বেছে নিন পছন্দের অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যার

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : প্রতিটি কম্পিউটারে ভাইরাস থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যার থাকা উচিত। দেশের বাজারেও এখন  অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যার অনেক জনপ্রিয়। এতো অ্যান্টিভাইরাসের মধ্যে কোনটি আপনি কিনবেন সেই দ্বিধা দ্বন্দে ভুগতে হয় প্রায়ই।

এ সমস্যা দূর করতে বহুল ব্যবহৃত ১০ অ্যান্টিভাইরাসের কথা তুলে ধরা হলো। প্রয়োজন অনুযায়ী বেছে নিতে পারেন আপনারটি।

বিটডিফেন্ডার অ্যান্টিভাইরাস প্লাস

সকল দিক বিবেচনায় ও ফিচারের প্রথম অবস্থানে আছে এ অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যারটি। খুব দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়াসহ বেশ কিছু ফিচার রয়েছে যা এটিকে শীর্ষে রাখতে সাহায্য করেছে।

অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যার ইন্সটল করার কারণে কম্পিউটার ধীর হয় এমন একটি কথা প্রচলিত থাকলেও এ অ্যান্টিভাইরাসের ক্ষেত্রে সেই কথাটি প্রযোয্য নয়। অর্থাৎ বিটডিফেন্ডার বেশ উচ্চগতি সম্পন্ন ফলে কম্পিউটার ধীর হবে না।

ক্যাসপারেস্কি অ্যান্টিভাইরাস

ক্যাসপারস্কি নিয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই। দেশের বাজোরে এ অ্যান্টিভাইরাস বেশ জনপ্রিয়। এটা ইন্সটল করে ভাইরাসের ব্যাপারে আর কোনো চিন্তা না করলেও চলে।

তবে ব্যবহারের অভিজ্ঞতা থেকে বলা যায় কিছু কিছু কম্পিউটার কিছুটা ধীর হয়ে যেতে পারে।

নরটন অ্যান্টিভাইরাস ২০১৪

দিন দিন নরটন বাংলাদেশ মার্কেট দখল করে ফেলছে । অল্প রিসোর্স ও লাইট সফটওয়্যার হিসেবে নরটনের অন্য রকম এক সুনাম রয়েছে।

তবে অনেক সময় বিভিন্ন প্যাচ ফাইল বা ক্র্যাক ফাইলকে ভাইরাস না থাকা সত্তেও ডিলেট করে দেয় নরটন।

সিকিউর অ্যান্টি ভাইরাস ২০১৩

এ অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যার নামে নতুন হলেও কাজে নতুন নয় এমন কথাই বলছে টপ টেন রিভিউ সাইটটি। র‍্যাঙ্কে সফটওয়্যারটি রয়েছে ৪ নাম্বারে।

জি ডাটা অ্যান্টিভাইরাস ২০১৩

দুইটি আলাদা স্ক্যানিং ইঞ্জিন ব্যবহার করে এই অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যার। এছাড়া কিছু ফিচার রয়েছে যেগুলো বাদ পড়ে গেছে। যেমন গেম মুড, ব্যাটারি সেভার, লিঙ্ক চেকার ইত্যাদি।

বুলগার্ড অ্যান্টিভাইরাস ২০১৩

ম্যালওয়্যার রিমুভ করায় এই অ্যান্টিভাইরাসের জুড়ি নেই। তবে অন্যান্য ফিচার মিলিয়ে এটা খুব বেশি শক্তিশালী নয়।

এভিজি অ্যান্টিভাইরাস ২০১৩

ফ্রী  অ্যান্টিভাইরাস হিসেবে এই অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যারটি বাংলাদেশে বহুল ব্যবহৃত। তবে এর প্রো ভার্শনও রয়েছে। তাছাড়া ফ্রী অ্যান্টিভাইরাস কম্পিউটারে খুব বেশি কাজও করে না।

অ্যাভাস্ট প্রো অ্যান্টিভাইরাস ৭

এভাস্টের সাথে নতুন করে পরিচয় করানোর কিছু নেই। এভাস্ট ব্যবহার করেনি এমন ইউজার খুজে পাওয়া মুশকিল। এক সময় ফ্রী ব্যবহারের জন্য এই অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যারটি বেশ জনপ্রিয় ছিল। অ্যান্টিফিশিং না থাকাটা এভাস্টের জন্য নেগেটিভ পয়েন্ট।

ট্রেন্ড মাইক্রো টাইটেনিয়াম অ্যান্টিভাইরাস+ ২০১৩

ভাইরাস ধরায় খুব বেশি পারদর্শি নয় এই অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যার।

ভাইপার অ্যান্টিভাইরাস ২০১৩

ভাইপার অ্যান্টভাইরাস সফটওয়্যারটি ই-মেইল, চ্যাট ইত্যাদি থেকেও ভাইরাস ধরতে পারে এমনটাই দাবি তাদের ওয়েব সাইটের। এছাড়া এই সফটওয়্যারটি খুব বেশি জনপ্রিয় নয়।

হাসান জুবায়ের, টেক শহর  কাউন্সিলর

Related posts

টি মতামত

  1. Blogron said:

    একমত হতে পারলাম না। তালিকাই সবার উপর দিকে থাকা দরকার ছিল এভাস্টের (Avast). গত ২ বছর ধরে একনাগাড়ে ব্যবহার করছি মোবাইলে এবং পিসিতে। অসাধারন ফিচার এবং কার্যকরি ক্ষমতা। এরপরের অবস্থান হল AVG. আপনার বিটডিফেন্ডার কি করে সবার আগে যায়?

*

*

Top