হিসাব সংরক্ষণে ট্যালি ইআরপি ৯

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ট্যালি ইআরপি ৯, ব্যবসায়িক সফটওয়্যারের জগতে এক বৈপ্লবিক নাম। ছোট কিংবা মাঝারি থেকে শুরু করে বড় কর্পোরেশনের জন্য সহজ, নিরাপদ এবং সর্বোচ্চ সুবিধাসম্পন্ন অ্যাকাউন্টিং সফটওয়্যার। বিশ্বব্যাপী এই সফটওয়্যারটির ব্যবহারকারী সংখ্যা ২ মিলিয়নেরও বেশি এবং এই সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। ইংরেজির পাশাপাশি বাংলা ভাষায়ও এই সফটওয়্যারটি ব্যবহার করার সুযোগ রয়েছে। আর বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠানগুলোর সব ধরণের ব্যবসায়িক চাহিদা পূরণ করে এটি আমাদের দেশীয় বাজারেও ধরে রেখেছে শ্রেষ্ঠত্ব। বাংলাদেশের কয়েক হাজার বড় প্রতিষ্ঠানের হিসাব চলছে এই সফটওয়্যারটি দিয়ে।

ট্যালির ফিচার সমূহ:
কেন ট্যালি সফটওয়্যারটি এত জনপ্রিয়? এর অন্যতম প্রধান কারণ হচ্ছে সফটওয়্যারটির চমৎকার সব ফিচার।

tally-TechShohor

বেতনভাতা খরচ হিসাব
ট্যালির মাধ্যমে প্রজেক্ট অনুসারে বেতনভাতা খরচ হিসাবের সুবিধা রয়েছে। প্রতিষ্ঠানের বিভাগ অনুযায়ী, ইউনিট অনুযায়ী কিংবা প্রকল্প অনুসারে বেতনভাতা খরচ হিসাবের পূর্ণাঙ্গ সুবিধা দেয় সফটওয়্যারটি।

পয়েন্ট অব সেলস (POS) ইনভয়েসিং
ট্যালি সফটওয়্যারের মাধ্যমে পয়েন্ট অব সেলস (পিওসএস) ইনভয়েসিংও করতে পারবেন। এটি অনেক দ্রুত তথ্য নেয়া এবং প্রিন্টিংয়ে সক্ষম। এতে বারকোড সাপোর্টও রয়েছে।

সহজ অর্থবছর
ইচ্ছামত অর্থবছর কিংবা হিসাব সময় নির্বাচন করার সুযোগ রয়েছে এবং সে অনুযায়ী আউটপুট নেয়া যায়। যেমন কেবল ২ মাস কিংবা ২ বছরের লাভ-ক্ষতি হিসাব দেখতে চান, কিংবা প্রতিষ্ঠানের চূড়ান্ত হিসাব বের করতে চান, সহজেই সেটি ট্যালি ইআরপি-র মাধ্যমে করা যাবে।

আনলিমিটেড কোম্পানী
একটি ট্যালি সফটওয়্যার কিনেই যতখুশি প্রতিষ্ঠানের হিসাব রাখা যায়। প্রতিটি প্রতিষ্ঠানের জন্য আলাদা করে সফটওয়্যার কেনার প্রয়োজন পড়ে না।

ডাটা সিনক্রোনাইজেশন
যেসব প্রতিষ্ঠানের অনেকগুলো শাখা রয়েছে, কিংবা অফিস-গোডাউন-বিক্রয়কেন্দ্র আলাদা স্থানে সেসব প্রতিষ্ঠানের হিসাবও কেন্দ্রীয়ভাবেই রক্ষা করা সম্ভব। একটি নির্দিষ্ট জায়গা থেকেই সমস্ত হিসাব সর্বত্র সিনক্রোনাইজ হয়ে থাকে এ সফটওয়্যারটির মাধ্যমে।

ইচ্ছামত শ্রেনীবদ্ধকরণ
ট্যালি সফটওয়্যারটির মাধ্যমে ইচ্ছামত তথ্যগুলোকে শ্রেনীবদ্ধকরণ করার সুযোগ রয়েছে। ধরুন, অনেকগুলো পণ্য বিক্রি করেন। এক্ষেত্রে কোন পণ্য থেকে কত মুনাফা হচ্ছে, কোন পণ্যের মুনাফা কম সেটি সহজেই দেখা যায় ট্যালি-র মাধ্যমে। আবার কোন পণ্যের যদি একাধিক সংস্করণ থাকে, তাহলে কোন সংস্করণটি বেশি বিক্রি হচ্ছে সেটি উক্ত পণ্যের গ্রুপ লেজার থেকে সহজেই দেখার সুযোগ রয়েছে।

গ্রুপ অব কোম্পানী ব্যবস্থাপনা
ট্যালি সফটওয়্যারের মাধ্যমে সহজেই গ্রুপ অব কোম্পানী হিসাব ব্যবস্থাপনা করার সুযোগ রয়েছে। যেকোন একটি কোম্পানীর তথ্য আপডেট করলে এটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে গ্রুপ হিসাবে আপডেট হয়ে যাবে।

অ্যাডভান্সড এমআইএস
ট্যালি ইআরপি ৯ সফটওয়্যার বিভিন্ন বিভাগ এবং সময় অনুযায়ী পারফর্মেন্স বিশ্লেষণ করার সুবিধা দেয়। নির্দিষ্ট বিভাগ কিংবা সময়ের সঙ্গে অন্য বিভাগ এবং সময়ের তুলনা কিংবা বিশ্লেষণ করা এ সফটওয়্যারে কয়েক ক্লিকের ব্যাপার মাত্র। এটি প্রতিষ্ঠানের অভ্যন্তরীন পারফর্মেন্স বিশ্লেষণ করার সুবিধা যেমন দেয় তেমনি ক্রেতার ক্রয়ের ধরণও বিশ্লেষণ করে। আর ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষও সহজেই নির্দিষ্ট সময়, পণ্য কিংবা সেগমেন্টের জন্য বিশেষ সিদ্ধান্ত নিতে পারে। প্রতিষ্ঠানের ‘ক্যাশ ফ্লো’ বিশ্লেষণ করেও নানা ধরণের সিদ্ধান্ত নিতে সহায়তা করে।

চাহিদামত হিসাব
এটি একটি হিসাব আপডেট করলেই এর সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত হিসাবগুলো স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপডেট হয়। আর চাহিদামত যেকোন হিসাবই এ থেকে সংগ্রহ করা যায়, আপডেট করা যায়।

হিসাব রক্ষণ ফিচার সমূহ:

কোড সহকারে হিসাব রক্ষণ
ট্যালিতে কোড সহ যেকোন হিসাব রক্ষণ করা যায়, তাই প্রয়োজনে এটি সহজেই যেমন খুঁজে পাওয়া যায় তেমনি হিসাবরক্ষণ প্রক্রিয়াকেও সহজ করে।

গ্রুপ লেজার ব্যবস্থাপনা
সহজ ব্যবস্থাপনার জন্য অনেকগুলো লেজারকে একটি লেজারের মাধ্যমে রাখা যায়, প্রয়োজনে গ্রুপ লেজার থেকে আবার প্রতিটি আলাদা লেজারের হিসাবও বের করা যায়। ধরুন, একটি কম্পিউটার বিক্রয়কারী প্রতিষ্ঠান হার্ডডিস্ক বিক্রয়ের সমস্ত হিসাব একটি গ্রুপ লেজার হিসাব রাখে। এখন প্রতিষ্ঠানটি যতগুলো কোম্পানীর হার্ডডিস্ক বিক্রি করে সবগুলো আলাদা আলাদা লেজারে রেখে ‘হার্ডডিস্ক’ কে মূল লেজার হিসাবে নির্বাচন করার সুযোগ রয়েছে। এটি হিসাব ব্যবস্থাকে একদিকে সহজ করে দেয় অন্যদিকে প্রতিটি বিষয়েরই বিস্তারিত তথ্য পাওয়ার সুযোগ রয়েছে।

পূর্ণাঙ্গ হিসাবরক্ষণ
এতে অর্থগ্রহণ-অর্থপ্রদান, আয়-ব্যায়, ক্রয়-বিক্রয়, ডেবিটনোট-ক্রেডিটনোট, সমন্বিত জাবেদা, স্বারক জাবেদা এবং বিপরীত দাখিলা সহ আধুনিক হিসাব রক্ষণ পদ্ধতির সমস্ত সুবিধা রয়েছে। ট্যালি ইআরপি ৯ সফটওয়্যারটিতে খুব সহজেই এ ধরণের হিসাব তালিকাভূক্ত করা যায় এবং এর জন্য খুব বেশি হিসাবরক্ষণ জ্ঞানের প্রয়োজন হয় না।

পূর্ণাঙ্গ হিসাব ব্যবস্থা
এটি একটি পূর্ণাঙ্গ হিসাব সফটওয়্যার। ব্যবহারকারী কোন জাবেদা প্রদানের পর তাৎক্ষণিকভাবেই এটি উদ্বর্তপত্র (ব্যালেন্স শিট), লাভ-ক্ষতি হিসাব (প্রফিট অ্যান্ড লস অ্যাকাউন্ট), নগদ এবং তহবিল প্রবাহ (ক্যাশ অ্যান্ড ফান্ড ফ্লো), ট্রায়াল ব্যালেন্স এবং অন্যান্য সব হিসাব স্বয়ংক্রীয়ভাবে সম্পন্ন করে।

মাল্টি কারেন্সি ব্যবস্থাপনা
যেসব প্রতিষ্ঠান দেশের বাইরেও ব্যবসা পরিচালনা করে তাঁদের জন্য একাধিক মুদ্রায় হিসাব রক্ষণের সুবিধা রয়েছে।

দেনা-পাওনা ব্যবস্থাপনা
নির্দিষ্ট ইনভয়েসের জন্য রেফারেন্স নাম্বার এবং প্রদানের তারিখসহ অর্থ বরাদ্দকরা, গ্রুপ ভিত্তিক দেনা পাওনার তথ্য সংগ্রহ এবং ব্যবস্থাপনা এবং কাস্টোমাইজেবল রিমাইন্ডার ব্যবস্থার সুযোগ রয়েছে। এ ফিচারের মাধ্যমে দেনাদারের কাছ থেকে কবে পাওনা আদায় করতে হবে এবং পাওনাদারকে কবে অর্থ পরিশোধ করা লাগবে সে সংক্রান্ত নোটিফিকেশন পাওয়ার সুযোগ রয়েছে।

গ্রাহক পেমেন্ট পারফরম্যান্স
ফিচারটির মাধ্যমে গ্রাহকের অর্থ পরিশোধ করার স্বভাব সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যাবে। যেসব দেনাদার অর্থ পরিশোধে গড়িমসি করে এবং সবসময় দেরি করে অর্থ পরিশোধ করে তাঁদেরকে স্বয়ংক্রীয়ভাবে বাছাই এবং ব্যবসায়িক সিদ্ধান্ত নেয়ার সুযোগ রয়েছে।

অনুপাত বিশ্লেষণ
এটি প্রতিষ্ঠানের লেনদেনের তথ্যানুযায়ী বিভিন্ন অনুপাত বিশ্লেষণ করে। ফলে প্রতিষ্ঠানের তথ্যাদি এবং দক্ষতা খুব সহজেই যাচাই করা যায়।

কোটেশন, অর্ডার, ইনভয়েস এবং চেক প্রিন্ট
যেকোন পণ্য কিংবা সেবার বিপরীতে কোটেশন, অর্ডার, ইনভয়েস এবং চেক প্রিন্টিং সুবিধা রয়েছে ট্যালিতে। ফিচারটির মাধ্যমে এক বিভাগের সঙ্গে অন্য বিভাগের রিয়েল টাইম হিসাব আপডেট সুবিধা পাওয়া যায়। কোন পণ্যের বিক্রয় সম্পন্ন হলে এটি স্বয়ংক্রীয়ভাবে ইনভেনটরি হিসাব থেকে একটি পণ্য কমিয়ে দেয়।

ভ্যাট-ট্যাক্স হিসাব
ভ্যাট এবং অন্যান্য ট্যাক্স হিসাব রাখার স্বয়ংক্রীয় ফিচার রয়েছে ট্যালি সফটওয়্যারটিতে

বাজেটিং
বিভিন্ন কাজের জন্য কিংবা বিভাগ অনুসারে বাজেট পরিকল্পনা, মনিটরিং এবং বাস্তবায়নের সুযোগ রয়েছে সফটওয়্যারটিতে।

বিভিন্ন স্তরে নিরাপত্তা ব্যবস্থাপনা
যেসব প্রতিষ্ঠানে হিসাব বিভাগ একাধিক ব্যক্তি ব্যবস্থাপনা করেন তার জন্য ট্যালিতে রয়েছে খুব শক্তিশালী নিরাপত্তা ব্যবস্থাপনা ফিচার। কেউ কোন হিসাব সম্পাদনা করলে কিংবা এন্ট্রি দিলে সহজে তা উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ মনিটর করতে পারে।

অডিট ফিচার
ট্যালির অডিট ফিচারের মাধ্যমে কোন হিসাবের ট্র্যাক পরিবর্তন, কিংবা কোন ভুল সংশোধন অডিটের মাধ্যমে করা যাবে।

বিজনেস পূর্বাভাস এবং পরিকল্পনা ব্যবস্থাপনা
সফটওয়্যারটিতে রয়েছে ‘সিনারিও’ ব্যবস্থাপনা ফিচার, যা প্রতিটি ব্যবসায়ের পূর্বাভাস এবং পরিকল্পনা প্রনয়ণে সহায়তা করবে। পরিকল্পনা অনুযায়ী আপনি জার্নাল তৈরি করতে পারবেন এবং পরবর্তীতে ব্যবসায়ের মূল হিসাবের সঙ্গে সেটি তুলনা করতে পারবেন। সেখানে সহজেই ধরা পড়বে পরিকল্পনা বাস্তবায়নের পার্থ্যক্যসমূহ।

আনলিমিটেড খরচ এবং মুনাফা কেন্দ্র
আনলিমিটেড খরচ এবং মুনাফা কেন্দ্র (কস্ট অ্যান্ড প্রফিট সেন্টার) বহুমাত্রিক বিশ্লেষণ এবং তুলনার সুযোগ করে দেয়। আপনি বিভিন্ন ক্রাইটেরিয়া অনুযায়ী যেকোন হিসাবকে বিশ্লেষণ করতে পারবেন।

ইনভেনটরি ব্যবস্থাপনা ফিচার সমূহ:

বিভিন্ন জায়গায় স্টক নিয়ন্ত্রণ
আপনার পণ্য বিভিন্ন স্থানে থাকতে পারে, ট্যালির মাধ্যমে আপনি সবগুলো স্থানের ইনভেনটরিই হিসাবে রাখতে পারবেন।

গোডাউন ব্যবস্থাপনা
সহজেই এক কিংবা একাধিক গোডাউন এবং পণ্য ব্যবস্থাপনা ট্যালির মাধ্যমে করার সুযোগ রয়েছে।

পণ্যের ফ্লেক্সিবল ইউনিট
আপনার পণ্যের একক আপনি নিজেই তৈরি করে নিতে পারবেন। ধরি, আপনি সিডি কম্পিউটার সিডি বিক্রি করেন, এখন বক্স হিসাবেও আপনি সিডির হিসাব রাখতে পারবেন, একই সঙ্গে প্রতিটি সিডি-র আলাদা আলাদা হিসাবও রাখা সম্ভব ট্যালির মাধ্যমে।

মালামাল আনা নেয়া হিসাব ব্যবস্থাপনা
আপনার পণ্য একেক সময় একেক স্থান থেকে অন্য স্থানে নিয়ে যাওয়ার প্রয়োজন হতে পারে। এটি সহজেই এই পণ্য আনা নেয়ার মুভমেন্ট হিসাব রাখতে পারে।

বিভিন্ন ব্যবস্থাপনা প্রতিবেদন সমূহ
আপনি ভেন্ডর অনুযায়ী, পণ্য অনুযায়ী, ক্রয়কৃত মাল হিসাবে কিংবা বিক্রয় হওয়া গোডাউনে থাকা পণ্যের হিসাব বিভিন্ন বিভাগ অনুসারে সহজেই হিসাব রাখতে পারেন এ সফটওয়্যারটির মাধ্যমে। এটি পণ্যের আনা-নেয়ার প্যাটার্ন বিশ্লেষণ, ক্রেতার ক্রয় প্যাটার্ন খুঁজে বের করার মত চমৎকার সুবিধা সম্পন্ন।

ক্রয়-বিক্রয় অর্ডার
এটি ক্রয় এবং বিক্রয় অর্ডার ব্যবস্থাপনা করতে পারে, প্রয়োজনে বিভিন্নভাবে এ থেকে তথ্যও সংগ্রহ করা যায়।

কয়েক ধাপে মূল্য ব্যবস্থাপনা
আপনার সব ক্রেতাকেই একই মূল্যে পণ্য দিবেন এমনটি নয়, ক্রেতার ধরণ অনুযায়ী পণ্যের মূল্য ব্যবস্থাপনার ফিচার রয়েছে এ সফটওয়্যারটিতে। তাই পাইকারী ক্রেতার জন্য যেমন একধরণের মূল্যের হিসাব রাখা যায় তেমনি খুঁচরা ক্রেতার জন্য আরেক ধরণের মূল্য হিসাব করার সুযোগ রয়েছে।

ট্যালি সংস্করণ
ব্যবহারকারী ভেদে প্রয়োজন ভিন্ন হয়, আর সবার প্রয়োজন মাথায় রেখেই ট্যালি ইআরপি ৯ সফটওয়্যারটি দুটি সংস্করণে বাজারে আনা হয়েছে।

সিঙ্গেল ইউজার
ছোট এবং মধ্যম সারির প্রতিষ্ঠান, যাদের হিসাব বিভাগ একজন কিংবা দুজন মিলে পরিচালনা করেন সেসব প্রতিষ্ঠানের জন্য সিঙ্গেল ইউজার (একক ব্যবহারকারী) সংস্করণটিই যথেষ্ঠ। এ সংস্করণটি একটি কম্পিউটারে ব্যবহার করা যাবে। আর ট্যালি.নেট ফিচারের মাধ্যমে অনলাইন অ্যাকাউন্ট দিয়ে যেকোন কম্পিউটার থেকেই এতে এন্ট্রি দেয়া ছাড়া যেকোন সম্পাদনা করা কিংবা তথ্য নেয়ার সুযোগ রয়েছে।

মাল্টি ইউজার
এই সংস্করণটি আনা হয়েছে বৃহদাকার প্রতিষ্ঠানের চাহিদা চিন্তা করে। যেসব প্রতিষ্ঠানের হিসাব বিভাগে একাধিক কর্মী রয়েছে এবং হিসাব বিভাগের তথ্যাদি অন্যান্য বিভাগের তাৎক্ষণিকভাবে প্রয়োজন হয় সেসব প্রতিষ্ঠানের জন্য ট্যালি ইআরপি ৯ মাল্টি ইউজার (বহু ব্যবহারকারী) সংস্করণ। এটি কেন্দ্রীয়ভাবে একটি কম্পিউটার থেকে সমস্ত তথ্য সিনক্রোনাইজ হয় এবং সবাই একইসঙ্গে এতে কাজ করতে পারে। উচ্চ নিরাপত্তা ফিচার থাকায় তথ্যের নিরাপত্তা যেমন রয়েছে তেমনি কে কখন কি ধরণের এন্ট্রি দিচ্ছে কিংবা সম্পাদনা করছে সেটি সহজেই দেখা যায়।

Related posts

*

*

Top