হারানো ফাইল খুঁজে দেবে রিকিউভা

হাসান যোবায়ের, টেক শহর প্রতিবেদক : কম্পিউটারে ভুল করে ফাইল ডিলিট অথবা ড্রাইভ ফরম্যাট হয়ে যায়নি এমন ব্যবহারকারীর সংখ্যা নেই বললেই চলে। অজান্তে ডিলেট হতে পারে ছবি, ভিডিও, গান অথবা কোনো প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট অর্থাৎ কম্পিউটারের যে কোনো ধরনের ডাটা ফাইল। এমন ব্যবহারকারীর দুশ্চিন্তা দূর করার উপায়ও খুঁজে বের করেছেন প্রযুক্তিবিদরা। রিকভারি সফটওয়্যারই হল সেই ব্যবস্থা। যা হারানো ফাইল ফিরিয়ে এনে নির্ভার করবে আপনাকে।

অনেক সময় দেখা যায়, Shift+ Delete চেপে যে কোনো ফাইল ডিলেট করার পর তা রিসাইকেল বিনেও থাকে না। এরমানে সেটা একবারেই ডিলেট হয়ে যায়। এরপর আপনার সেই ফাইলটি দরকার হয়ে পড়ল। তখন উপায়? এ ছাড়া ভুল করে কোনো ড্রাইভ ফরম্যাট হয়ে গেলে সেই ফাইলগুলো কি চিরতরে হারিয়ে গেল?

না, আসলে এরও সমাধান আছে। একটি রিকভারি সফটওয়্যার সেই কাজটিই করে কম্পিউটার ব্যবহারকারীকে অনেকটা নিশ্চিতে কাজ করার সুযোগ দিচ্ছে। এ সফটওয়্যারের কাজই হচ্ছে ডিলেট হয়ে যাওয়া ফাইল পুনরুদ্ধার করা। এ ধরণের রিকভারি সফটওয়্যার অনেক রয়েছে। তবে বিনা পয়সায় এবং আকারে ছোট ও কাজের দিক থেকে বহুল ব্যবহৃত ফাইল রিকভারি সফটওয়্যার হচ্ছে Recuva। এ চমৎকার সফটওয়্যার দিয়ে খুব সহজেই কম্পিউটারের ফাইল রিকভারি করা যায়।

রিকিউভা সফটওয়্যারের ফিচারঃ

  • ভুল করে ডিলেট করা ফাইল রিকভারি করা। কম্পিউটার, পেনড্রাইভ, ক্যামেরার ফটো অথবা আইপডের গান যাই হোক না কেন তা রিকভার করতে পারে এ সফটওয়্যার।
  • কম্পিউটারের কোনো ড্রাইভ যদি ফরম্যাটও হয়ে যায় তবে ওই ড্রাইভ থেকেও ফাইল রিকভার করে দেবে রিকিউভা।
  • ইমেইলও রিকভার করে রিকিউভা! মাইক্রোসফট আউটলুক, মজিলা থান্ডারবার্ড অথবা উইন্ডোজ লাইভের মেইলগুলো রিকভার করতে পারে এটি।
  • আইপড অথবা এমপি থ্রি প্লেয়ারের গান ডিলেট হয়ে গেছে? কোনো চিন্তা নেই- রিকিউভা গানের তালিকাসহ তা রিকভার করে দিবে।
  • মাইক্রোসফট ফাইল সেভ করতে ভুলে গেছেন? অথবা পিসি ক্র্যাশ করেছে? সফটওয়্যারটি আপনাকে তা ফিরে পেতে সহায়তা করবে।
  • রয়েছে Deep Scan ফিচার, যার কাজ হলো হারিয়ে যাওয়া ফাইল খুঁজে বের করে নিখুঁতভাবে। তবে কিছুটা সময় বেশি নিয়ে থাকে।
  • কিছু ফাইল আছে যা চিরতরে মুছে ফেলা দরকার। যেন কোনো রিকভারি সফটওয়্যারও খুঁজে না পায়। হ্যাঁ এমন কাজ করতেও সাহায্য করবে এটি! যেন ফাইলটি একেবারে মুছে যায়।
  • রিকিউভায় রয়েছে পোর্টেবল ভার্সন। অর্থাৎ ইন্সটলের নেই কোনো ঝামেলা। যেখানে খুশি সেখানে নিয়ে ব্যবহার করা যাবে সহজেই।
  • উইন্ডোজের সকল ভার্সন সাপোর্টসহ প্রায় ৩৭ টির বেশি ভাষা সাপোর্ট করে। আরও বিস্তারিত জানুন এখানে।
Recuva এর কিছু স্ক্রিনশট : 

স্ক্যান করছে রিকিউভা!

 

স্ক্যানের ফলাফল : 

 

নির্দিষ্ট ফোল্ডার দেখিয়ে স্ক্যান করা হচ্ছে :

 

ডিলেট হয়ে যাওয়া অনেক ছবির মাঝে সঠিক ছবিটি খুঁজে পেতে থাম্বনেইল অপশনের সাহায্যে পাওয়া যাবে খুব সহজেই। নিচে দেখুন :

 

নির্দিষ্ট করে ছবি, গান বা ডকুমেন্ট স্ক্যান করা যাবে ফলে ডাটা পাওয়া যাবে আরও সহজে। উদাহরণ দেখুন :

 

ফাইল ডিলেট হয়ে যাওয়ার সাথে সাথেই চেষ্টা করবেন রিকভারি করার। কারণ যে ড্রাইভটি ফরম্যাট হয়ে গেছে সেই ড্রাইভে যদি নতুন করে ফাইল রাখেন তাহলে আগের ডিলেট হয়ে যাওয়া ফাইলের সাথে ওভাররাইট হয়ে যাবে। ফলে রিকভারি হবে না ঠিকভাবে। এ ছাড়া স্ক্যান করার সময় অবশ্যই Deep Scan অপশনটি চেক করে দিবেন।

ডাউনলোড : Recuva মাত্র ৪ মেগাবাইট এবং ফ্রি। তবে প্রিমিয়াম ভার্সনও রয়েছে।

-টেক শহর

Related posts

*

*

Top