বিশ্বজিৎ হত্যার রায়ে ফেইসবুকে বাহবা

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : পুরান ঢাকার দর্জি দোকানি বিশ্বজিৎ দাস হত্যা মামলায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের ২১ জন কর্মীর মধ্যে আটজনকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। বাকি ১৩ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানার আদেশ দেওয়া হয়েছে।

এদিকে মামলায় মৃত্যুদণ্ড পাওয়া আসামি রফিকুল ইসলাম ওরফে শাকিল তাঁর এক স্বজনের উদ্দেশে বলেছেন, ‘জজ কোর্টের ওপর হাইকোর্ট আছে। সেখানে কিছু করার চেষ্টা কইরেন। আর আমার লাইগা চিন্তা কইরেন না। আমার কিছুই অইব না।’

bishojit_mader_-TechShohor

বিভিন্ন মিডিয়ার মাধ্যমে এসব খবর ছড়িয়ে পড়লে মানুষ এ রায়ে আদালত ও সরকারকে বাহবা জানিয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ সাইটসহ ব্লগগুলোতে এসব উচ্ছাস প্রকাশ পাচ্ছে। কেউ বলছেন নিরপেক্ষভাবে বিচার হয়েছে। কেউবা আশংকা করছেন, রায় বাস্তবায়ন নিয়ে। ফেইসবুকে থেকে এমনই কিছু মন্তব্য এখানে তুলে ধরা হলো।

Arif Jebtik : বিশ্বজিৎ হত্যাকাণ্ড নিয়ে যেমন নিন্দায় সরব ছিলাম, বিশ্বজিৎ হত্যার সুবিচার নিশ্চিত করায় তেমনি করে ধন্যবাদ জানানোটা কর্তব্য বলে এই স্ট্যাটাস। রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ডের বিচার হয় না বলেই এসব হত্যাকাণ্ড অহরহ ঘটতে থাকে, এই বিচারহীনতার সংস্কৃতি একদিনেই দূর করা যাবে না, কিন্তু বিচার যত বেশি নিশ্চিত করা যাবে ততোই এসব কমে আসবে।
প্রমানিত হয়েছে যে সরকার আন্তরিক থাকলে ক্রিমিনালদের গ্রেফতার করা যায়, শক্ত মামলা পরিচালনা করা যায় এবং আদালতে সেই প্রমান উপস্থাপনের মাধ্যমে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা যায়। ধন্যবাদ সরকারকে, কোনো রকম রাজনৈতিক ফাপরবাজি না করে আন্তরিকতা ও দৃঢ়তায় বিচারকাজে সহায়তা করার জন্য।

হাসান মোরশেদ স্মরণ করিয়ে দিয়েছে যে ছাত্রলীগের আরেক গুন্ডা শফিউ আলম প্রধানকেও একইভাবে খুনের অভিযোগে ফাঁসির দণ্ড নিশ্চিত করেছিল তৎকালীন আওয়ামী লীগ সরকার। ৭৫ এর পট পরিবর্তনের পর সেই দণ্ড রদ করেছিল জিয়াউর রহমানের মার্শাল ল। সেই শফিউল আলম প্রধান এখনও আওয়ামী লীগরে গালাগালি করে মন্ত্র জপ করার মতোই। বিশ্বজিতের খুনীরা কোনো রাজনৈতিক পটপরিবর্তনে আগামীতে বেঁচে গেলে আজ যারা এদেরকে খুনী বলে ধিক্বার জানাচ্ছেন, কাল কি বলবেন সেটা জানার কৌতুহল থাকল। তবে আশাকরি কৌতুহল মেটার সুযোগ হবে না, এদের ফাঁসি নিশ্চিতই থাকবে।

Nurunnaby Chowdhury Hasive : বিশাল এ দূর আকাশের কোন এক প্রান্ত থেকে আজ বিশ্বজিৎ দাসের মুখের কোনে হয়তো এক টুকরো হাসি ফুটবে..বিনা কারনে অনেক মানুষের সামনে মানুষরূপী কিছু অমানুষ নির্মম ভাবে হত্যা করে বিশ্বজিৎকে..মরে গিয়েও শান্তি পায়নি বিশ্বজিৎ..শুরু হয় তাকে নিয়ে নোংরা রাজনীতি..অবশেষে আজ রায় হলো..দূর আকাশে থাকা বিশ্বজিৎ দাসের মুখে এক টুকরো হাসি..ভালো থেকো বিশ্বজিৎ.ৱ

Pranta Chakrabarty : ৮ জনের ফাঁসি ১৩ জনের যাবজ্জিবন। যার মধ্যে ১৩ জনই পলাতক!

Saiful Amin Rasel : রায় বাস্তবায়ন হইলেই হয়।

Tusin Ahmed : প্রতিটি বিচার যদি এমনি করে হত।
সাগর-রুনির বিচারের কি অবস্থা??
বিশ্বজিৎ হত্যা: ফাঁসি ৮, যাবজ্জীবন ১৩

Nirlipto Apu : আলহাদুলিল্লাহ, এখন রায় দ্রুত কার্যকর করা হোক……

Ferdous Zahid : ময়না তদন্তে সত্য গোপন করেছিল যে ডাক্তার তারও কি বিচার হবে?

Ryan Hasan “ মৃত্যুদণ্ড পাওয়া শাকিল বললেন ‘আমার কিছুই অইব না’

Jahed Sarwar : বিশ্বজিৎ ছাড়া শহিদ শব্দটির আমি কোনো প্রতিশব্দ খুঁজে পাই না

মোস্তাফিজার শাকিল : এই স্বৈরাচারী সরকারের বিচার বিভাগ বিশ্বজিৎ হত্যা মামলায় ৮ জনের ফাঁসির রায় দিছে । মানবাধিকার সংস্থা তুম্রা কুথায় ???? চুশিল তুম্রা কুথায় ???

Shiplu Hridoy : বিশ্বজিৎ হত্যা মামলায় ৮ জনের ফাঁসীর রায় হয়েছে। এই রায় এর বাস্তবায়ন দ্রুত দেখতে চাই। কোন ক্রমেই যাতে রাট্রপতি তাদের প্রান ভিক্ষা না দেয়।

Mrinal Kanti Roy in Sylhet : বিশ্বজিৎ হত্যার বিচার নিয়ে যারা যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের সাথে তুলনা করে আর ত্যানা প্যাচায় তারা ছাগু নয়, সুশীল নয়।  তারা হচ্ছে ‘বকনা বাছুর’, চান্সে লাফালাফি করে! তাজ্জব কি বাত!  আজকে ‘বকনা বাছুরদের’ ফেবুতে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

Mohin Uddin : বিশ্বজীতের হত্যা মামলার রায়ে সবাই খুশি। এমনকি যারা ছাত্রলীগ করে তারাও খুশি, কারণ ছাত্রলীগ এসব বিপথগামী লোকের করণে অনেক বদনাম হয়েছে। তাই আজ মনে হয় কিছুটা কলঙ্ক মোচন হলো। যে যেই দলেরই সাপোর্ট করুননা কেন, অন্যায়ের সাথে কোন আপোষ নাই ! সরকার বিরোধীদের জন্য এটা একটা দৃষ্টান্ত হতে পারে। যুদ্ধাপরাধের মত জঘন্য কাজে লিপ্ত থাকার কারণে আদালত কর্তৃক সাজাপ্রাপ্ত যুদ্ধাপরাধীদের ক্ষেত্রেও যদি তাদের দল এমনটি করতো তাহলে মনেহয় এত হানাহানি আর হত না। কিন্তু আমাদের দূর্ভাগ্য !

আল কামাল : দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হয়েছে কেউই আর পার পাবেনা, বিশ্বজিতকে নিয়ে যেভাবে সরব ছিলেন সেরকম সরব গত এক মাসে যাদেরকে পুড়িয়ে মারা হয়েছে তাদের বেলায়ও দেখতে চাই
প্রিন্স হেক্টর : this is শেখের বেটি।
‪#‎ছাত্রলীগ করলেই পার পাওয়া যাবে না, অপরাধী ইজ অপরাধী।
ম্যাডাম জিয়া আপনি শিবিরের বিচার করবেন তো?
বিশ্বজিত্‍ এর আত্মা শান্তি পাক

Anam Rayhan : রায় হলো, কার্যকর হবে তো?

Sandipan Basu : হেফাযতের কুতি কুতি মুজাহিদ হত্যার বিচার হয়নি, অথচ একটা হিন্দুকে হত্যার দায়ে আট জনকে ফাসি দিচ্ছে সরকার! আম্রা কি এমন বাকশাল চেয়েছিলাম?
courtesy : Sobak Pakhi

Chowdhury Akbor Hossain : আজ প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগের আটজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।
শিক্ষা- শান্তি – প্রগতি ছাত্র লীগের মূলনিতি। জয় বাংলা
প্রকাশ্যে মানুষ হত্যার উৎসব একমাত্র আওয়ামী লীগের মাধ্যমে দেখেছে দেশের মানুষ। অন্য দলও খুনের রাজনীতি করে, তবে আওয়ামী লীগের মত প্রকাশ্যে না।
খবরঃ পুরান ঢাকায় দরজি দোকানি বিশ্বজিৎ দাস হত্যা মামলায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের ২১ জন কর্মীর মধ্যে আটজনকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে।

Related posts

*

*

Top