হাসিনা-ইনু কথোপকথন নিয়ে ফেইসবুক গরম

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : টানা তৃতীয়বারের মতো দেশে একতরফা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলো রোববার। সব একতরফা নির্বাচনের কলঙ্কিত সব অনুষঙ্গই ছিল এই ভোটে। নানা কারণে ভোটার উপস্থিতি ছিল কম। ফাঁকা কেন্দ্রে সরকারি দলের কর্মীদের জাল ভোট দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। কেন্দ্র দখল করে সিল মারার মতো ঘটনাও ঢের দেখা গেছে।

আর এসব নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ সাইটগুলোতেও চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা। এর সঙ্গে মাধ্যমগুলোতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর কথিত গোপন কথপোকথন ফেইসবুক ও ইউটিউবে প্রকাশের পর তোড়পাড় শুরু হয়ে গেছে।

ফেইসবুকে আলোচিত-সমালোচিত কিছু স্ট্যাটাস এখানে তুলে ধরা হলো।

ফেইসবুকে জিয়াউল হক জিল্লু লিখেছেন- “গতকালের কলঙ্কিত নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতি দেখে ভেবেছিলাম আওয়ামী লীগের নেতা নেত্রীরা লজ্জায় মুখ দেখাবেন না। ওমা এখন দেখছি রীতিমতো প্রেস কনফারেন্স করে হাশিমুখে দেশবাসীকে ছবক দেয়া হয়েছে। সত্যিই ক্ষমতা পেয়ে মানুষ হিতাহিত জ্ঞান হারিয়ে ফেলে”।

হাসান নাসির লিখেছেন- “এরশাদ এবার সুস্থ হবেন কি?

একরামুল হক বুলবুল লিখেছেন- “বিরোধীদলবিহীন নির্বাচনে ধরাশায়ী হলেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফর উল্লাহ, সাবেক প্রতিমন্ত্রী আবদুল মান্নান খান, সাংসদ মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন। বিএনপি নির্বাচনে এলে বাকিদের কী অবস্থা হতো???????????????????

হাসান ফেরদৌস লিখেছেন- “১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে নানা ভাবে বিশ্লেষন চলছে। কি হইলে কি হইত, লাভ কি হয়েছে? ক্ষতি কি হয়েছে?-ইত্যাদি নিয়ে টেলিভিশন টক শো গরম করছে। অথচ নির্বাচনের একদিন পরে রাস্তায় দেখা গেল ভিন্ন দৃশ্য। কাটতে শুরু করেছে সাধারন মানুষের মধ্যে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা। ফলে বিরোধী জোটের টানা অবরোধ আর ৪৮ ঘন্টা হরতালের কোন প্রভাবই দেখা যায়নি চট্টগ্রামের রাজপথে। জানমালের নিরাপত্তার পাশাপাশি সহিংস রাজনীতি বন্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার দাবী জানালেন সাধারন মানুষ। সেই সাথে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষা এবং রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা রক্ষারও দাবী তাদের।

খালেদ জামান লিখেছেন- “তুলতুলে বিরোধী দলের কি কিউট কিউট সব আন্দোলন হরতাল অবরোধ অভিযাত্রা এরপর………?”

মো: হাসানুজ্জামান লিখেছেন- “সেই সব বুদ্ধিজীবিরা কোথায় যারা এই নির্বাচনকে সর্মথন করে দেশের এত বড় ক্ষতি করল?

আহমেদ ইসতিয়াক লিখেছেন- “আর কতকিছু পাবো আমরা এই মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের দল আওয়ামী লীগ থেকে ?????”

এদিকে শেখ হাসিনা ও হাসানুল হক ইনুর মধ্যে গোপন কথোপকথন নিয়ে ওয়ালিউল্লাহ লিখেছেন- “সত্য কোনদিন চাপা থাকে না”।

শাহিনুর লিখেছেন- “প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জাসদের মুখ দিয়ে এখন গণতন্ত্রের কথা শুনতে হচ্ছে…হা হা হা…।’ — হাসিনা ইচ্ছাকৃতভাবে ইনুর উপর প্রতিশোধ নিলেন ৭৫পূর্ববর্তী কার্যকলাপের জন্য”।

জাহিদ আহসান লিখেছেন- “জাসদের মুখ দিয়ে এখন গণতন্ত্রের কথা শুনতে হচ্ছে…হা হা হা গোয়েবলস ও লজ্জা পেত আজকে বেচে থাকলে। হায় বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ!! রাজনীতিকে আর কত পচাবা?? রাজনীতিবীদদের নাম শুনলেই এখন ঘৃণায় শরীর রি রি করে উঠে”।

ফয়সাল লিখেছেন- “এরপর ও সি ই সি বলবেন নির্বাচন সুষ্ঠু কোন জাল ভোট হয় নাই”।

হাসান লিখেছেন- “এরা জাতির পিতাকে ডুবাইছে । এখন আসছে জাতির কন্যাকে ডুবাইতে । প্লিজ সতর্ক হোন”।

Related posts

*

*

Top