জাগো ফাউন্ডেশন পেল আইসিটি ইন এডুকেশন পুরস্কার

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে শিক্ষায় অবদার রাখার জন্য ইউনেস্কোর ‘আইসিটি ইন এডুকেশন’ পুরস্কার পেয়েছে জাগো ফাউন্ডেশন।

ইউনেস্কোর প্রধান কার্যালয় প্যারিস থেকে জাগো ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা করোভি রাখশান্দ পুরস্কারটি গ্রহণ করেন।

আইসিটি ইন এডুকেশন পুরস্কারটিকে ‘ ইউনেস্কো কিং হামাদ বিন ইসা আল খলিফা’ নামেও চেনেন অনেকেই। যা ২০০৫ সাল থেকে ইউনেস্কো শিক্ষা খাতে প্রযুক্তি ব্যবহার করে ইনোভেটিভ কাজগুলোর স্বীকৃতি হিসেবে দিয়ে আসছে।

Online_school_unesco-jago faoundation-Techshohor

দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে শিক্ষা পৌঁছে দিতে ভিডিও কনপারেন্সের মাধ্যমে ক্লাস নেয় জাগো ফাউন্ডেশন। এক্ষেত্রে তাদের সহিযোগিতা করে গ্রামীণফোন এবং অগ্নি সিস্টেমস লিমিটেড।

বর্তমানে ঢাকার রায়েরবাজার থেকে দেশের ১০টি স্থানে এই স্কুল পরিচালনা করছে জাগো ফাউন্ডেশন।

পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইউনেস্কোর আন্তর্জাতিক জুরির চেয়ারম্যান ড্যানিয়েল বারগস, ইউনেস্কো মহাপরিচালক ইরিনা বোকোভা, বাহরাইনের উপ-প্রধানমন্ত্রী শায়খ মুহাম্মদ বিন মোবারক আল খলিফা, বাহরাইনের শিক্ষাবিষয়ক মন্ত্রী ড. মাজেদ বিন আলী আল নোয়ামিসহ আরও অনেকেই।

ইমরান হোসেন মিলন

জাগো স্কুল ও ইনফোলেডিকে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের অনুদান

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে শিক্ষা বিস্তার এবং সামাজিক ক্ষমতায়ন ও দারিদ্র্য দূরীকরণে কাজ করায় দুটি প্রতিষ্ঠানকে আর্থিক অনুদান দিয়েছে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ।

সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর মানসম্মত শিক্ষা প্রদানের প্লাটফর্ম জাগো ফাউন্ডেশন স্কুল এবং তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে নারীদের ক্ষমতায়ন, সামাজিক উন্নয়ন ও দারিদ্র্য দূরীকরণে ডিনেট উদ্ভাবিত ইনফোলেডিকে এই অনুদান দেওয়া হয়েছে। এখন থেকে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ প্রতিষ্ঠান দুটির সঙ্গে কাজ করবে। ‪

শনিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) মিলনায়তনে প্রতিষ্ঠান দুটিকে ৩৯ লাখ ৯৫ হাজার টাকা করে অনুদানের চেক হস্তান্তর করেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

Palak-jago-techshohor

অনুষ্ঠানে জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, জাগো ফাউন্ডেশনের সঙ্গে কাজ করে দেশের প্রতিটি ইউনিয়নে একটি করে অনলাইন স্কুল তৈরি পরিকল্পনা আমাদের আছে। এছাড়াও জাগোর স্কুলে একটি শেখ রাসেল কম্পিউটার ও ভাষা শিক্ষা ল্যাব প্রতিষ্ঠা করা হবে।

এছাড়াও বিভিন্ন সেবা প্রত্যন্ত অঞ্চলে পৌঁছে দিতে পাইলট হিসেবে ১০টি জেলায় ইনফোলেডি তাদের কার্যক্রম শুরু করছে। ডিনেট ২০২১ সালের মধ্যে সারা দেশে তিন হাজার ইনফোলেডি তৈরির টার্গেট নিয়েছিল। তবে আইসিটি বিভাগ ডিনেনেটের সঙ্গে যুক্ত হয়ে ওই সময়ের মধ্যে ৩০ হাজার ইনফোলেডি তৈরি করবে বলে বলেন পলক।

পলক বলেন, দেশে যখন কিছু তরুণ কিছু অন্যের উস্কানিতে প্রভাবিত হয়ে জঙ্গিবাদী কার্যক্রম পরিচালনা করছে তখন করভি রাখসান্দ এর মতো তরুণ জাগো ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করে দেশে শিক্ষা বিস্তারে কাজ করছে। ডিনেট তথ্যকল্যাণী তৈরি করে তথ্য ও বিভিন্ন ধরনের সেবা দিয়ে প্রত্যন্ত অঞ্চলে শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও প্রযুক্তির বিস্তারে অবদান রাখছে।

Jago-school-techshohor

তাই তিনি তরুণদের ইতিবাচক উদ্যোগ নিয়ে কাজ করার কথা বলেন। প্রয়োজনে আইসিটি বিভাগ ও সরকার তরুণদের উদ্যোগের পাশে থেকে কাজ করবে বলেও জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে জাগো ফাউন্ডেশন স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা করভি রাখসান্দ, ডিনেট প্রধান নির্বাহী ড. অনন্য রায়হান, আইসিটি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বনমালী ভৌমিক, আইসিটি বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার, বিসিসি’র নির্বাহী পরিচালক এস এম আশরাফুল ইসলামসহ আরও অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

ইমরান হোসেন মিলন