ফেইসবুকের ইউ টার্ন: শিরচ্ছেদ সহিংসতার ছবি আর নয়

টেক শহর ডেস্ক : তীব্র সমালোচনার মুখে অবশেষে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক শিরচ্ছেদের বিভৎস ছবি সরিয়ে নিয়েছে। একই সঙ্গে সাইটে কি ধরনের ছবি শেয়ার করা যাবে তা নিয়ে নতুন নীতিমালা প্রকাশ করেছে।

কয়েক দিন আগে এক মহিলার শিরচ্ছেদ করছে মুখোশ পরিহিত এক পুরুষ এমন দৃশ্যের ভিডিওচিত্র ফেইসবুকে দেখা যাওয়ার পর থেকে সমালোচনা শুরু হয়। এ ছাড়া ফেইসবুকের ওয়ালে প্রায়ই কিছু সহিংসতার ছবি পোস্ট করা হয়। তীব্র আপত্তির মুখে প্রথমে কতৃর্পক্ষ এসব ছবি প্রকাশের পক্ষে তাদের অবস্থান জানালেও মঙ্গলবার রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে প্রথমবারের মতো বিভৎস্ ছবি মুছে ফেলার কথা জানায়।

Facebook_not_allowing_violent_videos_Tech Shohor

সর্ববৃহৎ সামাজিক যোগাযোগ এ মাধ্যমের প্রায় ১২০ কোটি ব্যবহারকারী রয়েছে। এদের মধ্যে অনেকেই শিশু ও কিশোর। এসব ছবি তাদের মতে বিরুপ প্রতিক্রিয়া তৈরি করে বলে মনোবিজ্ঞানীরা মনে করেন। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনও এ ধরনের কার্যক্রমের জন্য মাধ্যমটির কর্তৃপক্ষকে দায়িত্বজ্ঞানহীন বলে বলে মন্তব্য করেন। ফেইসবুক থেকে সহিংসতাপূর্ণ ছবি, ভিডিও এবং অশালীন ছবি মুছে ফেলার অনুরোধ করেছে কয়েকটি দেশ ও সংস্থাও। মাধ্যমটির নিজস্ব নিরাপত্তা পরামর্শকরা এ নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেন।

এমন পরিস্থিতিতে দু’দিন পর ভিডিও ক্লিপ না সরানোর অবস্থান থেকে ইউ টার্ন নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, গত জুলাইতে ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ নিজেদের কর্মীদের জন্য এ বিষয়ে নুতন গাইডলাইন জারি করে। তবে আগ্রহী হবে না বলে ব্যবহারকারীদের তা জানায়নি। এবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সবার জন্য নতুন এ নীতিমালার কথা জানিয়েছে ফেইসবুক।

নগ্নতা সংক্রান্ত ছবি বা ভিডিওর ওপর নিষেধাজ্ঞা থাকলেও এ বিষয়টি উন্মুক্ত থাকায় অনেকেই এ নীতির সমালোচনা করে আসছিলেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এখন থেকে এ ধরনের ছবি বা ভিডিও পোস্ট রিপোর্ট করা হলে কর্তৃপক্ষ প্রথমে এর উদ্দেশ্য খতিয়ে দেখবে। যদি সহিংসতা উদযাপনের মতো দৃশ্য হয় তবে তা সরিয়ে নেওয়া হবে। দ্বিতীয়ত যে ব্যক্তি এসব পোস্ট দিচ্ছেন তার দায়িত্ববোধও বিবেচনা করা হবে। তিনি অন্যদের সতর্ক করতে বা সমবয়সীদের সঙ্গে ভাগাভাগি করছে কি না তা যাচাই করা হবে।

কর্তৃপক্ষ জানায়, সহিংস ছবি বা ভিডিও প্রকাশের বিষয়টি হীন উদ্দেশ্যমূলক হলে প্রথমে ব্যবহারকারীকে সতর্ক করা হবে, তারপর এটি ওয়াল থেকে মুছে ফেলা হবে।

এর আগে মে মাস থেকে যে কোনো ধরনের সহিংসতার ছবি নিষিদ্ধ করা হতে পারে বলে ঘোষণা করে জনপ্রিয সামাজিক যোগাযোগ সাইটটি।  তবে সম্প্রতি সেই নির্দেশ তুলে দিয়ে আবারও ব্যবহারকারীদের ওই ধরনের ভিডিও পোস্ট করার অনুমতি দেয়। বিশ্বে প্রতিমুহূর্তের বাস্তব চিত্র সবার জানতেই পারে এমন বক্তব্য দিয়ে ফেইসবুক এ সিদ্ধান্তের কথা জানায়। তখন বলা হয়েছিল, ব্যবহারকারীরা এখন কোনো ঝামেলা ছাড়াই ভিডিওগুলো দেখতে পারবে।

সম্প্রতি ফেইসবুকে সিরিয়ায় সহিংসতা, সন্ত্রাসী হামলা, নারীর উপর নির্যাতন এসব ইস্যুতে প্রায়ই বেশ কিছু লিংক ও লেখা দেখা যায়। অনেকেই যা শেয়ার করেন৷ এগুলোর অনেকের মধ্যে নেতিবাচক চাপ তৈরি করে। বিশেষ করে শিশু, কিশোর, নারী ও বৃদ্ধদের মধ্যে মানসিক চাপ তৈরি করে।

সর্বশেষ নীতিমালা প্রকাশের কথা জানিয়ে ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ জানায়, কখনো কখনো এসব ছবি বা ভিডিও এর মাধ্যমে মানবাধিকার লঙ্ঘন, সন্ত্রাসবিরোধী কর্মকাণ্ড এবং নির্যাতনের গ্রাফিক্স ও ভিডিও ছবি থাকে৷ বেশিরভাগ ক্ষেত্রে মানুষ নিন্দা জানাতে এসব ভিডিও বা ছবি আপলোড করে। তবে যদি কোনো ব্যক্তি এটিকে আনন্দ বা উদযাপনের অংশ হিসেবে আপলোড করে তবে ফেসবুক তা মুছে দেবে৷

– বিবিসি প্রতিবেদন থেকে আমিন রানা

*

*

Top