তাদের পুরাতন ফোন পরিবর্তন করে নতুন ফোন নিতে। সেজন্য ইতোমধ্যেই ঈদ উপলক্ষে স্মার্টফোন বাজারে পছন্দের ডিভাইস কিনতে ভিড় করছেন অনেকেই।

বাজেটে শুল্ক বাড়ানো হলেও ঈদের আগে বিক্রি বাড়াতে দাম বাড়াননি বিক্রেতারা। ঈদের আগে প্রতিযোগিতাও বৃদ্ধি পায় বিক্রেতাদের মধ্যে। এ কারণে ক্রেতা ধরে রাখতে এমন পদক্ষেপ নিয়েছেন বলে বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে।

মোবাইল বাজারে বাজেটের প্রভাব না পড়া এবং ঈদের উপলক্ষ থাকায় গত কয়েকদিন স্মার্টফোনের বাজার কিছুটা চাঙ্গা। বিক্রেতারা বলছেন, বিক্রি বেড়েছে তুলনামূলক বেশি। রাজধানীর অন্যতম মোবাইল মার্কেট বসুন্ধরা শপিং সিটি ঘুরে দেখা মেলে কিছু চিত্রের।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, ক্রেতাদের কাছে মিডরেঞ্জ ফোনে চাহিদা বেশি। এছাড়াও ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইসের প্রতি গ্রাহকদের রয়েছে বিশেষ আগ্রহ। তবে অনেক ক্রেতা ব্যাকআপ ফোন হিসেবে ফিচার ফোন কিনছেন বলেও বিক্রেতারা জানান।

স্যামসাং, আসুস, হুয়াওয়ে, শাওমি, এলজি, অপ্পো’র মতো ব্র্যান্ডের পাশাপাশি বাজারে দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটন, উই, সিম্ফোনির বিক্রি বেশ।

ফোন কিনতে আসা বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া হাসান নামের একজন টেকশহরডটকমকে জানান, ঈদের পোশাক কেনাকাটা বাদ দিয়ে তিনি ফোন কিনেছেন। আগের ফোন নষ্ট  হওয়ায় নতুন ফোন কেনা। তার বাজেট অনুযায়ী শাওমি রেডমি৪ এক্স কেনেন তিনি।

শাওমি ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস এমআই৬ বিক্রি হচ্ছে ৪০ হাজার টাকায়। এছাড়া শাওমি রেডমি৪ এক্স ফোনের দাম ১৫ হাজার ৪৯০ টাকা। এতে রয়েছে ৫ ইঞ্চি পর্দা, ৩ জিবি র‍্যাম, ৩২ জিবি রম, ১৩ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা।

বসুন্ধরা সিটি শপিং কমপ্লেক্সের ফোন বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান গাজী ইলেকট্রনিক্সের কর্মকর্তা রিমন আহমেদ টেকশহরডটকমকে জানান, ঈদ উপলক্ষে ফোনের বিক্রি ভালো হচ্ছে। গ্রাহকরা মধ্যম বাজেটের কিনতে বেশি আগ্রহী। ফোনের পাশাপাশি কভার, হেডফোন ও পাওয়ার ব্যাংকের বিক্রিও বেড়েছে।

দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটনের ১.৩ গিগাহার্জের কোয়াড কোর প্রসেসর, ২ জিবি র‍্যাম, ১৬ জিবি রমের প্রিমো এন৩ ফোনের দাম ১০ হাজার ২৯০ টাকা। প্রিমো আরএম৩ এস ফোনের দাম ১৪ হাজার ৪৯০ টাকা। এতে রয়েছে ৫.২ ইঞ্চি পর্দা, ১.৩ হাজার গতির অক্টাকোর প্রসেসর, ১৩ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা।

অপ্পো’র সেলফি এক্সপার্ট এফ৩ প্লাস ফোনের দাম ৩৯ হাজার ৯৯০ টাকা। এতে রয়েছে ৬ ইঞ্চি পর্দা। সামনের ক্যামেরা ১৬ মেগাপিক্সেল ক্ষমতার। এতে আছে অক্টাকোর প্রসেসর, ৪ জিবি র‍্যাম এবং ৬৪ জিবি রম।

এদিকে চলতি সপ্তাহে দেশের বাজারে এসেছে আসুস জেনফোন লাইভ। বিশ্বের প্রথম স্মার্টফোন হিসেবে এতে হার্ডওয়্যার অপ্টিমাইজড প্রযুক্তি ব্যবহার করে সরাসরি সৌন্দর্য বৃদ্ধি করা হয়েছে। এর বিল্টইন অ্যাপ ‘বিউটি লাইভ’ দিয়ে ব্যবহারকারীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরাসরি যেতে পারবেন। এতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লাইভে যাওয়ার বিশেষ সুবিধা আছে। স্মার্টফোনটির বিক্রি হচ্ছে ১৩ হাজার ৯৯০ টাকায়।

স্যামসাংয়ের ইনফিনিট ডিসপ্লের ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস এস৮ ও এস৮ প্লাস বিক্রি হচ্ছে যথাক্রমে ৭৭ হাজার ৯০০ এবং ৮৩ হাজার ৯০০ টাকায়। এছাড়া গ্যালাক্সি সি৯ প্রো ফোনের দাম ৪৯ হাজার ৯০০ টাকা ও গ্যালাক্সি এ৭ (২০১৭) ৪৪ হাজার ৯০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

স্যামসাংয়ের বিক্রয় কর্মী আব্দুল রহমান টেকশহরডটকমকে জানান, ঈদের সময়টা সব সময় বিক্রি ভালো থাকে। এবারও তার ব্যতিক্রম নয়।

স্মার্টফোনের পাশাপাশি মেমোরি কার্ড, মোবাইল ফোনের কভার, হেডফোন, পাওয়া ব্যাংক, ব্লুটুথ স্পিকার ইত্যাদি পণ্যের বিক্রি বেড়েছে। যে সকল গ্রাহকরা নতুন ফোন কিনতে পারছেন না তারা নতুন কভার বা মেমোরি কার্ড কিনে ফোনটি নতুন করে নিতে চাইছেন।

মোহাম্মদ শাহজাহান চাকরি করেন ব্যাংকে। তিনি টেকশহরডটকমকে জানান, ঈদের আগে নিজের ফোনকে আকর্ষণীয় করতে তিনি কাভার কিনছেন। সঙ্গে একটি মেমোরি কার্ডও নিয়েছেন। সেই সাথে ঈদের সময় যেন ফোনের ব্যাটারি ব্যাকআপ নিয়ে ঝামেলায় না পড়তে তাই কিনেছেন একটি পাওয়ার ব্যাংক।

তুসিন আহমেদ

বাজারে আসুসের জেনফোন লাইভ

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : জেনফোন লাইভ নামে একটি ফোন বাজারে এনেছে আসুস। ফোনটির বিশেষত্ব হলো এর বিল্টইন অ্যাপ্লিকেশন ‘বিউটিলাইভ’।

বিউটিলাইভ দিয়ে ব্যবহারকারীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে সরাসরি আত্মপ্রকাশ করতে পারবে। জেনফোন লাইভে থাকছে ১.৪ আল্ট্রা পিক্সেল সেন্সর এর সেলফি ক্যামেরা। জেনফোন সেলফির পেছনে রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা, ৫ ম্যাগনেট স্পিকার, ২.৫ডি বাঁকানো গ্লাস।

কোয়াড কোর স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসরযুক্ত ফোনটিতে রয়েছে ২ গিগাবাইট র‍্যাম ও ১৬ গিগাবাইট ইন্টারনাল মেমোরি।  যা ১২৮ গিগাবাইট পর্যন্ত বৃদ্ধি করা যাবে। অ্যান্ড্রয়েড ৬.০ অপারেটিং সিস্টেমের উপর কাস্টমাইজড জেনইউআউ ৩.৫ ব্যবহার করা হয়েছে এতে। এছাড়া রয়েছে ব্লুটুথ,ওয়াইফাই, এফএম ইত্যাদি সুবিধা।

ফোনটিতে রয়েছে আইপিএস এলসিডি ক্যাপাসিটিভ ৫.৫ ইঞ্চি ডিসপ্লে। যার রেজোল্যুশন ৭২০ বাই ১২৮০ পিক্সেল এবং যা ২৯৪ পিপিআই।

চলতি সপ্তাহ থেকে জেনফোন লাইভ বাজারে পাওয়া যাবে। এর দাম রাখা হয়েছে ১৩ হাজার ৯৯০ টাকা।

আনিকা জীনাত

জেনফোনের নতুন চার ব্র্যান্ডশপ

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশে আরও চারটি ব্র্যান্ডশপ চালু করেছে আসুস মোবাইল। এগুলো করা হয়েছে ঢাকা ও চট্টগ্রামে।

ঢাকার মিরপুর ১০ নম্বরে অবস্থিত শাহআলী প্লাজা, প্রগতি সারণীর যমুনা ফিউচার পার্ক এবং শান্তিনগরের ইস্টার্ন প্লাস মার্কেটে আসুস জেনফোনের মোট তিনটি ব্রান্ডশপ চালু করেছে।

এছাড়াও চট্টগ্রামের আগ্রাবাদের আখতারুজ্জামান সেন্টারে আসুসের আরেকটি ব্র্যান্ডশপ খোলা হয়েছে।

assus-brandshop-techshohor

শোরুম চারটি উদ্বোধন করেন আসুস বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার মো. আল ফুয়াদ।

তিনি জানান, দেশের স্মার্টফোন বাজারে আসুস জেনফোনের চাহিদা বাড়ছে।  চলতি মাসে ঢাকা ও বগুড়ায় আসুস জেনফোনের আরো তিনটি ব্রান্ডশপ চালু হবে।

আনিকা জীনাত

সবচেয়ে পাতলা ফ্লিপ নোটবুক উন্মোচিত

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বিশ্বের সবচেয়ে পাতলা ও ফ্লিপ ল্যাপটপ বাস্তবে এসেছে। সোমবার এক বৃহৎ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আসুস তাদের এই নতুন ল্যাপটপ ‘আসুস জেনবুক ফ্লিপ এস’ উন্মোচন করেছে। তাইপেতে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া কম্পিউটেক্স টেকনোলজি শো’র আগেই এটি উন্মোচিত হলো।

নতুন জেনবুক ফ্লিপ এস মাত্র ১০ দশমিক ৯ মিলিমিটার পাতলা। তুলনা করলে এর বিপরীতে রয়েছে এইচপির স্পেক্টর এক্স৩৬০ (১৩ দশমিক ৮ মিলিমিটার) ও অ্যাপল ম্যাকবুক এয়ার (১৭ মিলিমিটার)।

ASUS Zenbook Flip S-TechShohor

তাইওয়ানের প্রযুক্তি পণ্য নির্মাতা আসুসের এই ১৩ দশমিক ৩ ইঞ্চি ল্যাপটপকে ৩৬০ ডিগ্রি ঘোরানো যায়। ফলে ট্যাবলেট হিসেবেও ব্যবহার করা যাবে। এছাড়া এর ওজন মাত্র ১ দশমিক ১ কিলোগ্রাম যা এইচপি ও অ্যাপলের নোটবুকের থেকেও হালকা।

নোটবুকটিতে রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সিকিউরিটি সেন্সর, ৪কে ডিসপ্লে, অনস্ক্রিণ পেন ইনপুট সমর্থিত উইন্ডোজ ১০ ইত্যাদি ফিটার। দাম নির্ধারণ হয়েছে ১ হাজার ৯৯ ডলার।

ম্যাশেবল অবলম্বনে রুদ্র মাহমুদ

দেশে আসুস আল্ট্রাবুক সিরিজের জেনবুক

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ‘সবার জন্য জেনবুক’ ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে দেশে আল্ট্রাবুক সিরিজের জেনবুক এনেছে গ্লোবাল ব্র্যান্ড (প্রা.) লিমিটেড।

ইতোমধ্যে দেশে পরিবেশক এই প্রতিষ্ঠানের সবগুলো শাখাতে পৌঁছে গেছে নোটবুকটি। আজ থেকে বিক্রিও শুরু হচ্ছে।

সোমবার রাজধানীর বাংলামোটরে বিআইজেএফ সম্মেলন কক্ষে জেনবুকটির উন্মোচনে সংবাদ সম্মেলন করে প্রতিষ্ঠানটি।

সংবাদ সম্মেলনে জেনবুকের এক্স ৪১০ মডেলটির বিস্তারিত জানান আসুসের পণ্য ব্যবস্থাপক আশিকুজ্জামান।

DSC_4020

তিনি বলেন, বিশ্বব্যাপী হালকা গড়নে শক্তিশালী নোটবুক হিসেবে আল্ট্রাবুকের চাহিদা বেড়েই চলেছে। আল্ট্রাবুক সিরিজের ল্যাপটপ সাধারণ ল্যাপটপ থেকে দেখতে আকর্ষনীয় এবং হালকা।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, দেশে জেনবুকের অনেকগুলো মডেল পাওয়া যাবে। তবে শুরুটা হচ্ছে ইউ এক্স ৪১০ মডেল দিয়ে। এর বিশেষত্ব হচ্ছে ডিসপ্লের দুপাশে ৬ মিলিমিটার ব্যাজেল রয়েছে। ফলে এর স্ক্রিন বডি অনুপাত ৮০ শতাংশ।

মাত্র ১.৪ কেজি ওজনের এই জেনবুকে আরও থাকছে ১৪ ইঞ্চির ফুল এইচডি ডিসপ্লে। এতে ব্যাকলিট কি-বোর্ড থাকায় কম আলোতেও নোটবুকটিতে টাইপ করা যাবে।

ইউএক্স ৪১০ মডেলের জেনবুকটি ৮ ঘণ্টা পর্যন্ত ব্যাটারি ব্যাকআপ দিতে সক্ষম। ফুল মেটাল বডির আল্ট্রাবুকটি ইন্টেল এর সপ্তম প্রজন্মের কোর আই থ্রি বা কোর আই ফাইভ দুটি প্রসেসর দিয়েই মিলবে।

কোয়ার্টজ গ্রে আর গোল্ড দুটি আকর্ষণীয় রঙ থেকে ক্রেতারা তাদের পছন্দসই নোটবুকটি পছন্দ করে নিতে পারবেন।

জেনবুকের মোট ১২ টি মডেল থেকে ক্রেতারা ইউএক্স সিরিজের ডিভাইস বেছে নিতে পারবেন। এই সিরিজের মূল্য শুরু হবে ৪৭ হাজার টাকা থেকে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন আসুসের কান্ট্রি ম্যানেজার আল ফুয়াদ, আসুসের পরিবেশক গ্লোবাল ব্র্যান্ডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রফিকুল আনোয়ার, পরিচালক জসিম উদ্দিন খোন্দকারসহ আরও অনেকে।

ইমরান হোসেন মিলন

জেনফোনের তিনটি মডেলে মূল্যছাড়

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : তাইওয়ানিজ টেকনোলজি ব্র্যান্ড আসুস দেশের বাজারে দ্বিতীয় প্রজন্মের স্মার্টফোনে ‘জেনসেল’ অফার ঘোষণা করেছে।

এই অফারে আসুস জেনফোন সিরিজের তিনটি মডেলের ডিভাইস কেনা যাবে মূল্যছাড়ে। অফারের আওতায় আসুস জেনফোন ২, জেনফোন সেলফি এবং জেনফোন লেজার।

যেখানে পাঁচ হাজার ৬১০ টাকা থেকে শুরু করে তিন হাজার ১৬০ টাকা পর্যন্ত ছাড় পাওয়া যাচ্ছে।

Zenfone-Discount-Techshohor

আসুস জেনফোন ২ এর দাম ২৪ হাজার ৬০০ টাকা থেকে কমিয়ে ১৮ হাজার ৯৯০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। ৫.৫ ইঞ্চির ফোনটিতে থাকছে ৪ গিগাবাইট র‌্যাম আর ৬৪ গিগাবাইট বিল্ট-ইন মেমোরি।

ইন্টেল কোয়াড কোর প্রসেসরের সঙ্গে ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা রয়েছে। আর সামনে রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা।

আসুস জেনফোন সেলফি ১৯ হাজার ৪৫০ টাকা থেকে মূল্যছাড়ে পাওয়া যাচ্ছে  ১৬ হাজার ২৯০ টাকা।

সেলফি বিশেষত্বের জন্য দুপাশেই রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। এতে ব্যবহৃত হয়েছে কোয়াল্কম স্ন্যাপড্রাগন ৬১৫ অক্টাকোর প্রসেসর। ৫.৫ ইঞ্চির ফুল এইচডি ফোনটিতে আরও রয়েছে ৩ গিগাবাইট র‌্যাম আর ১৬ গিগাবাইট রম।

আসুস জেনফোন লেজার মূল্যছাড়ে পাওয়া যাচ্ছে ১২ হাজার ৩৯০ টাকায়। যা আগে ছিল ১৬ হাজার ২০০ টাকা।

ফোনটিতে রয়েছে ৫.৫ ইঞ্চির এইচডি ডিসপ্লের এই ফোনটিতে রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেল লেজার সেন্সর সম্বলিত রিয়ার ক্যামেরা, সঙ্গে ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা।

স্ন্যাপড্রাগন ৬১৫ অক্টাকোর প্রসেসর, ২ জিবি র‌্যাম আর ১৬ গিগাবাইট মেমোরি। প্রতিটি ফোনেই রয়েছে ৩০০০ এমএএইচ ব্যাটারি।

প্রতিটি ফোনেই রয়েছে এক বছরের ওয়ারেন্টি। দেশে আসুসের পরিবেশক গ্লোবাল ব্র্যান্ড প্রাইভেট লিমিটেড এই ছাড় দিচ্ছে।

ইমরান হোসেন মিলন

আসুস ফোনে অ্যাপ ছাড়াই কল রেকর্ড যেভাবে

তুসিন আহমেদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ফোনে কথা বলার সময় অনেক ক্ষেত্রে রেকর্ডের প্রয়োজন হয়। বিশেষ করে কোনো গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশনা বা তথ্য সংরক্ষণের জন্য এর দরকার পরে। এ বিষয়টি মাথায় রেখে তৈরি করা হয়েছে অনেক অ্যাপ্লিকেশন। সেগুলো প্লেস্টোর থেকে ডাউনলোড করে ইন্সটল করতে হয়।

তবে আসুস ফোন ব্যবহারকারীদের কল রেকর্ডের জন্য আলাদা অ্যাপের প্রয়োজন নেই। এ ব্র্যান্ডের জেন ইউআই ফোনে ডিফল্টভাবেই রয়েছে এ সুবিধা। ফলে থার্ডপার্টি কোনো অ্যাপ ইন্সটলের ঝামেলা ছাড়াই করা যাবে কল রেকর্ড।

আপনার হাতের ফোনটি যদি জেন ইউআই হয়ে থাকে, তাহলে এতে যেভাবে অ্যাপ ইন্সটল ছাড়াই কল রেকর্ড করবেন তা নিয়ে এ টিউটোরিয়াল।

 

asus-techshohor

প্রথমে ফোনের সেটিংস অপশনে যেতে হবে।

এরপর ‘call settings’-এ যেতে হবে।

তাহলে কলিংয়ের নানা ফিচারের মেন্যু আসবে।

সেখান থেকে ‘other settings’-এ গিয়ে ‘auto call recording’ অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে।

asus-tips-techshohor

এরপর ‘ auto call recodring’ অপশনটি অন করে দিতে হবে।

চাইলে কোন নম্বরের কল রেকর্ড করবেন তা নির্ধারণ করে দেয়া যাবে এ সেটিংস পেইজ থেকেই।

রেকর্ড ফাইলটি ইন্টারনাল মেমোরিতে রেকর্ড নামে ফোল্ডারে পাওয়া যাবে।

আরও পড়ুন

কমদামি আসুস জেনফোন ৩ গো আসছে

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সর্বসাধারণের সাধ্যের মধ্যে স্মার্টফোন আনতে যাচ্ছে আসুস। এই মাসে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে স্মার্টফোনটি উন্মোচিত হতে পারে।

নতুন এই ফোনটির মডেল ‘আসুস জেনফোন ৩ গো’ যা আসুসের অন্যতম জনপ্রিয় ডিভাইস জেনফোন ২ এর পরবর্তী সংস্করণ হতে যাচ্ছে।

asus-zenfone-3-go-TechShohor

ইতালির একটি সূত্র জানিয়েছে, ৭২০ পিক্সেল রেজ্যুলেশনের ৫ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই ফোনটিতে থাকবে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৪১০ প্রসেসর। এছাড়া থাকছে ২ গিগাবাইট র‍্যাম।

ছবি তোলার জন্য পিছনে ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ও সামনে ৫ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা থাকবে। ফাঁস হওয়া ছবিদে দেখা গেছে স্মার্টফোনটি মেডাল বডির। ১৬০ ডলার থেকে শুরু হতে পারে স্মার্টফোনটির দাম। তবে এশিয়ার ক্ষেত্রে দামটি ভিন্ন হতে পারে।

ফোন এরিনা অবলম্বনে রুদ্র মাহমুদ

আসুস এক্স৫৪০এলজে : দামেও মাঝারি কাজেও তাই

এস এম তাহমিদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ল্যাপটপ কেনার সময় সাধ ও সাধ্যের সমন্বয় করাটা বেশ কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে। তরুনদের ক্ষেত্রে বেশিরভাগ সময়ই দেখা যায় ভার্সিটিতে ওঠার পরপরই ল্যাপটপ কেনার প্রয়োজন হয়। অথচ সেই সময় হাতে তেমন বাজেট থাকে না। বেশ দেখে শুনেও খুব ভালো স্পেসিফিকেশনের ল্যাপটপ জোটানো মুশকিল হয়ে পড়ে।

তবে হতাশ হবার কারণ নেই, অল্প বাজেটের মধ্যে সবকিছুই মোটামুটি করা যাবে এমন ল্যাপটপ আছে আসুসের। অন্যান্য কাজের পাশাপাশি শখের গেইমিংও করতে পারবেন আসুস এক্স৫৪০এলজে মডেল দিয়ে।

এ রিভিউতে থাকছে দেশে বেশ জনপ্রিয় এ ব্র্যান্ডের অপেক্ষাকৃত নতুন এ মডেলের আদ্যোপান্ত।

একনজরে আসুস এক্স৫৪০এলজে

  • কোর আই-থ্রি পঞ্চম প্রজন্মের প্রসেসর (i3 5005U)
  • ৪ গিগাবাইট ডিডিআর থ্রি র‌্যাম
  • ১৫.৬ ইঞ্চি এইচডি স্ক্রিন (১৩৬৬ x ৭৬৮ পিক্সেল রেজুলেশন)
  • এনভিডিয়া ৯২০এম ২ গিগাবাইট ডিডিআর ৩ ভির‌্যাম জিপিউ
  • ১ টেরাবাইট ৫৪০০আরপিএম হার্ডডিস্ক
  • ডিভিডি রাইটার
  • ভিজিএ ওয়েব ক্যামেরা
  • ১০/১০০ মেগাবিট ল্যান, ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ
  • ১.৯ কিলোগ্রাম ওজন

ডিজাইন
বাজেট ল্যাপটপের তূলনায় বেশ ভাল বিল্ড কোয়ালিটির এ ডিভাইস তৈরিতে প্লাস্টিক ব্যবহার করা হয়েছে। উপরের দিকে ও কিবোর্ডের আশেপাশের অংশে ব্যবহৃত প্লাস্টিকটিতে ব্রাশ করা ধাতব লুক দেওয়া হয়েছে।

ডান পাশে রয়েছে ডিভিডি ড্রাইভ এবং বামে একটি করে ইউএসবি ২, ৩, টাইপ-সি ৫ গিগাবিট পোর্ট, ল্যান পোর্ট, এইচডিএমআই পোর্ট, ভিজিএ পোর্ট, চার্জ পোর্ট ও হেডফোন/মাইক্রোফোন জ্যাক।

এটির স্ক্রিন ও নিচের অংশ তৈরি করা হয়েছে কালো ম্যাট প্লাস্টিক দিয়ে। নম্বরপ্যাডসহ আইল্যান্ড স্টাইল কিবোর্ড ব্যবহৃত হয়েছে।

পারফরমেন্স
কোর আই-থ্রি প্রসেসর নিয়ে নতুন করে বলার তেমন কিছু নেই। ডুয়াল কোর ১.৯ গিগাহার্জ গতির প্রসেসরটি সাধরণ সব কাজ করতে সক্ষম। যদিও ভারি কাজ, যেমন- ফটোশপ বা ভিডিও এডিটের জন্য ব্যবহার না করাই ভাল। সেক্ষেত্রে বাজেট একটু বাড়িয়ে কোর আই৫ সংস্করণটি কেনাই উত্তম।

এর সঙ্গে ৪ গিগাবাইট র‌্যাম থাকার ফলে বড় ভার্চুয়ালাইজেশনের কাজ বা ডিজাইনের কাজ করার জন্যও ল্যাপটপটি খুব বেশি সুবিধার নয়। নিচে প্রসেসরের গিকবেঞ্চ স্কোর দেয়া হলো।

তবে ডুয়াল কোর প্রসেসর ও ৪ গিগাবাইট র‌্যামের ফলে ল্যাপটপটি নেহাত বাজে নয়। সাধারণ অফিস কাজ, ভিডিও দেখা, গান শোনা, ওয়েব ব্রাউজ করার জন্য ল্যাপটপটি আদর্শ।

তবে ল্যাপটপটিতে এনভিডিয়া ৯২০এম গ্রাফিক্স ব্যবহার করার ফলে কিছুটা গেমিংও করা যাবে। যারা অল্প মূল্যের মাঝে পুরাতন ও কিছু নতুন গেইম খেলার মত একটি ল্যাপটপ খুজছেন তারা এটি কিনতে পারেন।

অন্যদিকে এনভিডিয়া জিপিউ হলেও ৯২০এম এর কাছ থেকে অসাধারণ পারফরমেন্স আশা করাটা ভুল হবে। যারা লো সেটিংস ও ৭২০পি রেজুলেশনে গেইম খেলতে দ্বিধা করবেন না তারা এটিতে লেটেস্ট সব গেইম যেমন রেসিডেন্ট ইভিল ৭, ব্যাটলফিল্ড ১ এর মত গেইমগুলো ৩০ ফ্রেম/প্রতি সেকেন্ড গতিতে খেলতে পারবেন।

পুরোনো গেইমের ক্ষেত্রে অবশ্যই এটি আরও বাড়বে, যেমন বায়োশক ইনফিনিট গেইমটি ৬০ এফপিএস স্পিডে পর্যন্ত চলতে দেখা গেছে – তবে লো সেটিংসের ওপর যাওয়ার কোনও সম্ভাবনাই নেই।

ব্যবহারিক সুবিধা-অসুবিধা
ল্যাপটপের পারফরমেন্সই শেষ কথা নয়। এটির ব্যবহারযোগ্যতা আরও অনেক কিছুর ওপরই নির্ভর করে। একটি একটি করে সেসব দেখা যাক।

  • ব্যাটারি লাইফ : এতে ইউ সিরিজের আই থ্রি প্রসেসর ব্যবহার করার ফলে ব্যাটারি লাইফ নিয়ে তেমন সমস্যা হবে না। ৪-৫ ঘন্টা থেকে ৭ ঘন্টা পর্যন্ত ব্যাটারি লাইফ আশা করা যেতে পারে। তবে গেইম খেলার সময় ২ ঘন্টার বেশি আশা করা ঠিক হবে না।
  • থার্মাল ডিজাইন : ল্যাপটপটিতে তেমন আহামরি কোনও থার্মাল ডিজাইন করা হয়নি। এ কারণে একটু গরম হবে। বিশেষত গেইম খেলার সময়। তবে সমস্যা হবার পর্যায়ে যাওয়ার সম্ভাবনা কম।
  • কিবোর্ড : আসুস ল্যাপটপের কিবোর্ডগুলো সাধারণত খুব ভাল বা খুব খারাপ নয়। মাঝারি মানের আইল্যান্ড স্টাইল কি ব্যবহার করা হয়। এখানেও কোনো ব্যাতিক্রম নেই। অতএব লম্বা সময় টাইপিংয়ে খুব সমস্যা হবে না। অবশ্যই এর চাইতে ভাল কিবোর্ড রয়েছে।
  • ওয়েবক্যাম : ভিজিএ ওয়েবক্যামটি একেবারে সাধারণ স্কাইপ কল ছাড়া অন্যান্য কাজে তেমন ব্যবহার উপযোগী নয়।
  • অডিও : কাজ চালানোর মত স্পিকার ও মাইক্রোফোন ল্যাপটপটিতে দেওয়া হয়েছে। আসুসের দাবি, প্রফেশনাল কোডেকের সাউন্ড হার্ডওয়্যার ও বেশ বড় ফ্রিকোয়েন্সি রেসপন্সের স্পিকার ব্যবহারের ফলে ভিডিও দেখায় বেশ সুবিধা পাওয়া যাবে। ব্যবহারিক পরীক্ষায় তা দেখাও গিয়েছে। যারা ল্যাপটপের স্পিকারে গান শোনা বা ভিডিও দেখে থাকেন তাদের জন্য বেশ ভাল এটি।
  • ওজন: ১.৯ কিলো ওজনের ল্যাপটপটি বেশ সহজেই বহনযোগ্য।

মূল্য
৩৪,৫০০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে আসুসের ডিলারদের কাছ থেকে।

একনজরে ভাল

  • এনভিডিয়া জিপিউ থাকায় হালকা গেমিং করা যাবে
  • কোর সিরিজের প্রসেসর। ফলে ব্রাউজিং বা এইচডি ভিডিও দেখতে সমস্যা নেই
  • দৃষ্টিনন্দন ডিজাইন
  • মূল্য সাধ্যের মধ্যে

একনজরে খারাপ

  • ভারি কাজের জন্য যথেষ্ট নয়
  • র‌্যাম বাড়ানো বেশ ঝামেলার
  • ফুল প্লাস্টিক বডি

মে মাসে আসবে আসুস জেনফোন ৪

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বছরের প্রথম তিন প্রান্তিকে আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হলেও ২০১৬ সালে আসুস প্রচুর পরিমাণে তাদের জেনফোন ৩ স্মার্টফোন বিক্রি করেছে। শেষ প্রান্তিকে অবস্থা ঘুরে দাড়ালেও অর্জিত মুনাফা প্রথম তিন প্রান্তিকে ক্ষতি পুষিয়ে দেয়নি।

সবমিলে গত বছরে আসুন জেনফোন সিরিজের ১ কোটি ৭৫ লাখ ফোন বিক্রি করেছে। যদিও তা আগের বছরের তুলনায় কম (২ কোটি ৫ লাখ)।

তবে ভালো খবরটি হলো, ২০১৭ সালে প্রধম অর্ধবছর নিয়ে কোম্পানিটি একটি সঠিক রোডম্যাপ তৈরি করেছে। পরিকল্পনা অনুযায়ী মুনাফা বাড়াতে জেনফোন ৩ জুম ও জেনফোন এআর উন্মোচন করবে।

ZenFone-Logo-TechShohor

সূত্র জানিয়েছে, এ বছর আসুসের সবচেয়ে বড় চমক জেনফোন ৫ স্মার্টফোন। আর এই চমকটির দেখা মিলবে মে মাসে।

বিস্তারিত কোনো তথ্য প্রকাশ করা না হলেও জানা গেছে জেনফোন ৩ স্মার্টফোনের চেয়ে ভালোমানের হার্ডওয়্যার ও সুবিধা নিয়ে আসবে জেনফোন ৪।

তবে ঠিক কবে নাগাদ ফোনটি আনার ঘোষনা দেবে তা এখনও প্রকাশ হয়নি। ধারণা করা হচ্ছে ফেব্রুয়ারিতে মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে এই ঘোষনা আসতে পারে। আর বাজারে আসতে তা কয়েক মাস গড়াবে। সেই হিসেবে মে মাস সঠিকই বলে মেনে নেওয়া যায়।

জিএসএম এরিনা অবলম্বনে রুদ্র মাহমুদ