আইফোনের জন্য আবশ্যক ৫ অ্যাপস

তুহিন মাহমুদ, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : আইফোনের জন্য অ্যাপলের অ্যাপ স্টোরে লাখ লাখ অ্যাপস রয়েছে। গতবছরের অক্টোবরে অ্যাপ স্টোরে ১০ লাখ অ্যাপস থাকার ঘোষনা দেয় অ্যাপল। যেখানে ২০০৮ সালের জুলাইয়ে যাত্রা শুরুর প্রাক্কালে মাত্র ৮০০ অ্যাপ ছিলো।

আর অ্যাপ স্টোরের বৃহৎ তালিকা থেকে ব্যবহারকারীর প্রয়োজনীয় অ্যাপসটি পেতে খানিক সময় লাগতে পারে। তাই এখানে আইফোন ব্যবহারকারীদের জন্য আবশ্যক ৫টি অ্যাপস নিয়ে আলোচনা করা হলো।

girl-with-iphone-TechShohorগুগল ম্যাপস
আইফোনের জন্য এখনও পর্যন্ত সেরা ও বিনামুল্যের ম্যাপ অ্যাপ হলো ‘গুগল ম্যাপস’। অ্যাটলাস ও জিপিএস থাকার কারণে ব্যবহারকারী যেখানেই থাকুন না কেনো পথ হারানোর ভয় নেই বললেই চলে। অ্যাপটির মাধ্যমে ঠিকানা অনুযায়ী একটি জায়গা থেকে আরেক জায়গায় অনায়াসেই যাওয়া যায়। ব্যবহারকারী নিজে তার অবস্থান জানতে পারেন ও কোন পথে হাটছেন তা তাৎক্ষনিকভাবে (রিয়েল টাইম) জানতে পারেন। তাই চলার পথের নিত্য সঙ্গী হতে পারে এই অ্যাপটি।

স্নাপসিড
আইফোনে ছবি সম্পাদনার (এডিটিং) জন্য অন্যতম জনপ্রিয় ও বিনামুল্যের অ্যাপ হলো স্নাপসিড। এতে এডিটি টুলস, ফিল্টার, ফটো কারেকশন, লোকালাইজড অ্যাডজাস্টমেন্টসহ বেশ কিছু কার্যকরী সুবিধা রয়েছে। পাশাপাশি প্রায় সকল সামাজিক যোগাযোগ সাইট এতে ইন্টিগ্রেশন করা আছে, ফলে যেকোনো ছবি অ্যাপটির মাধ্যমে সরাসরি বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করা যায়। স্নাপসিড আইফোনের জন্য একমাত্র অ্যাপ যেটি ডেস্কটপের ছবি সম্পাদনার সফটওয়্যারের সমতুল্য।

লিংকডইন
ব্যবসায়িক নেটওয়ার্কিং টুল হিসেবে সবচেয়ে জনপ্রিয় হলো লিংকডইন। আপনি যদি প্রফেশনাল জগতে খুবই সক্রিয় হয়ে থাকেন কিংবা চাকরি খুঁজছেন, তাহলে আপনার জন্য লিংকডইনের বিকল্প নেই। আর এই অ্যাপটিও বিনামুল্যে পাওয়া যায়।

ড্যাশলেন
পাসওয়ার্ড ব্যবস্থাপনার কার্যকরী ও সহজ একটি অ্যাপ ‘ড্যাশলেন’। পাসওয়ার্ড, ক্রেডিট কার্ডের তথ্য, অনলাইন ট্র্যানজেকশন, ওয়েবসাইট লগ-ইন প্রভৃতি কাজ সহজেই করা যায় এর মাধ্যমে। এটি ব্যবহার করে এর তথ্যগুলো ক্লাউডের মাধ্যমে একাধিক ডিভাইসে সিনক্রোনাইজ করা যায়। অ্যাপটির প্রিমিয়াম সংস্করণের পাশাপাশি বিনামুল্যের সংস্করণ রয়েছে। তথ্য ও পাসওয়ার্ডের নিরাপত্তার জন্য ড্যাশলাইন অতুলনীয়।

ড্রপবক্স
ক্লাউড নির্ভর স্টোরেজ সুবিধার জন্য জনপ্রিয় ড্রপবক্সের আইফোন সংস্করণও রয়েছে। মূলত একই ব্যক্তি একাধিক ডিভাইস এবং একই ফাইল কয়েকজন ব্যবহার করার জন্য ড্রপবক্স ব্যবহার করা হয়। শত শত অ্যাপ ও সেবার সাথে এটি সমন্বিতভাবে কাজ করে। আপনি যেখানেই থাকুন, যে ধরণের প্রকল্পের কাজই করুন না কেনো, ড্রপবক্স আপনাকে ও আপনার সহকর্মীদের সাথে ফাইলের অ্যাক্সেস, শেয়ার ও নানা কাজে ব্যবহার করতে পারেন।

Related posts

*

*

Top