নতুন ৮ ফিচারে আইওএস ১১

তুসিন আহমেদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : প্রতিবছরের মতো এবারো আইপ্যাড ও আইফোন ব্যবহারকারীদের জন্য আইওএসের নতুন সংস্করণ নিয়ে হাজির হলো টেক জায়ান্ট অ্যাপল।

প্রতিষ্ঠানটির বার্ষিক ডেভেলপার সম্মেলনে নতুন আইওএস ১১ অপারেটিং সিস্টেমের ঘোষণা দেয় অ্যাপলের প্রধান নির্বাহী টিম কুক। এবার আইওএসের সবচেয়ে বড় আপডেট হলো অ্যাপল স্টোরের রিডিজাইন, অ্যাপল পে ও স্মার্টসিরি।

এছাড়া অ্যাপল বেশ কয়েকটি নতুন ফিচার গ্রাহকদের জন্য যুক্ত করেছে । চলুন এক নজরে দেখে নেয়া যাক  কী কী নতুন আপডেট আনা হয়েছে।

আরও স্মার্ট সিরি

অ্যাপলের ভয়েস অ্যাসিস্টেন্ট সিরিকে আরও উন্নত করা হয়েছে নতুন ওএসে। এখন সিরি ব্যবহারকারীদের অভ্যাস ধীরে ধীরে শিখে নিতে পারবে এবং সে অনুযায়ী উত্তর দিবে। সিরি আইওএস, ওয়াচওএস, টিভিওএস ও আউক্লাউড থেকে ব্যবহারকারী সম্পর্কে ধারণা নিয়ে সে অনুযায়ী সাহায্য করতে পারবে।

সিরি এখন থেকে ইংরেজিকে চাইনিজ, ফ্রেঞ্চ, জার্মান, ইটালিয়ান ও স্প্যানিশ ভাষাকে অনুবাদ করতে পারবে। ফলে সিরি ব্যবহার আরও উপভোগ্য হবে ব্যবহারকারীদের কাছে।

অ্যাপল মিউজিক 

এ বছরও নতুন রূপে এলো অ্যাপল মিউজিক। এখন থেকে অ্যাপল মিউজিক অ্যাপে বন্ধুরা কি গান শুনছে তা দেখা যাবে। ফলে নতুন নতুন গান খুঁজে পাওয়া সহজ হবে। নতুন আপডেটে থার্ডপার্টি কিছু অ্যাপ মিউজিক অ্যাপটির অ্যাক্সেস পাবে। ফলে শামাজ অ্যাপ ব্যবহার করে গান খুঁজে তা অ্যাপল মিউজিকে যুক্ত করা যাবে।

নতুন অ্যাপস্টোর

অ্যাপল সম্পূর্ণ নতুর রূপে তাদের অ্যাপ্লিকেশনের বাজার সাজিয়েছে। মোট কথা অ্যাপস্টোরটিকে রিডিজাইন করা হয়েছে। যুক্ত করা হয়েছে নতুন ইউজার ইন্টারফেস। নতুন সংস্করণে অ্যাপ্লিকেশন, গেইম ক্যাটাগরি আলাদাভাবে প্রদর্শিত হবে। ফলে সহজেই পছন্দের অ্যাপটি খুঁজে পাওয়া যাবে। এছাড়া অ্যাপ রিভিউয়ের ক্ষেত্রে ভিডিও’তে ফোকাস করা হয়েছে।

অ্যাপল পে

অর্থ লেনদেনের জন্য অ্যাপল পে ধীরে ধীরে আরও উন্নত হয়ে উঠছে। এখন যে বন্ধু অ্যাপল পে ব্যবহার করে তার কাছে সহজেই অ্যাপল ওয়ালেট থেকে টাকা পাঠানো যাবে ম্যাসেঞ্জার অ্যাপে মাধ্যমে। এতে নিরাপত্তামূলক সব ব্যবহারই অক্ষুন্ন থাকবে।

ম্যাপস

নতুন সংস্করণে অ্যাপল ম্যাপসের নেগিভিশন আরও উন্নত করা হয়েছে। আগের তুলনায় এটিকে আরও গতিময় করে তোলা হয়েছে। এই ফিচারের নতুন চমক হলো, ব্যবহারকারীরা চাইলে জুম করে শপিং সেন্টার বা এয়ারপোর্টের ভিতরের লোকেশনও সহজেই দেখে নিতে পারবেন। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের শপিং সেন্টার ও নির্দিষ্ট কিছু এয়ারপোর্টে এই সুবিধা পাওয়া যাবে। অ্যাপল জানিয়েছে, ধীরে ধীরে এই সংখ্যা বৃদ্ধি করা হবে।

‘ডু নট ডিস্টার্ব হোয়াইল ড্রাইভিং’

গাড়ি চালানোর সময় ফোন ব্যবহারের কারণে অনেক দুর্ঘটনা ঘটে। তাই ‘ডু নট ডিস্টার্ব হোয়াইল ড্রাইভিং’ ফিচার যুক্ত করা হয়েছে আইওএসের নতুন সংস্করণে। ফোনের সঙ্গে ব্লুটুথ বা হেডফোন যুক্ত থাকা অবস্থায় কল বা এসএমএস আসলে তা হোল্ড করে রাখবে সফটওয়্যারটি। কোনো নোটিফিকেশন বা নিউজ আপডেট আসলে তাও দেখাবে না নতুন এই ফিচার।

ড্রাইভিংয়ের সময় কেউ ফোন করলে আইওএস ১১র ফিচারটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে ম্যাসেজ রেখে দিতে বলবে। সেই সঙ্গে জানিয়ে দেবে, আপনি ড্রাইভ করছেন। শুধু তাই নয়, ড্রাইভারের জন্য ফিচারটি কিছু অ্যাপও লক করে রাখবে। যাতে গাড়ি চালানোর সময় মনযোগের ঘাটতি না হয়। তবে রাস্তা চেনাতে অ্যাপল ম্যাপ ও নেভিগেশন অ্যাপের সহায়তা নেওয়া যাবে। 

ম্যাসেজ

ফোন হারিয়ে গেলে বা নতুন ডিভাইস কিনলে ম্যাসেজ হারিয়ে যাওয়া নিয়ে বিপাকে পড়তে হয়। তাই আইওএস ১১তে  ম্যাসেজ অ্যাপে থাকা তথ্যগুলো বিভিন্ন ডিভাইসের সঙ্গে সিনক্রোনাইজেশন করতে পারবে এবং বার্তাগুলোর  ব্যাকআপ রাখা যাবে আইক্লাউডে। আবার যদি আইফোনের ম্যাসেজিং অ্যাপ থেকে কোনো তথ্য মুছে ফেলা হয়, তবে আইপডসহ  অন্য ডিভাইস থেকেও সেই তথ্যও মোছা যাবে।

কন্ট্রোল সেন্টার

আইওএসের কন্ট্রোল সেন্টারে বেশ কয়েকটি পরিবর্তন আনা হয়েছে। এতে নতুন ইউজার ইন্টারফেস কন্ট্রোল সেন্টার আরও সহজে নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। এর সঙ্গে  থ্রিডি টাচ সাপোর্টের সুবিধাও যুক্ত করা হয়েছে।

২০ লাখ ভারতীয় ডেভেলপারকে প্রশিক্ষণ দেবে গুগল

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ভারতের ২০ লাখ ডেভেলপারকে অ্যান্ড্রয়েড প্লাটফর্মে প্রশিক্ষণ দেবে সার্চ ইঞ্জিন জায়ান্ট গুগল। প্রতিষ্ঠানটির ‘অ্যান্ড্রয়েড স্কিলিং অ্যান্ড সার্টিফিকেশন’ প্রোগ্রামের আওতায় আগামী তিন বছরে এই প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী’র ‘স্কিল ইন্ডিয়া ইনিসিয়েটিভ’কে সহযোগিতা করার জন্য এই উদ্যোগ নিয়েছে গুগল। প্রশিক্ষণার্থীদের এন্ড টু এন্ড অ্যান্ড্রয়েড, ট্রেইনিং চ্যানেল, সহযোগী অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপার সার্টিফিকেশনসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় শেখানো হবে।

google-techshohor

গুগলের পণ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহ-সভাপতি সিজার সেনগুপ্ত এ সম্পর্কে বলেন, এই প্রশিক্ষণটি হবে বিশ্বমানের। ভারতের কয়েক লাখ শিক্ষার্থীকে বিশ্বমানের সিলেবাস দিয়ে সহজেই ডেভেলপিং শেখানো হবে। মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্টে ভারতের স্কিল ইন্ডিয়া ইনিসিয়েটিভে অবদান রাখতে আমরা এই উদ্যোগ নিয়েছি।

ভারতের সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের এই প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। আগামী ১৮ জুলাই থেকে এই প্রশিক্ষণটি শুরু হবে বলে জানিয়েছে গুগল।

ইকোনোমিক টাইমস অবলম্বনে শামীম রাহমান

আরও পড়ুন: 

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপ শিখুন বিনামূল্যে

মোশাররফ রুবেল, অ্যাপ ডেভেলপার  অতিথি লেখক : সাম্প্রতিক ট্রেন্ডিং ক্যারিয়ারগুলোর মধ্যে গুগলের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট অন্যতম। আপনি হয়ত অনেকবার ভেবেছেন এ কাজটি শিখবেন। সময় ও সুযোগের অভাবের পাশাপাশি পর্যাপ্ত রিসোর্স ও গাইডের অভাবে শুরু করা হয়নি। তবে আপনার এ হতাশা কাটবে ইউডেমিতে যোগ দিলে।

এটি এমন একটি প্লাটফর্ম যেখানে যুক্ত হয়ে অ্যাপ ডেভেলপের মতো জটিল কাজও আপনি সহজে ও একেবারে বিনামূল্যে শিখতে পারবেন। ইউডেমিতে সেরা ডেভেলপাররা যুক্ত হয়ে তৈরি করেছে চমৎকার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট কোর্স।

ইতিমধ্যে প্রায় ৪৬ হাজার শিক্ষার্থী কোর্সটি থেকে শিখেছে অ্যাপ ডেভেলপের সবকিছুই। প্রায় সাড়ে ১২ ঘন্টার এ কোর্সে রয়েছে স্ক্যার্চ থেকে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট শেখার সব উপাদান। অর্থাৎ শুরু থেকে একজন ডেভেলপার হয়ে ওঠা পর্যন্ত সবকিছুই।

learn-android-development-techshohor

১২১ লেকচারের কোর্সটিকে সাজানো হয়েছে ১৫ সেকশনে। ১৫ বছরের বেশি অভিজ্ঞতার অ্যাডাম লুপু ও অ্যাডাম শোয়েম কোর্সটি তৈরি করেছেন বেশ গবেষণা করে।

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপের জন্য সবচেয়ে দরকারি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ হচ্ছে জাভা। তাই কোর্সের প্রথম সেকশনে রয়েছে জাভার সম্পর্কে লেকচার। জাভা কি, জাভার সিম্বল, ম্যাথড, ডাটা টাইপ ভ্যারিয়েবল ইত্যাদি।

মেমরি ম্যানেজমেন্ট প্রোগ্রামিং বেশ গুরুত্বপূর্ণ একটি অধ্যায়। ভালো প্রোগ্রামার কিংবা ডেভেলপার হতে গেলে আপনাকে অবশ্যই এটা জানতে হবে। ব্যতিক্রমধর্মী এ কোর্সের দ্বিতীয় অধ্যায়ে তুলে ধরা হয়েছে বিষয়টি। কম্পিউটারের মেমরি সম্পর্কেও জানা যাবে এ সেকশনে।

অ্যারে, লিস্ট, ম্যাপ ইত্যাদি নিয়ে সাজানো হয়েছে তৃতীয় অধ্যায়। মূলত ডেটা স্ট্রাকচার সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারনা মিলবে এখানে।

learn-android-development-techshohor

ইফ এলস, ফর লুপ, ডু হোয়াইল, নেস্টেড লুপ, হোয়াইল, ব্রেক, সুইচ – খুব পরিচিত কী-ওয়ার্ড প্রোগ্রামাদের কাছে। যারা নতুন কোডিং শিখছেন তাদের জন্য এ কী-ওয়ার্ডগুলো অন্যরকম উত্তেজনা নিয়ে দেখা দেয়। এসব নিয়েই ধারণা দেয়া হয়েছে চতুর্থ অধ্যায়ে।

অবজেক্ট অরিয়েন্টেড প্রোগ্রামিং ও ডেটা ম্যানুপুলেশন সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যাবে কোর্সটির পরবর্তী দুই অধ্যায়ে।

সপ্তম অধ্যায়ে থাকবে এক্সএমএলের বেসিক সম্পর্কে ধারণা। এক্সএমএল কি, আপনার অ্যাপের ইউজারের সঙ্গে এক্সএমএলের সম্পর্ক জানা যাবে এখানে।

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপের ক্ষেত্রে ইউজার ইন্টারফেস ডিজাইনের জন্য মূলত এক্সএমএল জানা প্রয়োজন।

অ্যান্ড্রয়েডের ইন্টেন্ট, অ্যাক্টিভিটি, অ্যাক্টিভিটির লাইফ সাইকেল ও অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম সম্পর্কে জানা যাবে আট নম্বর অধ্যায়ে। সাতটি লেকচারের সাহায্যে সাজানো হয়েছে এ অধ্যায়।

লিস্ট আইটেম কিভাবে দেখানো যাবে অ্যান্ড্রয়েডে? শুধু লিস্ট ভিউ, কাস্টম লিস্টভিউ, অ্যাডাপটর, কাস্টম অ্যাডাপটর নিয়েই সেকশন নয়।

learn-android-development-techshohor

পরবর্তী অধ্যায়গুলোতে দেখানো হবে ফ্র্যাগমেন্ট, ন্যাভিগেশ, শেয়ার্ড প্রেফারেন্স, নেটওয়ার্কিং, এপিআইসহ জেসন ডেটা সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা।

১১৪ নম্বর লেকচার পর্যন্ত অ্যান্ড্রয়েডের এ মৌলিক বিষয়গুলো শেখানো হবে বিনামূল্যের এ কোর্সে।

কোর্সের শেষ দিকে ১৪ নম্বর অধ্যায়ে কিভাবে অ্যাপসস্টোরে অ্যাপ পাবলিশ করতে হবে তা নিয়ে জানানো ও শেখানো হবে শিক্ষার্থীদের।

অ্যামাজন স্টোরে কিভাবে ডেভেলপার অ্যাকাউন্ট করতে হবে ও অ্যাপ আপলোড করতে হবে সেটিও দেখানো হবে এ অধ্যায়ে।

চমৎকার এ কোর্সের শেষ অধ্যায় থেকে জানা যাবে নিজেকে অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপার হিসবে গড়ে তোলার পদক্ষেপগুলো।

সম্পূর্ন বিনামূল্যের কোর্সটিতে প্রবেশ করা যাবে ইউডেমির এ লিংক থেকে।

rubel

 

 

 

আরও পড়ুন

অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপারদের নতুন সংগঠন

তুসিন আহমেদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপাররা নতুন একটি সংগঠন গঠন করেছে। বাংলাদেশ অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপার্স আসোসিয়েশন নামে এটি আত্মপ্রকাশ করে।

রাজধানীর মিরপুরে অ্যাপবাজারের অফিসে সম্প্রতি অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপারদের এক মিটআপে নতুন সংগঠনটির ঘোষণা দেওয়া হয়।

অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপার্স অব বাংলাদেশ ফেসবুক গ্রুপের আয়োজিত এ মিটআপে প্রায় ৫০ জন ডেভেলপার অংশ নেন। এতে ডেভেলপারদের মান উন্নয়ন ও সবাইকে একই ছাতার নিচে নিয়ে আসার বিষয়ে আলোচনা শেষে সংগঠন গঠনের সিদ্ধান্ত হয়।

and

অ্যাপ বাজারের প্রধান নিবার্হী শফিউল আলম বিপ্লব বলেন, জ্ঞান বিনিময় ও নতুনদের দক্ষতা উন্নয়ন, ডেভেলপার ও ব্যবহারকারীদের মধ্যে চিন্তা ধারার পরিবর্তনের জন্য এমন সংগঠন প্রয়োজন।

অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপার মোশাররফ রুবেল বলেন, ডেভেলপারদের মান উন্নয়নের জন্য কর্মশালা, সেমিনার আয়োজন করা হবে। এ ছাড়া কোম্পানিগুলোতে নিয়োগের ক্ষেত্রে ডেভেলপারদের জন্য সার্টিফিকেশন পরীক্ষার আয়োজন করা হবে।

মিটআপে আরও উপস্থিত ছিলেন ডেভেলপার সাব্বির আমহেদ রেজন, শাহরিয়ার আনোয়ার শিশির , তারেকুল ইসলাম মুকুল, হাবিব উল্লাহ বাহার প্রমুখ।

 

আরও পড়ুন:

গুগলের ডেভফেস্ট ১৬ অক্টোবর

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : এক হাজার ১৭২ জন অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপারকে আরও দক্ষ করে গড়ে তুলতে ১৬ অক্টোবর শুরু হচ্ছে ডেভফেস্ট ২০১৫।

১০ আগস্ট থেকে ৭ সেপ্টেম্বর ‘অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপমেন্ট ফর বিগেনার্স’ শিরোনামে বিশেষ স্টাডি জ্যাম সেশন আয়োজন করে এক হাজার ১৭২ জন অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপার তৈরি করেছে গুগল বাংলাদেশ। ডেভফেস্টের দিনব্যাপী কর্মশালার মাধ্যমে তাদের আরও দক্ষ করে তোলা হবে।

কর্মশালাটিতে ডেভেলপারদের তৈরিকৃত প্রজেক্ট প্রদর্শনের সুযোগ থাকবে। এছাড়া গেইমারদের জন্য থাকবে বিশেষ আয়োজন। ডেভফেস্টের মাধ্যমে বাছাই করা ডেভেলপারদের নিয়ে পরবর্তীতে হ্যাকফেস্ট ২০১৫ আয়োজন করা হবে।

devfest 2015

স্টাডি জ্যাম কার্যক্রমটি দেশের ৭টি বিভাগের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ৩৮টি ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত হয়। এখানে ৩৮টি গ্রুপে মোট এক হাজার ১৭২ জন অংশগ্রহণকারীকে অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপিং শেখানো হয়।

এই কার্যক্রম সমন্বয় ও পরিচালনা করে গুগল ডেভেলপার্স গ্রুপের (জিডিজি) চারটি কমিউনিটি জিডিজি ঢাকা, জিডিজি সোনারগাঁও, জিডিজি বাংলা এবং উইমেন টেকমেকার।

আহমেদ মনসুর

টেলিকম অ্যাপ বানানোর প্রতিযোগিতায় সেরা চুয়েট

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশে প্রথমবারের মত আয়োজিত টেলিকম অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপার হ্যাকাথনে (টিএডিহ্যাক) বাংলাদেশ পর্বের চ্যাম্পিয়ন হয়েছে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) টিম কম্প-এক্স। পুরস্কার হিসবে দলটি পেয়েছে ১ হাজার মার্কিন ডলার।

মোবাইল ফোন অপারেটর রবি আজিয়াটা লিমিটেড এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে। রাজধানীর রবি রিক্রিয়েশন সেন্টারে ১৩ থেকে ১৪ জুন হ্যাকাথনটির আয়োজন করা হয়।

প্রতিযোগিতার বাংলাদেশ পর্বে চুয়েট ছাড়াও আহছানউল্লাহ ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি (এইউএসটি), মিলিটারি ইন্সটিটিউট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি (এমআইএসটি), ক্রিয়েটিভ ডেভেলপারস লিমিটেড, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি (ডিআইইউ) ও ই-ল্যাবস বাংলাদেশ লিমিটেডের দলগুলো অংশগ্রহণ করে।

Telecom Application Developer Hackathon

টিএডিহ্যাক হচ্ছে সবচেয়ে বড় আন্তর্জাতিক টেলকো অ্যাপস ডেভেলপমেন্ট হ্যাকাথন। বিশ্বজুড়ে একই সময়ে হ্যাকাথনটি অনুষ্ঠিত হয়। এ বছর ১২টি দেশের (পর্তুগাল, আর্জেন্টিনা, বাংলাদেশ, তুর্কি, ইসরায়েল, শ্রীলঙ্কা, ভারত, স্পেন, আয়ারল্যান্ড, ইংল্যান্ড ও যুক্তরাষ্ট্র) ১২শ’র বেশি প্রতিযোগী এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে।

টিএডিহ্যাকের বাংলাদেশ পর্বে মোট ৩০ জন মেধাবী অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপার অংশগ্রহণের সুযোগ পান। বৈশ্বিক এই প্রতিযোগিতার জন্য যোগ্য অ্যাপ ডেভেলপারদের বাছাই করতে কঠোর প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হয়।

প্রতিযোগিতার বাংলাদেশ পর্ব শেষে ছয়টি দলের তৈরি অ্যাপ্লিকেশনগুলো বৈশ্বিক প্রতিযোগিতার জন্য পাঠানো হয়েছে। বৈশ্বিক চ্যাম্পিয়নের পুরস্কার মূল্য ৩৫ হাজার মার্কিন ডলার।

হ্যাকাথনের নিয়ম অনুযায়ী, অংশগ্রহণকারীরা টানা ২৪ ঘণ্টা তাদের নিজস্ব অ্যাপটি তৈরির জন্য কাজ করার সুযোগ পান এবং প্রতিযোগিতার স্থান ছেড়ে অন্য কোথাও যাওয়ার অনুমতি পান না। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে প্রতিযোগীরা তাদের অ্যাপের ধারণা প্রদান, অ্যপটি ডেভেলপ করা ও বিশেষজ্ঞ বিচারকদের সামনে উপস্থাপন করেন।

বিচারকদের মধ্যে ছিলেন রবি আজিয়াটা লিমিটেডের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট (ইভিপি) অ্যান্ড হেড অব ডিজিটাল সার্ভিসেস মোহাম্মদ মঞ্জুর রহমান, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির হেড অব কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) প্রফেসর ড. সৈয়দ আখতার হোসেন ও বাংলা ট্র্যাক মাইকি ভিএএস লিমিটেডের সিইও তারো আরায়া।

আহমেদ মনসুর

গুগলপ্রেমীদের মিলনমেলায় ডেভেলপারদের ব্যস্ততম দিন

ফখরুদ্দিন মেহেদী, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশে ডেভেলপারের সংখ্যা বাড়ছে। এ কারণে একই দিন একই সময়ে তিন স্থানে ডেভেলপারদের সম্মেলন করতে হয়েছিল ডেভফেস্ট আয়োজকদের। সব কটি ভেন্যুতেই ছিল ডেভেলপারদের সরব উপস্থিতি।

এখন দেশে সবগুলো প্লাটফর্মে কতজন কাজ করেন এমন পরিসংখ্যান বলতে পারেননি অনেকেই। তবে বিভিন্ন আয়োজনে ডেভেলপারদের অংশগ্রহণ আগের চেয়ে অনেক বেশি চোখে পড়ে। তথ্যপ্রযুক্তির গুরুত্বপূর্ণ এ বিষয়ে আগ্রহ বাড়ছে অনেকের। তাই ডেভেলপারদের আয়োজনগুলোতে কৌতুহলী তরুনদের ব্যস্ততম সময় কাটাতে দেখা যায়।

এমনটিই দেখা গেল শনিবার গুগল ডেভেলপার গ্রুপের (জিডিজি) আয়োজনে ‘ডেভফেস্ট ২০১৪’- এর ঢাকা পর্বে। একই দিন রাজশাহী এবং খুলনায় একই ধরনের আরেকটি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

আরও পড়ুন : ডেভেলপাদের হাতেকলমে শেখাতে ৩ জেলায় ডেভফেস্ট 

google developer-techshohor

সেখানেও ডেভলপাররা হাতে কলমে বিভিন্ন বিষয় শিখতে ও সফলদের অভিজ্ঞতার গল্প শুনতে হাজির হয়েছিলেন অনেক আগ্রহ নিয়ে। এ তিনটি সম্মেলনে সর্বমোট ৩৫০ ডেভেলপার অংশ নেন। যদিও সম্মেলনে যোগ দিতে নিবন্ধন করেছিলেন ৯০০ জন বলে জানান আয়োজকরা।

আয়োজক জিডিজির ব্যবস্থাপক আরিফ নিজামী বলেন, বাংলাদেশে কমিউনিটি তৈরিতে তাদের গ্রুপ দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে যাচ্ছেন। দিন দিন এ কমিউনিটি অনেক বড় হচ্ছে। বিশেষ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের তরুণরা ডেভেলপার হিসাবে কাজ করতে আগ্রহী হয়ে উঠছেন। তাদের বড় অংশ গুগলের সঙ্গে যুক্ত হচ্ছেন।

এদেশের ডেভেলপারাই একদিন বিশ্বজুড়ে প্রতিযোগিতা করবে বলে বিশ্বাস করেন তরুণ এ গুগল কর্মকর্তা।

google-developer-devfest-techshohor

ডেভেলপারদের কাঙ্খিত এ সম্মেলনে তাদের বিভিন্ন সমস্যা, সুযোগ, চ্যালেঞ্জ এবং কমিউনিটি তৈরির বিষয়ে আলোচনায় মেতেছিলেন দেশের প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ ও ডেভেলাপাররা। ক্লাউড কম্পিউটিং, প্রযুক্তিতে নারীর অবদান, গুগল গ্লাসের ব্যবহার ও সাইবার সিকিউরিটির বিষয়ে আলোচনায় উঠে এসেছে নানা দিক।

এতে জিডিজির পরিচিতি, বাংলাদেশে গুগল, ফ্রিলান্সিং অপরচুনিটি, অ্যান্ড্রয়েড ডিজাইন স্প্রিন্ট, সাইবার সিকিউরিটি, ইন্টারনেট অ্যান্ড্রয়েডসহ আরও নানা বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

ঢাকায় ক্লাউড ক্যাম্পের প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ জামান বলেন, ট্রেডিশনাল ডাটা সিস্টেমের দিন ফুরিয়ে এসেছে। এখন যুগ ক্লাউডের। আর ক্লাউড কম্পিউটিং সিস্টেমে যেতে হলে প্রথমে অবকাঠামো নির্মান করতে হবে। আর এ কাজ এগিয়ে নিতে ডেভেলপারদের অংশগ্রহণের কোনো বিকল্প নেই।

তার মতে তরুণ ডেভেলপাররা দেশে ক্লাউড সিস্টেম প্রযুক্তির অগ্রপথিক হবেন।

google-developer-devfest-techshohor

প্রযুক্তিতে নারীর অংশগ্রহণ ছাড়া প্রকৃত উন্নয়ণ সম্ভব নয় বলে মনে করেন বেসিসের পরিচালক এবং টিম ইঞ্জিনের প্রতিষ্ঠাতা সামিরা জুবেরী হিমিকা। তিনি বলেন, বিনিয়োগের চ্যালেঞ্জ অতিক্রম করতে পারলে নারীরা এ খাতে অনেক ভালো কাজ করে দেখাতে পারবেন।

ডিক্যাস্টালিয়া ডটকমের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও নারী উদ্যোক্তা সাবিলা ইনুন বলেন, প্রচলিত একটি ধারণা আছে নারীরা কোডিংয়ে দুর্বল। তবে এটা ঠিক নয়। পর্যাপ্ত সুবিধা পেলে নারীরাও কোডিংয়ের মতো বড় কাজগুলোতে তাদের দক্ষতা প্রমান করতে পারে।

ডেভফেস্টের সবচেয়ে আকর্ষনীয় উপস্থাপনা ছিল সাইবার সিকিউরিটি নিয়ে। নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ নুরুন্নবী রহমান তার উপস্থাপনায় ম্যালওয়্যার ছড়ানোর মাধ্যমে ওয়েবসাইট হ্যাক করার বর্ণনা দেন। দুর্বল মানের ওয়েবসাইট ও সাইট দেখাশোনায় গাফলতির কারণে হ্যাকিংয়ের শিকার হতে হয় বলে জানান তিনি।

google-developer-devfest-techshohor

এ নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ বলেন, হ্যাকারদের হাত থেকে বাচঁতে হলে ইথিক্যাল হ্যাকিং তৈরি করতে হবে। ওয়েবসাইটের খুঁতগুলো সমাধানের পাশাপাশি প্রতিটি প্রতিষ্ঠানে দু’একজন হ্যাকারকে কর্মী হিসাবে রাখারও পরামর্শ দেন তিনি।

সম্মেলনে ‘ইনট্রো টু ৬ বিয়ন্ড অ্যান্ড ওয়ারেবল টেকনোলজিস’ নামের একটি প্রতিষ্ঠান গুগল গ্লাসের জন্য একটি অ্যাপ তৈরির কথা জানানো হয়। অ্যাপটি গুগল গ্লাসের ৫ মেগা পিক্সেল ক্যামেরা দিয়ে বিভিন্ন স্থানের ভিডিও মনিটর করতে পারে। মনিটরকারী সরাসরি ভিডিও দেখে কোথাও ভুল হচ্ছে কিনা তা ধরিয়ে দেওয়া বা প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিতে পারবেন।

অ্যাপটির নির্মাতা সামি ইসলাম জানান, সব ম্যানুয়াল কাজ করতে বিশেষ করে চিকিৎসা বিজ্ঞানে এটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

আরো পড়ুনঃ

জব বাতিল করলে প্রোফাইল স্কোর কমে যাবে

ফ্রিল্যান্স আউটসোর্সিং পেশা হিসাবে জনপ্রিয় হচ্ছে। সফলদের সাফল্য গাথার গল্প শুনে তরুনরা আগ্রহী হচ্ছেন। নতুনদের মধ্যে ঝোঁক বাড়ছে। স্বাভাবিকভাবে জাগছে বিভিন্ন প্রশ্ন।

নতুন প্রযুক্তিগত উন্নয়নে যোগ হচ্ছে নতুন জিজ্ঞাসার। এসব জিজ্ঞাসার সমাধান দিতে নবীন ফ্রিল্যান্সারদের পাশে থাকছে টেকশহর ডটকম

এর অংশ হিসাবে টেকশহরডটকমে ইল্যান্স-ওডেস্কের বাংলাদেশ কান্ট্রি ম্যানেজার সাইদুর মামুন খান নিয়মিত ফ্রিল্যান্স ও আউটসোর্সিং সম্পর্কিত বিভিন্ন টিউটোরিয়াল ও নিবন্ধ লিখছেন এবং প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছেন। প্রশ্নোত্তর নিয়মিত প্রতি সপ্তাহে একদিন প্রকাশ করা হচ্ছে।

ফ্রিল্যান্স-আউটসোর্সিং সম্পর্কিত নানা বিষয়ে জানতে চান প্রশ্ন করুন এ লিংক থেকে।

আরও পড়ুন : মার্কেটপ্লেসের উপযুক্ত হতে প্রোফাইল তৈরি শিখতে হবে

Elance-oDesk-weekly-answer-TechShohor

স্বপন
প্রশ্ন : শুধু html, css, php এবং javascript  শিখে কি অনলাইন মার্কেটপ্রেসগুলোতে ওয়েব ডিজাইনের কাজ পাওয়া সম্ভব? নাকি ওয়ার্ডপ্রেস শিখতে হবে?

সমাধান : এ কাজগুলো দিয়েও হবে, তবে সেক্ষেত্রে আপনার সবসময়ই অন্য কোনো ডেভেলপারের হয়ে কাজ করে যেতে হবে। এমন কারও, যে নিজের কাজ ভাগ করে অন্য কাউকে দিয়ে করিয়ে নিচ্ছে। যদি ওয়ার্ডপ্রেস ডেভেলপমেন্টটাও শিখে নিতে পারেন, তাহলে একজন পরিপূর্ণ ডেভেলপার হিসেবে নিজেই সার্ভিস প্রোভাইড করতে পারবেন।

এমদাদ
প্রশ্ন : কিছুদিন যাবত আমি ওডেস্কে আমি ৫ ডলারের নিচে বিড করতে পারছি না। সেখানে এটা ফিক্সড করে দিছে। আমি কি করতে পারি এখন। কেন এমনটা হচ্ছে?

সমাধান : এটা এখন আর থাকার কথা না। ওডেস্কে সর্বনিম্ন রেট হচ্ছে ৩ ডলার প্রতি ঘণ্টা, সেটাই লিমিট হওয়ার কথা। যদি তাও সমস্যা থেকে থাকে, আপনি আমাদের কাস্টমার সার্ভিসে জানাতে পারেন।

 মেহেদী
প্রশ্ন : আমি একটি কাজ পেয়েছি। কিন্তু কাজটি করার জন্য সময় নেই আমার কাছে। এখন কি ক্লায়েন্টকে মানা করে দেওয়া উচিত হবে? নাকি অন্য কাউকে দিয়ে কাজটি করিয়ে দিব?

সমাধান : প্রথমতই যেটি বলবো, সময় হাতে না থাকলে কাজটা আসলে নেয়াই উচিৎ হয়নি। পেমেন্ট ছাড়া জব ক্যানসেল করে দিলে আপনার প্রোফাইলের স্কোর অনেক কমে যাবে এবং ভবিষ্যতে অ্যাকাউন্ট হাইড বা সাসপেন্ড হতে পারে।

অন্যদিকে ক্লায়েন্টও তার সময় নষ্ট করেছেন এমন অভিযোগ দিলে আপনার অ্যাকাউন্ট নিয়ে সমস্যা হতে পারে। তবে যেহেতু নিয়েই নিয়েছেন, ক্লায়েন্টকে পুরো সমস্যা বুঝিয়ে বলতে পারেন এবং তার যাতে কাজে ক্ষতি না হয় তার জন্য পুরোপুরি চেষ্টা করতে পারেন।

যদি অন্য কাউকে দিয়ে করিয়েও নেন, তাহলেও খেয়াল রাখবেন যাতে ক্লায়েন্টের প্রয়োজনমত কাজটি হয়ে, কারণ তার থেকে পাওয়া ফিডব্যাক বা রেকমেন্ডেশন স্কোর কিন্তু আপনার প্রোফাইলেই যাবে।

Munna

প্রশ্ন : Sir i want to learn Craigslist but for lack of learning center in sylhet i can,t learn Craigslist.so i want your advice and willing to know how can i learn this by online. Thanks and waiting for your kind response.

সমাধান :ক্রেইগ্লিস্টে কাজ করা কিন্তু বেশিরভাগ মার্কেটপ্লেসে নিষেধ করা আছে এবং এই জাতীয় কাজ করলে ইল্যান্স বা ওডেস্ক অ্যাকাউন্ট সাসপেন্ড পর্যন্ত হতে পারে। আপনি বরং আরও হাই-এন্ড কোনো স্কিল ডেভেলপ করে ক্যারিয়ার গড়তে পারেন।

abdul karim
প্রশ্ন : ami sudu word o excel er kaj sikhesi, graficser kaj sikhsi.inglish motamuti buji o bolte pari. Ami ki outsourching er kaj korte parbo?

সমাধান :আরও পরিপক্ক হলে ভালো হয়। মার্কেটপ্লেসে এখন এমনিতে বেসিক কাজ জানে এমন প্রচুর ফ্রিল্যান্সার হয়ে গিয়েছে, তাই আপনার জন্য কাজ পাওয়া খুব কঠিন হবে। আরও ভালো কোন কাজে দক্ষতা তৈরি করুন, ইংরেজিতে যোগাযোগ দক্ষতা আরও উন্নত করুন, তাহলে ভবিষ্যতে যে কোনো স্থানেই ভালো ক্যারিয়ার করতে পারবেন।

আরও পড়ুন

ইল্যান্স-ওডেক্সে অ্যাকাউন্ট রিভিউতে কড়াকড়ি হচ্ছে

আউটসোর্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ না পাওয়ার যত কারণ 

চাকরির পাশাপাশি যেভাবে করতে পারেন ফ্রিল্যান্সিং

মার্কেটপ্লেসের বাইরে ক্লায়েন্টের কাজের প্রস্তাবে সতর্ক হতে হবে

প্রোফাইল ও অ্যাপ্লিকেশন ভালো হলে ক্লায়েন্ট নিজেই কাজ দেবে

ইল্যান্স-ওডেক্সে একাধিক একাউন্ট নয়, পোর্টফোলিও করা যাবে 

ফ্রিল্যান্সিং প্রশ্নোত্তর : শুরুতে গুরুত্বপূর্ণ প্রোফাইল পোর্টফোলিও স্কিল টেস্ট

ব্যবসায় এবং ব্যবস্থাপনা বিষয়ে ফ্রিল্যান্সিং

ফ্রিল্যান্স প্রফেশনাল হিসেবে ছুটি কাজে লাগানোর উপায়

ফ্রিল্যান্সিংয়ে ডিগ্রি নয়, কাজ ও যোগাযোগ দক্ষতাই আসল

গেইম নিয়ে টেকনেক্সটের প্রতিযোগিতা মেইড ইন বাংলাদেশ

তুসিন আহমেদ,টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : প্রথম দেখলে মনে হবে বিদেশি বিখ্যাত কোনো গেইম নিমার্তা প্রতিষ্ঠানের তৈরি এটি। খেলা শুরু করলে মনে পড়ে যাবে ফ্ল্যাপি বার্ডস গেইমটির কথা। এটির মতো বারবার গেইমটি খেলতে ইচ্ছা করবে।

গেইমটির নাম ‘ডেক্সট্রিস হ্যালোইন‘। এটি তৈরি করেছে বাংলাদেশি তরুণদের নিয়ে গঠিত ‘টেকনেক্সট’ নামে মোবাইল গেইম ডেভেলপমেন্টকারী একটি প্রতিষ্ঠান। এ খবর অনেকের জানা। তবে নতুন খবর হলো এ গেইম নিয়ে শুরু হয়েছে একটি গেইমিং প্রতিযোগিতা। জয়ীদের জন্য রয়েছে আকর্ষণীয় পুরস্কার

বাংলাদেশে যে বিশ্বমানের গেইম তৈরি হচ্ছে এটি জানানোর জন্য প্রতিষ্ঠানটি এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে। প্রতিযোগিতার নাম দিয়েছ ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’। এটি চলবে আগামী ১৬ ই ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে ।

আরো পড়ুনঃ দেশে অনলাইন গেইমিংয়ের রঙ্গিন দুনিয়ায় ভিড় বাড়ছে

“ডেক্সট্রিস হ্যালোইন-টেকশহর

প্রতিযোগিতা চলাকালীন সময়ে ডেক্সট্রিস হ্যালোইন গেইমে অংশ নেওয়া গেইমারদের মধ্যে প্রতি সপ্তাহে সেরা ১০ জনকে স্কোরের দ্বিগুন মোবাইলে রিচার্জ দেওয়া হবে। আর ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত সেরা দু’জন স্কোরারকে দুটি স্মার্টফোন পুরস্কার দেওয়া হবে।

বাংলাদেশে বসবাসকারী যে কোনো ব্যবহারকারী এ প্রতিযোগীতায় অংশ নিতে পারবেন।

বর্তমানে গুগল প্লে স্টোরে পাওয়া যাচ্ছে গেইমটি। আগামী সপ্তাহে আইফোন এবং উইন্ডোজ ফোনের জন্য আনা হবে গেইমটির সংস্করণ।

গেইমটির নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের ডেভলপাররা জানান, এটি তৈরি করতে প্রায় এক মাস সময় লেগেছে। এটির ডেভেলপার ছিলেন আহমেদ-বিন-জামান, আকিব আশেফ, ডিজাইনার হিসেবে ছিলেন নাঈম আহমেদ এবং নাভিদ জামান ধ্রুব । এ ছাড়াও আরিফুজ্জামান সোহেল এবং আয়মান শশী বিভিন্নভাবে সহায়তা করেন।

 

“ডেক্সট্রিস হ্যালোইন-টেকশহর

টেকনেক্সট প্রতিষ্ঠানের কো-ফাউন্ডার এবং প্রজেক্ট ম্যানেজার সৈয়দ রেজওয়ানুল হক টেকশহরকে বলেন, “বাংলাদেশে প্রচারণা বড় সমস্যা। যদি প্রচারণায় ভালো সাপোর্ট পাওয়া যায়, তাহলে গেইমটি দিয়ে ফ্লাপি বার্ডের জনপ্রিয়তা অতিক্রম করা সম্ভব। ”

টেকনেক্সট প্রতিষ্ঠানটি ২০১২ সালের প্রতিষ্ঠা করেন সৈয়দ রেজওয়ানুল হক এবং শাহজাহান জুয়েল। বর্তমানে এখানে সর্বমোট ১৭ জন ডিজাইনার, ডেভেলপার এবং প্রোগ্রামার কাজ করছেন।

মূলত মোবাইল গেইম ডেভেলপমেন্ট এবং ওয়েব আপ্ল্যিকেশন ডেভেলপমেন্ট নিয়ে কাজ করে থাকে প্রতিষ্ঠানটি। বর্তমানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া এবং কানাডাতে কয়েকটি সফটওয়্যার ফার্মের সাথে বিভিন্ন প্রোডাক্ট ডেভেলমেন্ট নিয়ে কারছে তরুণের এ প্রতিষ্ঠান।

গেইমটি ডাউনলোড করা যাবে এ ঠিকানা থেকে। প্রতিযোগীতার বিস্তারিত তথ্য জানা যাবে এ ফেইসবুক পেইজে এটির প্রমো ভিডিওয়ের লিংক নিচে দেওয়া হলো-

আরো পড়ুনঃ

ভয়ংকর নিষ্ঠুর তবুও জনপ্রিয় ছয় গেইম!

বছরের সেরা গেইম ডার্ক সোলস ২

ভিডিও গেইমের স্কুল হচ্ছে!

মাইক্রোসফটের ডেভ সেন্টারে সবার জন্য রিভিউ উন্মুক্ত

গুগলের একগুচ্ছ ফ্রি আইকন উন্মুক্ত

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ইন্টারনেট জায়ান্ট গুগল ম্যাটেরিয়াল ডিজাইনের সাড়ে সাতশ আইকন প্যাক উম্মুক্ত করেছে। চমৎকার এসব আইকনকে ওপেনসোর্স করে দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। ফলে বিনামূল্যে এসব আইকন প্যাকগুলো যে কেউ ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারবেন।

বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন, মিডিয়া, নোটফিকেশন, যোগাযোগ, কলিং ইত্যাদি বিভিন্ন স্থানে আইকন হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। আইকনগুলো ২৪ পিক্সেল এবং ৪৮ পিক্সেল এ তৈরি করা হয়েছে। মোট আইকনের সংখ্যা ৭৫০।

ওয়েবসাইটে ব্যবহার করার জন্য পিএনজি ফরম্যাটের আইকনও রয়েছে। গুগলের অ্যান্ড্রয়েড ছাড়াও আইওএস অপারেটিং সিস্টেমের উপযোগী আইকন তৈরি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: অবৈধ সাইটের যন্ত্রণা থেকে মুক্তি দেবে গুগল

গুগল-আইকন-টেকশহর

ধারণা করা হচ্ছে আইকনগুলো ডেভেলপারদের অ্যাপ্লিকেশন তৈরিতে সাহায্য করবে। আগে অ্যাপ বা সফটওয়্যার তৈরি করতে আইকনের পিছনের অনেক সময় ব্যয় করতে হয়। এগুলো উন্মুক্ত করা হলে ডেভেলপারদের সময় বাঁচাবে। আর বিনামূল্যের হওয়ার কারণে যে কেউ শুধু মাত্র ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারবে।

এ ঠিকানা থেকে আইকনগুলোর ডাউনলোড করা যাবে।

– গুগল ব্লগ এবং সিনেট অবলম্বনে তুসিন আহমেদ

আরও পড়ুন:

গুগলের  সায়ানোজেন কেনার চেষ্টা

গুগলের হিউম্যান রিসোর্স বসের দৃষ্টিতে পছন্দের সিভি

গুগল ক্রোমে বাংলা দেখা সমস্যার সমাধান

মাইক্রোসফটের ডেভ সেন্টারে সবার জন্য রিভিউ উন্মুক্ত

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : মাইক্রোসফটের মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম উইন্ডোজ ফোন ডেভেলপাররা এখন থেকে ডেভ সেন্টারের অ্যাপ্লিকেশনগুলোতে সরাসরি রিভিউ দিতে পারবেন।

সফটওয়্যার জায়ান্টটি চলতি বছর এপ্রিল থেকে ডেভেলপারদের ভিডিও দেয়ার ফিচারটি চালু করেছিল। তবে তা এতদিন শুধু যুক্তরাষ্ট্রের ডেভেলপারদের জন্য সীমাবন্ধ ছিল। এবার তা সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেওয় হয়েছে।

সম্প্রতি উইন্ডোজ ফোন অপারেটিং সিষ্টেমকে জনপ্রিয় করতে কাজ করছে মাইক্রোসফট। যদিও অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএসের সাথে পাল্লা দিয়ে জনপ্রিয়তায়ে এখনও অনেক পিছিয়ে। তাই ডেভেলপারদের আরও অধিক অ্যাপস তৈরিতে উৎসাহী করে তুলতে এ ফিচার সব ডেভেলপারদের জন্য উম্মুক্ত করা হয়েছে।

goto_devportal-techshohor

মাইক্রোসফটের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে , ডেভেলপারররা এখন থেকে যে কোনো অ্যাপ্লিকেশন সম্পর্কে রিভিউ দিতে পারবে। ফলে অ্যাপগুলোর  বাগ সম্পর্কে জানা যাবে। এ ছাড়া উইন্ডোজ ফোন অ্যাপ্লিকেশনের মান উন্নত হবে।”

নতুন ফিচারটির সাথে মাইক্রোসফট ডেভেলপারদের সুবিধার জন্য অর্থিক লেনদেন সেবাপ্রদানকারী প্রতিষ্ঠান পেপাল  আরও নতুন পাঁচটি উউন্ডোজ ফোন মার্কেট প্লেসে যুক্ত করা হয়েছে।

-দ্য নেক্সট ওযেব অবলম্বনে তুসিন আহমেদ

আরও পড়ুন

আসছে উইন্ডোজ ফোন ৮.২

মাইক্রোসফট অফিস ৩৬৫ এর ব্যক্তিগত সাবক্রিসপশন চালু