জাফর ইকবালের পদত্যাগ : ফেইসবুকে তোলপাড়

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পদত্যাগ করেছেন। সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা বাতিল করার প্রতিবাদে তিনি পদত্যাগ করেন। মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি কমিটির এক বৈঠকে ভর্তি পরীক্ষা স্থগিতের সিদ্ধান্ত নিলে তিনি পদত্যাগ করেন। এছাড়া ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে জাফর ইকবালের স্ত্রী অধ্যাপক ইয়াসমিন হক পদত্যাগ করেছেন।

এই সংবাদ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ছড়িয়ে পড়লে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করতে থাকেন। শিক্ষার্থীরা সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা বহালের দাবিতে মিছিল বের করছে। শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও অংশ নিয়েছেন।

Muhammad_Zafar_Iqbal_&_his_wife-TechShohor

শিক্ষার্থীদের দাবি, বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা বাতিল করার জন্যই জাফর ইকবাল পদত্যাগ করেছেন। এই ভর্তি পরীক্ষা বহাল রাখার দাবি জানান। সেই সঙ্গে তারা জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষ্ঠানে কর্নেল অলিসহ অনেকেই জাফর ইকবাল সম্পর্কে কটূক্তি করেন। তারা এসব কটূক্তির তীব্র প্রতিবাদ জানান।

উল্লেখ্য, সোমবার বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এবং সচেতন সিলেটবাসীর মতবিনিময় সভায় শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি প্রক্রিয়ায় সিলেটি শিক্ষার্থীদের জন্য ৫০ ভাগ কোটা বরাদ্দ এবং অবিলম্বে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে সমন্বিত ভর্তি প্রক্রিয়া বাতিলের দাবি জানিয়েছে সচেতন সিলেটবাসী।

আজ (মঙ্গলবার) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি কমিটি এক বৈঠকে বসে সিলেটবাসীর দাবির পরিপ্রেক্ষিতে তা স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নেয়।

এদিকে জাফর ইকবালের পদত্যাগ নিয়ে ফেইসবুকে আলোচনা-সমালোচনা চলছে। কেউবা তার পক্ষে আবার কেউবা বিপক্ষে আলোচনা-সমালোচনা করছেন। ফেইসবুকে প্রকাশিত তেমনই কিছু মন্তব্য এখানে তুলে ধরা হলো।

Tamim Shahriar Subeen : শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবাল ও ডক্টর ইয়াসমিন হক পদত্যাগ করেছেন বলে আমি এইমাত্র নিশ্চিত হয়েছি।

Rtr Siful Islam feeling annoyed : একটা ব্যাপার লক্ষ্য করলাম । ‪#‎SUST এ সিলেটী এর ৫০% কোটার দাবি নিয়া ফেসবুক এ যা শুরু হইসে যথারীতি সিলেটীদের অপমান করা হইতেছে … মানলাম যে ৫০% দাবী গ্রহন যোগ্য নয় । তাই বলে সিলেটীদের নিয়া কথা বলা টা কতটা যুক্তি কর। আমি ৫০% কোটা চাই না … জাফর ইকবাল স্যার এর পদত্যাগ অ চাই না … চাই একটা শান্তি পূর্ণ সমাধান …

Al-Amin Kabir : ভাল মানুষের জায়গা কোথাও নেই… এভাবেই ভালদের চলে যেতে হয়…

Arif Jebtik : বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালনায় বহিরাগতদের হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে শক্ত প্রতিরোধ চাই। মুহম্মদ জাফর ইকবাল স্যারের প্রতি পূর্ণ সমর্থন।

Najib Alam : বিশ্ববিদ্যালয় না, দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতেই অশিক্ষিত এলাকার প্রভাবশালী রাজনৈতিক নেতাদের প্রভাব প্রতিপত্তি। একটা লোকাল স্কুল কলেজে ম্যনেজিং কমিটির সভাপতি হতে হলে আগে এলাকার মেম্বার বা চেয়ারম্যন বা প্রভাবশালী কিছু হতে হয়, এরপর কমিটি নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ট ভোট পেতে হয়। শিক্ষা-দীক্ষা কিছু থাকতে হয় বলে মনে হয়না।

আনজিলা জেরিন আনজুম feeling শকড! : লগ ইন করেই দেখি রাজি ভাইয়ার স্ট্যাটাস “পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন জাফর ইকবাল স্যার” কথাটা হজম হইলো না। রাজি ভাইয়াকে কল দিলাম। তবু হজম হইলো না। স্যারের সেক্রেটারিকে কল দিলাম। স্যার ম্যাডাম দুজনেই নাকি পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। এখনো জিনিসটা হজম হচ্ছে না! স্যার এত সহজে হাল ছেড়ে দেওয়ার মানুষ??

SUST Confessions : ড: মু: জাফর ইকবাল স্যার আর সাস্ট একই বস্তু। সেই জাফর স্যার পদত্যাগ পত্র জমা দিয়েছেন। সাস্টিয়ানদের গায়ে যদি চামড়া থাকে, লজ্জা থাকে এই মুহুর্তে ক্যাম্পাসে চলে আসেন। এ বিল্ডিং এর সামনে আছি আমরা। আসার আগে এলাকা, ডিপার্টমেন্ট, সংগঠন সব পরিচয় ছেড়ে আসবেন।

– সংকলনে তুহিন মাহমুদ

Related posts

*

*

Top